bangla news

কোহলি-ধোনির ফিফটিতে ২৬৮ রানের সংগ্রহ পেল ভারত

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-২৭ ৭:৩৮:০০ পিএম
কোহলি-ধোনির ব্যাটে মাঝারি সংগ্রহ পেয়েছে ভারত-ছবি: সংগৃহীত

কোহলি-ধোনির ব্যাটে মাঝারি সংগ্রহ পেয়েছে ভারত-ছবি: সংগৃহীত

কেমার রোচের বোলিং তোপে ভারতের শুরুটা হয় নড়বড়ে। একাই ভারতীয় টপ অর্ডারের ৩ ব্যাটসম্যানকে বিদায় করেন এই ক্যারিবীয় পেসার। তবে সেই ধাক্কা সামলে বিরাট কোহলি ও মহেন্দ্র সিং ধোনির ফিফটির ইনিংসে ভর করে শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেট হারিয়ে উইন্ডিজের সামনে ২৬৯ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দিয়েছে ভারত।

ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) টসে জিতে ব্যাটিং বেছে নেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। 

ব্যাটিং করতে নেমে ভারতের শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি। দলীয় ২৯ রানেই ওপেনার রোহিত শর্মা বিদায় নেন। যদিও শুরুতে আম্পায়ার আউট দেননি। পরে উইন্ডিজ রিভিও নিলে থার্ড আম্পায়ার আউটের সিদ্ধান্ত জানান। বিশ্বকাপে ক্যারিবীয় পেসার কেমার রোচের প্রথম উইকেট এটি। রোচের বলে উইকেটরক্ষক শাই হোপের হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে রোহিতের ব্যাট থেকে এসেছে ১৮ রান।

রোহিতের বিদায়ের পর রাহুল ও কোহলির জুটিতে আসে ৬৯ রান। এরপর বিজয় শঙ্কর ও কেদার যাদবকেও হোপের হাতে ক্যাচ দিতে বাধ্য করেন রোচ। যদিও যাদবকে শুরুতে আউট দেননি অল-ফিল্ড আম্পায়ার। পরে রিভিও নেয় উইন্ডিজ আর তাতেই বিদায় নিতে হয় যাদবকে। এর মাঝে ৫৫ বলে ৬ বাউন্ডারিতে ফিফটি করেন কোহলি। এটি কোহলির চলতি বিশ্বকাপে নিজের চতুর্থ ও সবমিলিয়ে ৫৩তম ওয়ানডে ফিফটি।

ধোনি ও কোহলি মিলে ইনিংসের ঘাটতি মেরামত করার চেষ্টা করেন। দুজনের জুটিতে আসে ৪০ রান। তবে ধোনি ছিলেন অতি সাবধানী। এদিকে সেঞ্চুরির পথে এগিয়ে যেতে থাকা কোহলি হোল্ডারের নিরীহদর্শন বাউন্সারে ক্যাচ তুলে দিলে ফের বিপাকে পড়ে যায় ভারত। আউট হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ৮২ বলে ৮ বাউন্ডারিতে সাজানো ৭২ রানের ইনিংস।

কোহলির বিদায়ের পর হার্দিক পান্ডিয়ার সঙ্গে ৭০ রানের জুটি গড়েন ধোনি। পান্ডিয়া ৩৮ বলে ৪৬ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে শেলডন কোটরেলের বলে তুলে মারতে গিয়ে ফ্যাবিয়েন অ্যালেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন। পান্ডিয়ার বিদায়ের পর ধোনির ব্যাটে রানের ফোয়ারা ছুটে। শেষ ১৬ রান তুলতে তিনি খরচ করেন মাত্র ৬ বল। শেষ পর্যন্ত ৬১ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় ৫৬ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন ধোনি। এটি ধোনির ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৭২তম ফিফটি।

বল হাতে ১০ ওভারে ৩৬ রান খরচে ৩ উইকেট পেয়েছেন কেমার রোচ। ২টি করে উইকেট ঝুলিতে পুরেছেন কোটরেল ও হোল্ডার।

এই ম্যাচে ব্যক্তিগত ৩৭ রানের মাথায় একটি বিশ্বরেকর্ড গড়েন কোহলি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সবচেয়ে দ্রুততম সময়ে ২০ হাজার রানের মাইলফলক গড়েছেন তিনি। এই মাইলফলক ছুঁতে কোহলি খেলেছেন ৪১৭টি ইনিংস। করেছেন ৬৬টি সেঞ্চুরি।

কোহলির আগে ২০ হাজার রানের মাইলফলক ছুঁয়েছেন ১১ জন ব্যাটসম্যান। ভারতীয়দের মধ্যে এই রেকর্ড গড়েছেন কেবল দু’জন। শচীন টেন্ডুলকার (৩৪,৩৫৭ রান) এবং রাহুল দ্রাবিড় (২৪,২০৮ রান)।

কোহলির আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দ্রুততম সময়ে ২০ হাজার রানের মাইলফলক গড়েন শচীন টেন্ডুলকার ও ব্রায়ান লারা। এই দুই ক্রিকেট কিংবদন্তির লেগেছে সমান ৪৫৩ ইনিংস। তিন নম্বরে ছিলেন রিকি পন্টিং। সাবেক অজি অধিনায়ক ৪৬৮ ইনিংসে এই রান করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৭ ঘণ্টা, জুন ২৭, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-06-27 19:38:00