[x]
[x]
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২১ নভেম্বর ২০১৭

bangla news

ইউএস-বাংলার বহরে যুক্ত হলো তৃতীয় বোয়িং এয়ারক্রাফট

এভিয়াট্যুর ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৩-০২ ১২:৪৩:২৮ পিএম
ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত নতুন বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত নতুন বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট

ঢাকা: ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হয়েছে আরও একটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট। এটি সংস্থাটির তৃতীয় বোয়িং। এছাড়া তাদের বহরে রয়েছে আরও তিনটি ড্যাশ৮-কিউ৪০০।

বুধবার (১ মার্চ) তৃতীয় বোয়িংটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। এর মধ্য দিয়ে এশিয়ার অন্যতম এয়ারলাইন্স হওয়ার দিকে আরও একাধাপ এগোলো ইউএস-বাংলা।

১৬৪ আসন বিশিষ্ট এ বোয়িংটি ইউএস-বাংলার বহরে যুক্ত হওয়ায় দ্রুততম সময়ে আরও বেশি আন্তর্জাতিক গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনা করা সহজ হবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

নতুন যুক্ত হওয়া এ বোয়িংয়ে ৮টি বিজনেস ক্লাস ও ইকোনমি ক্লাসসহ মোট ১৬৪টি আসন রয়েছে।

বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের তৃতীয় বোয়িং রিসিভিং অনুষ্ঠানে কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, যাত্রীদের সেবার মান বাড়াতে করণীয় সব কিছু আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে উপনীত করাই আমাদের লক্ষ্য। অভ্যন্তরীণ এয়ারলাইন্সগুলোর মধ্যে স্বীকৃত সেরা এয়ারলাইন্স ইউএস-বাংলা অদূর ভবিষ্যতে এশিয়ার শ্রেষ্ঠ এয়ারলাইন্সের স্বীকৃতি অর্জনই হবে আমাদের পরবর্তী লক্ষ্য। যা বাংলাদেশের এভিয়েশন শিল্পের সুনাম অর্জনে সহায়ক হবে।

ইউএস-বাংলার এয়ারলাইন্সের অগ্রযাত্রায় যাত্রী , ট্রাভেল এজেন্সি, সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সংস্থা, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়াসহ সবার আন্তরিক সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

এয়ারলাইন্সটি অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুটে প্রতি সপ্তাহে ২শটির বেশি ফ্লাইট পরিচালনা করছে। যাত্রা শুরুর পর আড়াই বছরে প্রায় ২২ হাজার ফ্লাইট পরিচালনা করেছে, যা বাংলাদেশে প্লেন চলাচলের ইতিহাসে একটি রেকর্ড।

বর্তমানে কুয়ালালামপুর, মাস্কাট, কলকাতা ও কাঠমান্ডুসহ অভ্যন্তরীণ রুট ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, সিলেট, যশোর, সৈয়দপুর, রাজশাহী ও বরিশাল রুটে নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা।
‘ফ্লাই ফাস্ট-ফ্লাই সেফ’ স্লোগান নিয়ে যাত্রা শুরু করা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স আন্তর্জাতিক রুট সম্প্রসারণে চলতি বছরের আগস্ট মাসের মধ্যে আরও একটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও একটি ড্যাশ ৮-কিউ৪০০ এয়ারক্রাফট বহরে যুক্ত করবে।

৯ মার্চ থেকে ঢাকা-সিঙ্গাপুর-ঢাকা রুটে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। এছাড়া শিগগিরই ব্যাংকক, দোহা, গুয়াংজুসহ বিভিন্ন রুটে ফ্লাইট পরিচালনার সিদ্ধান্ত রয়েছে সংস্থাটির।

গত দু’বছরে সফলতার স্বীকৃতিস্বরূপ ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ২০১৫ ও ২০১৬ সালে পরপর দু’বছর বাংলাদেশের ডমেস্টিক সেক্টরে ‘বেস্ট এয়ারলাইন অব দ্যা ইয়ার’ হয়েছে।

যাত্রা শুরুর পর থেকে অন-টাইম ফ্লাইট অপারেশন, আন্তর্জাতিক মানের কেবিন সার্ভিস, উন্নতমানের নিজস্ব ক্যাটারিং সার্ভিস প্রভৃতি সেবায় যাত্রীদের কাছে একটি নির্ভরযোগ্য এয়ারলাইন্স হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। সঠিক সময়ে ফ্লাইট পরিচালনার রেকর্ড তাদের শতকরা ৯৮.৭ শতাংশ।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪০ ঘণ্টা, মার্চ ০২, ২০১৭
এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Loading...
Alexa