[x]
[x]
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৪ মে ২০১৮

bangla news

রিজেন্ট এয়ারওয়েজে ব্যাংকক গেলে হোটেল ফ্রি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-১০ ৮:৩৮:৪১ পিএম
চট্টগ্রামের হোটেল আগ্রাবাদে 'ট্যুর অপারেটর অ্যান্ড মিডিয়া প্রডাক্ট ব্রিফিং' অনুষ্ঠান।ছবি: সোহেল সরওয়ার

চট্টগ্রামের হোটেল আগ্রাবাদে 'ট্যুর অপারেটর অ্যান্ড মিডিয়া প্রডাক্ট ব্রিফিং' অনুষ্ঠান।ছবি: সোহেল সরওয়ার

চট্টগ্রাম: বাংলাদেশ থেকে ব্যাংকক ভ্রমণে বেসরকারি বিমানসংস্থা রিজেন্ট এয়ারওয়েজ টিকেটের সঙ্গে বিনামূল্যে এক রাত হোটেলে রাখার বিশেষ প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। এর জন্য ঢাকা থেকে ব্যাংকক ১৮ হাজার এবং চট্টগ্রাম থেকে ২৩ হাজার ৭৯৬ টাকা ভাড়া নির্ধারণ করেছে সংস্থাটি।

১৪ মে থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত কমপক্ষে দুইজন ভ্রমণ করলে এ সুবিধা পাবেন বাংলাদেশি পর্যটকেরা।

বৃহস্পতিবার (১০ মে) সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের হোটেল আগ্রাবাদে 'ট্যুর অপারেটর অ্যান্ড মিডিয়া প্রডাক্ট ব্রিফিং' অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানান রিজেন্টের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) সালমান হাবিব।

তিনি বলেন, বাংলাদেশি পর্যটকদের জন্য থাইল্যান্ড ভ্রমণ আরও সহজ, সাশ্রয়ী ও আনন্দমুখর করতে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ। রাষ্ট্রীয় সংস্থা ট্যুরিজম অথরিটি অব থাইল্যান্ডের (টিএটি) 'অ্যামাজিং থাইল্যান্ড' কর্মসূচির আওতায় রিজেন্ট বাংলাদেশি পর্যটকদের বেড়ানো ছাড়াও চিকিৎসা পর্যটনে সব সুবিধা দেবে।

ঢাকা থেকে ব্যাংকক ১৮ হাজার এবং চট্টগ্রাম থেকে ২৩ হাজার ৭৯৬ টাকা ভাড়া নির্ধারণ করেছে সংস্থাটি।সালমান হাবিব বলেন, মানুষের ক্রয়ক্ষমতা ও জীবনযাত্রার মান উন্নত হওয়ায় সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশি পর্যটকের সংখ্যা বেড়েছে। কলকাতার পর থাইল্যান্ড হচ্ছে বাংলাদেশি পর্যটকদের প্রধান আকর্ষণ। ২০১৪ সালে রিজেন্ট ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে ব্যাংকক গন্তব্যে ফ্লাইট চালু করে। ক্রমবর্ধমান চাহিদার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ানো হচ্ছে পর্যটকদের সেবার মান এ পরিধি। এ লক্ষ্যে টিএটির সঙ্গে রিজেন্টের যুক্ত হওয়া।

টিএটির পরিচালক ইশরা স্ট্যাপানাশেথ এবং রিজেন্টের প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (সিসিও) হানিফ জাকারিয়া অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন।

বক্তব্য দেন রিজেন্টের পরিচালক (বিক্রয় ও বিপণন) সোহেল মজিদ, মহাব্যবস্থাপক সুব্রত শর্মা, সহকারী মহাব্যবস্থাপক (হলিডেজ) কাজী আহমেদ উল্লাহ এবং টিএটির বিপণন কর্মকর্তা ভাইসালী শর্মা।

ইশরা স্ট্যাপানাশেথ বলেন, বিশ্ব পর্যটনে থাইল্যান্ড হচ্ছে অন্যতম তীর্থস্থান। থাই নাগরিকরা পর্যটকদের নিজঘরের অতিথির মতো সেবা দিয়ে থাকে। বাংলাদেশি পর্যটকদের জন্য থাইল্যান্ড রিজেন্ট এয়ারওয়েজের মাধ্যমে বিশেষ সুবিধা দিচ্ছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে গত বছর ১ লাখ ২৫ হাজার ১৩০ জন পর্যটক থাইল্যান্ড ভ্রমণ করেছেন। প্রবৃদ্ধি প্রায় ২১ শতাংশ। এসব পর্যটকের কাছ থেকে রেভিনিউ এসেছে ৫ হাজার ৭৯৫ মিলিয়ন থাই বাথ।

হানিফ জাকারিয়া বলেন, রিজেন্ট ব্যাংকক ছাড়াও ফুকেট, পাতায়া, ক্রাবি, কোসামুই, কোহ-চ্যাং, চিয়াং মাই, চিয়াং রাইয়ের মতো দর্শনীয় জায়গাগুলো ভ্রমণে সুবিধা দিচ্ছে। রিজেন্ট বাংলাদেশিদের জন্য হালাল খাবারের ব্যবস্থা রেখেছে।

এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমরা টিএটির মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে ব্যাংককে পর্যটক নেওয়ার পাশাপাশি থাইল্যান্ডের পর্যটকদের বাংলাদেশে নিয়ে আসতে চাই। বাংলাদেশে ইকো ট্যুরিজমের ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে।

সোহেল মজিদ বলেন, রিজেন্ট এয়ারওয়েজকে রি-ব্রান্ডিং করা হচ্ছে।

সপ্তাহে চার দিন ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে ব্যাংকক রুটে চলাচল করে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ। চট্টগ্রাম থেকে রিজেন্টই এ রুটে সরাসরি ফ্লাইট চালু রেখেছে। আরামদায়ক বোয়িং ৭৩৭ উড়োজাহাজ চলাচল করে এ রুটে। আগামীতে সপ্তাহে প্রতিদিন চলাচলের পরিকল্পনা রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৮ ঘণ্টা, মে ১০, ২০১৮

এআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa