ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
bangla news

সাকিব-মাশরাফির কোনো বিকল্প নেই: বিসিবি প্রধান

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১১ ৫:২৪:০১ পিএম
মাশরাফি ও সাকিব-ছবি: সংগৃহীত

মাশরাফি ও সাকিব-ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বকাপে অবিশ্বাস্য ফর্মে ছিলেন সাকিব আল হাসান। এক ঝাঁক রেকর্ডের মালিকও হয়েছেন এই আসরেই। দলের সেরা পারফর্মারের বিকল্প যে নেই তা নিশ্চয় বলার অপেক্ষা রাখে না। অন্যদিকে বল হাতে অনুজ্জ্বল এক বিশ্বকাপ কাটিয়েছেন ওয়ানডে দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। তবে মাশরাফির লড়াকু মনোভাবের জন্যই তার কোনো বিকল্প নেই বলে মনে করেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন।

মাশরাফির ফর্ম নিয়ে পুরো আসরেই সমালোচনায় মুখর ছিলেন টাইগার সমর্থকরা। ৮ ম্যাচে বোলিং করে মাত্র ১ উইকেট, তার নামের সঙ্গে একেবারেই বেমানান। অপরদিকে ব্যাট আর বল হাতে পুরো আসরের সবচেয়ে উজ্জ্বল পারফর্মার ছিলেন সাকিব। মাশরাফির ক্ষেত্রে ঘটনা পুরো উল্টো। প্রায়ই তিনি নিজের বোলিং কোটা পূরণ করতে পারেননি। 

তবে মাশরাফির ফর্ম যেমনই থাকুক না কেন, তার লড়াকু মানসিকতার প্রশংসা করলেন নাজমুল হাসান।। বুধবার (১০ জুলাই) লন্ডনে সংবাদ মাধ্যমকে তিনি বলেন, “মাশরাফি খেলোয়াড় হিসেবে দলে আসেনি। কিন্তু আপনি যদি অধিনায়ক নিয়ে বলেন, তাহলে আমরা তার মতো দলনেতা খুঁজে পাইনি। আমি এটা সবসময়ই বলি, খেলোয়াড় হিসেবে সাকিব আর অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির কোনো বিকল্প নেই।”

তিনি বলেন, “সাকিব ও মাশরাফি ছাড়া বাকি সবার বিকল্প আছে। সে (মাশরাফি) বিশ্বকাপে ভালো করেনি কিন্তু সে যে খুব একটা ভালো করবে না আর এটা অস্বাভাবিক কিছু নয়, তা আমরা জানতাম। এমন (ইংলিশ) কন্ডিশনে তার করা নিয়ে আমরা খুব বেশি আশা করিনি। সে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল থেকে ইনজুরি বয়ে বেড়াচ্ছে।” 

“কিন্তু সে লড়াকু। তাকে এক বা দু’বার বিশ্রামে রাখার কথাও আলোচনা করা হয়েছিল। সেও এমনটাই ভেবেছিল। কিন্তু এরপর সে ভাবলো, “আমি সারা জীবন এই দেশের জন্য লড়েছি এবং এখন আমি শেষ দুই ম্যাচের জন্য নামবো। আমি ইনজুরি নিয়ে খেলে অভ্যস্ত।’ আমরা সবার কাছ থেকেই এমন মানসিকতা আশা করি।” 

পুরো আসরেই মাশরাফির অবসর ভাবনা নিয়ে আলোচনা ছিল তুঙ্গে। প্রথম পর্ব শেষে বিদায় নেওয়ার পর সেই আলোচনা আরও বেগবান হয়। তবে এটাই নিজের ‘শেষ বিশ্বকাপ’ ঘোষণা দিলেও এখনই অবসর নেওয়ার কোনো ইচ্ছে নেই বলেই জানান মাশরাফি। তবে বিসিবি চাইলে সেটা অন্য কথা। 

এদিকে মাশরাফির বিদায় নিয়ে প্রশ্ন করলে বিসিবি প্রধান বলেন, “আমরা চেষ্টা করবো সেটা (বিদায়) যতো ভালোভাবে করা যায়। সবচেয়ে ভালো হয় যদি আমরা এটা নিজেদের মাটিতে করতে পারি। আমরা নিজেদের দেশে এটা (বিদায়ী ম্যাচ) ভালোভাবে করতে চাই।”

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৩ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০১৯
এমএইচএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-11 17:24:01