ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৮ জুলাই ২০১৯
bangla news

বাবরের সেঞ্চুরিতে জয়ের পথে পাকিস্তান

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-২৭ ১২:১৫:১৭ এএম
পাকিস্তান বনাম নিউজিল্যান্ডের ম্যাচের একটি দৃশ্য: ছবি-সংগৃহীত

পাকিস্তান বনাম নিউজিল্যান্ডের ম্যাচের একটি দৃশ্য: ছবি-সংগৃহীত

নিউজিল্যান্ডের দেওয়া ২৩৮ রানের জবাবে জয়ের পথে ছুটছে পাকিস্তান। ২০১৯ বিশ্বকাপে প্রথম সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন বাবর আজম।

এই রিপোর্ট লেখা পযর্ন্ত ৪৭.৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৩১ রান সংগ্রহ করেছে সরফরাজ আহমেদের দল। জয়ের জন্য তাদের দরকার আর ৭ রান। ব্যাটিংয়ে আছেন বাবর (১০০) এবং হারিস সোহেল (৬৫)। 

অবশ্য রান তাড়া করতে নেমে শুরুতে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে পাকিস্তান। স্কোরবোর্ডে ১৯ রান তুলতে ওপেনার ফখর জামানকে (৯) সাজঘরে ফেরান ট্রেন্ট বোল্ট। দলীয় ৪৪ রানে আরেক ওপেনার ইমাম-উল-হককে (১৯) তুলে নেন লকি ফার্গুসন

এরপর মোহাম্মদ হাফিজকে (৩২) নিয়ে ৬৬ রানের জুটি গড়েন বাবর। দলীয় ১১০ রানে এই জুটি ভাঙেন কেন উইলিয়ামসন। হাফিজ ফিরলেও বাবর তুলে নিয়েছেন সেঞ্চুরি। ‘ব্যাক টু ব্যাক’ ফিফটি পেয়েছেন হারিস সোহেলও।

এর আগে পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে দুর্দান্ত খেললেও পাকিস্তানের পেস আক্রমণের সামনে শুরুতে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে কিউইরা। স্কোরবোর্ডে ৮৩ রান যোগ হতেই টপ অর্ডারের পাঁচ ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফেরে তাদের। 

প্রথম ধাক্কাটা দেন মোহাম্মদ আমির। ব্ল্যাক ক্যাপসদের দলীয় ৫ রানের মাথায় মার্টিন গাপটিলের (৫) স্ট্যাম্প ভেঙে দেন এই পাক-পেসার। সেই ধাক্কা সামলানোর আগেই শাহীন আফ্রিদি তুলে নেন আরেক ওপেনার কলিন মুনরোকে (১২)। 

চাপের মুখে গত দুই ম্যাচের মতো এবারও স্তম্ভ হয়ে ওঠার চেষ্টা করেন কেন উইলিয়ামসন। কিউই অধিনায়ক দাঁতে দাঁত ঘেঁষে চেষ্টা করেন দলকে খাদ থেকে টেনে তুলতে। তিনি এক প্রান্ত আগলে রাখলেও দ্রুত ফিরে যান দুই সতীর্থ রস টেইলর (৩) এবং টম লাথাম (১)। দু’জনকেই উইকেটরক্ষক সরফরাজ আহমেদের হাতে ক্যাচ বানান শাহীন। 

গত দুই ম্যাচে ‘ব্যাক টু ব্যাক’ সেঞ্চুরি করলেও এবার সফল হননি উইলিয়ামসন। জিমি নিশামের সঙ্গে চেষ্টা করেন বড় জুটি গড়তে। কিন্তু শাদাব খানের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে বসেন উইলিয়ামসন (৪১)।

এমন বিপর্যয়ের মুখে কলিন ডি গ্রান্ডহোমকে নিয়ে অনবদ্য এক ইনিংস খেলেন নিশাম। দু’জনে মিলে গড়েন ১৩২ রানের জুটি। দলীয় ২১৫ রানের মাথায় রান আউটের শিকার হয়ে ফেরেন ডি গ্রান্ডহোম। তার ৭১ বলে ৬৪ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৬ চার ও ১ ছক্কায়। 

গ্রান্ডহোম ফিরলেও ইনিংসের শেষ বল পযর্ন্ত থেকে লড়াই চালিয়ে যান নিশাম। শেষ বলে ওহাব রিয়াজকে ছক্কা মেরে দলের স্কোর করেন ২৩৭ রান। নিশাম ১১২ বল খেলে অপরাজিত ছিলেন ৯৭ রানে। তার ইনিংসটি সাজানো ছিল ৫ চার ৩ ছক্কায়। নিশামকে সঙ্গ দেওয়া মিচেল স্যান্টনার অপরাজিত ছিলেন ৫ রানে। 

পাকিস্তানের বিপক্ষে জিতলে ২০১৯ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল নিশ্চিত নিউজিল্যান্ডের। অন্যদিকে শেষ চারের আশা বাঁচিয়ে রাখতে হলে কিউইদের বিপক্ষে জয় ছাড়া বিকল্প নেই সরফরাজদের সামনে। সেই লক্ষ্যে বুধবার (২৬ জুন) বিশ্বকাপের ৩৩তম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে দু’দল। 

বার্মিহামের এজবাস্টনে ম্যাচটি শুরু হওয়ার কথা বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায়। কিন্তু বৃষ্টির কবলে পড়ে টস হয় এক ঘন্টা পর। টসে জিতে পাকিস্তানকে ফিল্ডিংয়ে পাঠায় নিউজিল্যান্ড।

বাংলাদেশ সময়: ০০ ঘণ্টা, জুন ২৭, ২০১৯ 
ইউবি 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-27 00:15:17