ঢাকা, বুধবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৪ জিলহজ ১৪৪১

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

অথচ আমিরকে বিশ্বকাপেই নিতে চায়নি পাকিস্তান

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-১২ ১১:৩১:৫৪ পিএম
অথচ আমিরকে বিশ্বকাপেই নিতে চায়নি পাকিস্তান বিধ্বংসী আমির-ছবি:সংগৃহীত

অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের বিপক্ষে ১০ ওভারে মাত্র ৩০ রান দিলেন। আছে দুটি মেডেন। ব্যাপারটি এটিও নয়, বিশ্বকাপে এদিন যে ক্যারিয়ার সেরা বোলিং-ই করলেন মোহাম্মদ আমির। তুলে নিলেন ৫ উইকেট। অথচ এই আমিরকে এবারের বিশ্বকাপ আসরে প্রথমে দলেই নিতে চায়নি পাকিস্তান।

টনটনে নিজেদের চুতর্থ ম্যাচ খেলতে নামে অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান। যেখানে প্রথমে ব্যাট করা অজিরা পাকিস্তান বোলারদের পিটিয়ে ২২.১ ওভারেই কোনো উইকেট হারিয়ে ১৪৬ রান তুলে ফেলে।

কিন্তু ক্যাঙ্গারুদের লাগাম টানার কাজ শুরু করেন আমিরই। ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চকে নিজের প্রথম শিকার বানান।

অন্য বোলারদের মতো রান দেওয়ার মিছিলে গা না ভাসিয়ে করেন এক একটি দুর্দান্ত ওভার। তার বিধ্বংসী বোলিংয়েই মূলত সাড়ে তিনশ’ ছাড়িয়ে যাওয়ার প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি অজিরা। এক ওভার বাকি থাকতে ৩০৭ রানে অলআউট হয় পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

এদিন আমিরের শিকারে ফিঞ্চ ছাড়াও ছিলেন শন মার্শ, উসমান খাজা, অ্যালেক্স ক্যারি ও মিচেল স্টার্ক। আমিরের ওয়ানডেতে আগের ক্যারিয়ার সেরা বল ছিল ২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২৮ রানে ৪ উইকেট।

২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফির পর নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে পারেননি আমির। একের পর এক বাজে ইনিংস উপহার দিয়েছেন। তাইতো বিশ্বকাপে তাকে দলে নিতে চায়নি পাকিস্তান নির্বাচকরা। তবে ইংল্যান্ড কন্ডিশন বলেই সাবেকদের তৎপরতায় সুযোগ পান। আর দলে ফিরে নিজেকে প্রমাণ করতে বেশি সময়ও নেননি। এখন পর্যন্ত আসরে তিন ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে সেরা বোলারদের তালিকায় সবার ওপরে উঠেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৮ ঘণ্টা, জুন ১২, ২০১৯
এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa