[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৩ আষাঢ় ১৪২৫, ১৭ জুন ২০১৮

bangla news

ত্রিপুরায় আটার পর এবার আতঙ্ক ছাড়াচ্ছে প্লাস্টিকের চাল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৬-১০ ৫:৪৪:৫১ পিএম
প্লাস্টিক চালের বল। ছবি: বাংলানিউজ

প্লাস্টিক চালের বল। ছবি: বাংলানিউজ

আগরতলা (ত্রিপুরা): ডিম, আটা ও দুধের পর এবার ত্রিপুরায় আতঙ্কে ছড়াচ্ছে প্লাস্টিকের চাল। প্লাস্টিক চাল সরবরাহ করায় সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

রোববার (১০ জুন) আগরতলার কৃষ্ণনগর এলাকার নতুন পল্লির বাসিন্দা তুষার দেববর্মার বাড়িতে মিলেছে প্লাস্টিকের চাল।

তুষার দেববর্মা বাংলানিউজকে জানান, শনিবার (৯ জুন) তিনি আগরতলার একটি দোকান থেকে ২৫ কেজি ওজনের প্যাকেটের চাল কিনে এনেছেন। এদিন তার স্ত্রী চাল দিয়ে ভাত রান্না করেন। রান্নার পর প্রেসার কুকার খুলতে গেলে দেখা যায় কুকারের ঢাকনার চারপাশে রবারের ফিতার মতো একটি আস্তরণ লেগে আছে। ওই আস্তরণ উঠাতে গেলে লম্বা হয়ে যাচ্ছে। ভাতও রবারের মতো নরম। ভাত দিয়ে বল তৈরি করে ঘরের মেঝেতে ছুড়লে পিংপং বলের মতো লাফাচ্ছে।প্লাস্টিক চালের বল। ছবি: বাংলানিউজতিনি আরও জানান, তাদের নিজের জমির রান্না করা ভাত বলের মতো করার চেষ্টা করলে বাজার থেকে কেনা চালের ভাতের মতো সুন্দর বল হচ্ছে না। ঘরের মেঝেতে ছুড়লে ভাতের বলটি ভেঙে যাচ্ছে। বাজার থেকে কেনা চাল দিয়ে রান্না করা ভাতের বলটি একাধিক বার মেঝেতে ছুড়লেও ভেঙে যাচ্ছে না। বাজার থেকে কেনা চাল দেখে বোঝা যাচ্ছে না চাল তৈরিতে অন্য কোনো পদার্থ মিশ্রিত আছে কিনা?

এদিকে প্যাকেটজাত করা চালও প্যাকেটের গায়ে বিপণনকারী সংস্থার নাম, ঠিকানা ও ফোন নম্বর তার কোনো উল্লেখ নেই। এসবের কারণে তুষার দেববর্মার সন্দেহ হচ্ছে বাজার থেকে কেনা চাল প্লাস্টিকের তৈরি অথবা চাষ করা চালের সঙ্গে মেশানো রয়েছে নকল চাল। এ ঘটনা শোনার পর বাজার থেকে চাল কিনতে ক্রেতাদের মধ্যে নতুন করে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৩ ঘণ্টা, জুন ১০, ২০১৮
এসসিএন/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa