ঢাকা, সোমবার, ৪ আষাঢ় ১৪২৬, ১৭ জুন ২০১৯
bangla news

বিশ্বকাপ কাঁপাতে পারেন যে দশ ব্যাটসম্যান

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৩ ৭:৩১:০৪ পিএম
কোহলি, তামিম ও ওয়ার্নার-ছবি: সংগৃহীত

কোহলি, তামিম ও ওয়ার্নার-ছবি: সংগৃহীত

৩০ মে শুরু হচ্ছে ক্রিকেটের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ লড়াই তথা ক্রিকেট বিশ্বকাপ। অংশগ্রহণকারী ১০ দল এরইমধ্যে নিজেদের শেষ প্রস্তুতি সেরে নিচ্ছে। এবারের সবচেয়ে বড় চমক গ্রুপ পর্ব না থাকা। এবার শেষ চার তথা সেমিফাইনাল নিশ্চিতের লড়াইয়ে ১০ দলের প্রত্যেকে একে অন্যের মোকাবিলা করবে। 

এবারের বিশ্বকাপে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন ব্যাটসম্যানরা। কেননা চিরচেনা বাউন্সি উইকেট বানানো থেকে কিছুটা পিছিয়ে এসেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। কয়েক বছর থেকেই তারা ফ্ল্যাট উইকেট বানিয়ে আসছে। ফলে পেসারদের দাপটের বদলে ইংলিশ পিচে এখন ব্যাটসম্যানদের জয়জয়কার। স্বাভাবিকভাবেই ব্যাটসম্যানরাই নিয়ামকের ভূমিকায় থাকবেন। এখানে সেরা ১০ জন ব্যাটসম্যানকে নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে যারা আসন্ন বিশ্বকাপে তাদের পারফরম্যান্স দিয়ে নজর কাড়তে পারেন।

#১০ মোহাম্মদ শাহজাদ- আফগানিস্তান
ইনিংসের শুরুতেই ব্যাত হাতে ঝড় তুলতে সক্ষম মোহাম্মদ শাহজাদ অবশ্যই আফগান ব্যাটিংয়ের সবচেয়ে বড় স্তম্ভ। বিশেষ করে পাওয়ার প্লেতে দলকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেওয়ার সামর্থ্য আছে এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যানের। সর্বশেষ আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে দলকে সিরিজে সমতায় ফেরানোয় ভূমিকা রাখা শাহজাদের নামের পাশে আছে ৬টি ওয়ানডে সেঞ্চুরি ও ১৪টি ফিফটি। ওয়ানডে ব্যাটিং স্ট্রাইক রেট ৮৮.৬৮ আসলে তার সামর্থ্যের পুরোটা তুলে ধরতে অক্ষম। তিনি আসলে এর চেয়েও বেশি বিধ্বংসী।

#৯ বাবর আজম- পাকিস্তান
বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম ধারাবাহিক ব্যাটসম্যান বলা হয় পাকিস্তানের ওপেনার বাবর আজমকে। ইংলিশদের বিপক্ষে সর্বশেষ সিরিজে দলের ভরাডুবি হলেও ব্যাট হাতে দুর্দান্ত সময় কাটিয়েছেন তিনি। পুরো সিরিজে তিনি ৫৫.৪০ গড়ে রান করেছেন ২৭৭। আসন্ন বিশ্বকাপেও পাকিস্তানের মূল ব্যাটিং স্তম্ভ হিসেবে দেখা যাবে ৫১.৬৭ গড় আর ৮৫.৯৬ স্ট্রাইক রেটের মালিক এই ব্যাটসম্যানকে। নামের পাশে মাত্র ৬৪ ম্যাচেই তিনি যোগ করে ফেলেছেন ৯টি সেঞ্চুরি ও ১২টি ফিফটি।

#৮ তামিম ইকবাল- বাংলাদেশ
ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক যত সাফল্য তার পেছনে ব্যাট হাতে বড় ভূমিকা রেখেছেন তামিম ইকবাল। বিশাল অভিজ্ঞতা আর ধারাবাহিকতাই তার সবচেয়ে বড় যোগ্যতা। সর্বশেষ ত্রিদেশীয় সিরিজেও তার ব্যাটে ধারাবাহিকতা দেখা গেছে। 

একবার সেট হয়ে গেলে তার ব্যাটে স্ট্রোকের ফুলঝুরি ছুটতে দেখা যায়। ১৯৩ ওয়ানডেতে ৬ হাজার ৬৩৬ রানের মালিক তামিমের নামের পাশে আছে ১১টি সেঞ্চুরি ও ৪৬টি ফিফটি। স্ট্রাইক রেট ৭৮.১১ আর গড় ৩৬.২৬ আসলে তার সামর্থ্যের আসল প্রতিবিম্ব নয়। তিনি এর চেয়েও বেশি কিছু। 

বিশ্বকাপেও দলের প্রধান ব্যাটিং স্তম্ভ এই দেশসেরা ওপেনার। দলে সৌম্য সরকার কিংবা লিটন দাসের মতো তরুণ প্রতিভার ভিড়েও রানের তোলার মূল দায়িত্বটা তার কাঁধেই বর্তাবে।

#৭ ক্রিস গেইল- ওয়েস্ট ইন্ডিজ
ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগারের দেখা পাওয়া প্রথম ক্রিকেটার ক্রিস গেইলকে নিয়ে আসলে অনুমান করার কোনো সুযোগ নেই বললেই চলে। যার ডাক নাম হয়ে গেছে “ইউনিভার্সাল বস”, তার অন্য কোনো বিশেষণের প্রয়োজন নেই। চার-ছক্কার বন্যা বইয়ে দিয়ে একাই ম্যাচের ফল পাল্টে দেওয়ার অসাধারণ ক্ষমতা আছে বিশ্বের সবচেয়ে বিধ্বংসী এই ব্যাটসম্যানের। ক্যারিবীয়দের জন্য এবার তার সেরা সার্ভিস পাওয়ার শেষ সুযোগ। 

#৬ জস বাটলার- ইংল্যান্ড
বর্তমান সময়ের সেরা হার্ড-হিটিং ব্যাটসম্যান কাম উইকেটরক্ষক জস বাটলার এবার স্বাগতিক ইংল্যান্ডের সবচেয়ে বড় ব্যাটিং ভরসা। তাকে বলা হয় সবচেয়ে পূর্ণাঙ্গ ব্যাটসম্যান। তার ধারাবাহিকতা তাক লাগিয়ে দেওয়ার মতো। আর যেকোনো পজিশনে ব্যাট করার সামর্থ্য আছে ওয়ানডেতে ৪১.৫৪ গড়ে প্রায় ৩ হাজার রানের মালিক বাটলারের। তবে তার স্ট্রাইক রেটই (১১৯.৫৭) প্রতিপক্ষের বোলারদের ঘুম কেড়ে নিতে যথেষ্ট।

#৫ কেন উইলিয়ামসন- নিউজিল্যান্ড
একজন অসাধারণ ব্যাটসম্যান এবং সহজাত নেতা, কেন উইলিয়ামসনকে বলা হয়ে বর্তমান যুগের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান। নন-এশিয়ান হয়েও এ অঞ্চলের সেরা স্পিনারদের সামলানোর দারুণ ক্ষমতা তাকে নিয়ে গেছে অনন্য উচ্চতায়। আর ধারাবাহিকতা তো আছেই। ওয়ানডেতে তার ব্যাটিং গড় ৪৫.৯০, স্ট্রাইক রেট ৮২.৯১। ওয়ানডেতে ১১টি সেঞ্চুরি ও ৩৭টি ফিফটির মালিক কিউই অধিনায়কের ব্যাটের দিকেই তাকিয়ে থাকেব পুরো নিউজিল্যান্ড।

#৪ কুইন্টন ডি কক- দক্ষিণ আফ্রিকা
দলের মূল তারকা এবি ডি ভিলিয়ার্সের আকস্মিক অবসর ঘোষণায় চাপে পড়ে যাওয়া প্রোটিয়া ব্যাটিং লাইনআপকে ফের আগের মতো বিধ্বংসী রূপে ফিরিয়ে আনার পেছনে বড় ভূমিকা রেখেছেন কুইন্টন ডি কক। শুধু ব্যাটসম্যান হিসেবেই নয় গ্লাভস হাতে উইকেটরক্ষকের ভুমিকাতেও তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দক্ষিণ আফ্রিকার বিশ্বকাপ স্বপ্ন বাঁচাতে বড় জরুরী। মাত্র ১০৬ ম্যাচের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে তার রান ৪ হাজার ৬০২, গড় ৪৫.৫৬, স্ট্রাইক রেট ৯৫.৮১। নামের পাশে এরইমধ্যে যোগ করেছেন ১৪টি ওয়ানডে সেঞ্চুরি আর ফিফটি আছে ২১টি।

#৩ স্টিভেন স্মিথ- অস্ট্রেলিয়া
বিশ্বকাপ এলেই অস্ট্রেলিয়া কীভাবে যেন নিজেদের সেরা ফর্মে ফিরে আসে। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। কিছুদিন আগেই যাদের হিসেবের মধ্যেই ধরা হচ্ছিল না, তারাই এখন অন্যতম ফেভারিট। কারণ নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফিরে এসেছেন দুই অজি ব্যাটিং জিনিয়াস স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। স্মিথের ভূমিকা তো শুধু ব্যাট হাতেই নয়, দলের মূল নেতা তো আসলে তিনিই। আর ব্যাট হাতে ওয়ানডেতে তার ৪১.৮৪ গড় আর ৮৬.৩৫ স্ট্রাইক রেটের কথা তো বলার অপেক্ষা রাখে না যে অজিদের বিশ্বকাপ স্বপ্ন অনেকটাই তার উপর নির্ভর করছে।

#২ ডেভিড ওয়ার্নার-অস্ট্রেলিয়া
শুধু ওয়ানডেই নয়, সব ফরম্যাটেই বিশ্বের অন্যতম সেরা ওপেনার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন অজি ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফিরলেও তার ব্যাটের ধার যে এতটুকু কমেনি তা নিশ্চয়ই বলার অপেক্ষা রাখে না। প্রতিপক্ষের বোলিং আক্রমণ বিধ্বস্ত করে দেওয়ার সামর্থ্য আছে তার। ২০১৫ সালে বিশ্বকাপ জয়ী অস্ট্রেলিয়া দলের অন্যতম প্রধান পারফর্মার ছিলেন এই বাঁহাতি ওপেনার। এরপর নামের পাশে আরও ১৪টি ওয়ানডে সেঞ্চুরি যোগ করে নিজের ধারাবাহিকতার প্রমাণ ভালোভাবেই রেখেছেন তিনি।

#১ বিরাট কোহলি-ভারত
তালিকার শিরোনাম দেখেই হয়ত অনেকে বুঝে নিয়েছিলেন শীর্ষ স্থানে কার নাম থাকতে পারে। অবশ্যই এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই যে বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। যেদিন থেকে দলে ঢুকেছেন সেদিন থেকেই নিজের গুরুত্ব বুঝিয়ে দিয়েছেন, এখন সেই অবস্থান আরও সুসংহত। যদিও তার অধিনায়কত্ব নিয়ে কিছু সমস্যা আছে, তবু নিজের দিনে একাই ম্যাচের ফল পাল্টে দিতে সক্ষম এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। এরইমধ্যে ওয়ানডেতে প্রায় ১১ হাজার রানের মালিক কোহলির গড় রান ৫৯.৫৮, স্ট্রাইক রেট প্রায় ৯৩। নামের পাশে আছে ৪১টি সেঞ্চুরি আর ৪৯টি ফিফটি। নিঃসন্দেহে ভারতের বিশ্বকাপ স্বপ্নে সবচেয়ে বড় ভরসা কোহলি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩০ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০১৯
এমএইচএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-23 19:31:04