ঢাকা, শনিবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

‘১৯৯৯’ প্রথম বিশ্বকাপেই বাংলাদেশের চমক

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৬ ৯:৩৪:০৩ পিএম
‘১৯৯৯’ প্রথম বিশ্বকাপেই বাংলাদেশের চমক

‘১৯৯৯’ প্রথম বিশ্বকাপেই বাংলাদেশের চমক

৩০ মে পর্দা উঠবে ক্রিকেট বিশ্বের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ লড়াই বিশ্বকাপের ১২তম আসরের। সে উপলক্ষ্যে গত আসরগুলোর সংক্ষিপ্ত পরিচিতি তুলে ধরা হচ্ছে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস বিশ্বকাপের মূল লড়াইয়ের আগে। এবারের আয়োজনে থাকছে ১৯৯৯ বিশ্বকাপ।

ভূমিকাপর্ব: ১৯৯৯ বিশ্বকাপ স্মরণীয় হয়ে থাকবে বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য। প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের মূল মঞ্চে অংশগ্রহণ করে টাইগাররা। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের পাশাপাশি পাকিস্থানের মতো পরাশক্তিকে হারিয়ে অবিস্মরণীয় রূপকথা লিখে নান্নু-সুজনরা। টাইগারদের কাছে নাস্তানাবুদ হলেও ফাইনালে উঠে পাকিস্তান। তবে দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপা উৎসব করে অস্ট্রেলিয়া।

আয়োজক: টানা তিন বিশ্বকাপ (১৯৭৫, ১৯৭৯ ও ১৯৮৩) আয়োজনের পর চতুর্থবারের মতো পুনরায় দায়িত্ব কাঁধে নেয় ইংল্যান্ড। তবে ’৯৯ বিশ্বকাপের মূল আয়োজক ছিল গ্রেট ব্রিটেন। ইংল্যান্ডের পাশপাশি ব্রিটিশ অর্ন্তভুক্ত দেশ স্কটল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, ওয়েলস এছাড়া নেদারল্যান্ডসও আয়োজক হয় এবার।

অংশগ্রহণকারী দেশ: গত আসরের মতো ’৯৯ বিশ্বকাপেও আইসিসির পূর্ণাঙ্গ ৯ সদস্য সরাসরি জায়গা পায় মূল মঞ্চে। সহযোগী-সদস্য হিসেবে যুক্ত হয় কেনিয়া ও নবাগত দুই দল স্কটল্যান্ড এবং বাংলাদেশ। ১৯৯৭ আইসিসি ট্রফিতে কেনিয়ার বিপক্ষে ঐতিহাসিক জয়ে বিশ্বকাপের টিকেট কাটে টাইগাররা।দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপা উৎসব করে অস্ট্রেলিয়াভেন্যু: আসরের সর্বমোট ৪২ ম্যাচের ৩৮ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় ইংল্যান্ডের ১৭টি ভেন্যুতে। বাকি সহযোগী চার দেশ একটি করে ম্যাচ আয়োজন করে।

গ্রুপ পর্ব: গত আসরের মতো ’৯৯ বিশ্বকাপেও ১২ দলকে ভাগ করা হয় দুই গ্রুপে। ‘এ’ গ্রুপে ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা, ভারত, জিম্বাবুয়ে, ইংল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা ও কেনিয়া। ‘বি’ গ্রুপে বাংলাদেশর সঙ্গী পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও স্কটল্যান্ড।

মূল লড়াই শুরু: ১৪ মে উদ্বোধনী ম্যাচে ১৯৯৬ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে মিশন শুরু করে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। তবে দুই দলের কেউ সুপার সিক্সে জায়গা পায়নি। সেরা চারে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালের টিকেট কাটে পাকিস্থান। আর নাটকীয় ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো ফাইনালে উঠে অস্ট্রেলিয়া।

’৯৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ: বাংলাদেশ বিশ্বকাপের অভিষেক ম্যাচে মুখোমুখি হয় নিউজিল্যান্ডের। কিন্তু অভিজ্ঞ কিউইদের বিপক্ষে কোনোরকম প্রতিরোধ গড়তে পারেনি টাইগাররা। তবে ঐতিহাসিক জয় পেতে কোন অসুবিধা হয়নি। স্বাগতিক স্কটল্যান্ডকে তাদেরই মাটিতে হারিয়ে বিশ্বকাপের জয়ের খাতা খুলে বাংলাদেশ এবং নিজেদের শেষ ম্যাচে পাকিস্তানকে হারায় ৬২ রানে। অবশ্য দুই জয়ে চার পয়েন্ট পেলেও সোনালি স্বপ্ন নিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকে ফিরে আসে টাইগাররা।

শিরোপা উৎসব: ২০ জুন লডর্সের ফাইনালে পাকিস্তানকে নাস্তানাবুদ করে বিশ্ব ক্রিকেটে নিজেদের স্থায়ী রাজত্ব কায়েম করে অজিরা। পরের দুই বিশ্বকাপ জিতে হ্যাটট্রিক শিরোপার রেকর্ডও গড়ে অস্ট্রেলিয়া।

টুকিটাকি: ১৯৯৯ বিশ্বকাপ প্রথমবারের মতো পরিচয় করিয়ে দেয় সাদা ‘ডিউক’ বলের সঙ্গে। অবশ্য বলটি নিয়ে প্রচুর বিতর্কও হয়।

রেকর্ড কর্নার: বিশ্বকাপে দ্বিতীয় বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিক করেন সাকলাইন মুস্তাক। সুপার সিক্সে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে রেকর্ডটি গড়েন এই পাকিস্তানি স্পিন জাদুকর। এর আগে বিশ্বকাপে প্রথম হ্যাটট্রিক করেন ভারতের চেতন শর্মা।

পরিসংখ্যান: দলকে ফাইনালে তুলতে না পারলেও ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট হন দক্ষিণ আফ্রিকার ল্যান্স ক্লুসনার। আসর জুড়ে সর্বোচ্চ ৪৬১ রান সংগ্রহ করেন ভারতের রাহুল দ্রাবিড়। নিউজিল্যন্ডের জিওফ অ্যালট নেন সর্বোচ্চ ২০ উইকেট। সমান উইকেট নেন অস্টেলিয়ার শেন ওয়ার্নও।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৩০ ঘন্টা, মে ২৬, ২০১৯
ইউবি/এমএমএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-05-26 21:34:03