Alexa
ঢাকা, রবিবার, ৭ ফাল্গুন ১৪২৩, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৭
bangla news
বাঁশের ভেতর চুঙ্গাপিঠা

বাঁশের ভেতর চুঙ্গাপিঠা

ঢলু বাঁশের লম্বা সরু চোঙ্গায় বিন্নি চাল। সঙ্গে দুধ, চিনি, নারকেল, চালের গুঁড়া। নাড়ার আগুনে বাঁশের ভেতর সেদ্ধ হয়ে তৈরি হলো লম্বাটে সাদা পিঠা। চোঙ্গার ভেতরে তৈরি বলে এর নাম চুঙ্গি। বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলে এক সময় শীত মৌসুমে ভাপা, পুলি আর মালপো পিঠার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে উৎসব মাতালেও এই পিঠার এখন দেখা পাওয়াই দুষ্কর।


২০১৭-০২-০৪ ৩:০১:১৮ পিএম
পৌষের রোদে ডালের বড়ি

পৌষের রোদে ডালের বড়ি

সাতক্ষীরা ঘুরে: পৌষের মিঠে রোদে পিঠ পেতে বসে কাজে মগ্ন ক’জন গ্রাম্য নারী। অভ্যস্ত হাতে ডালের বড়া বানিয়ে শুকোতে দিচ্ছেন মাটিও ওপরে পাটিতে পেতে রাখা চাদরে। তাদের সঙ্গে এক দঙ্গল শিশু। বড়দের কাজ প্রায়শই কেঁচে দিচ্ছে ওরা। বড়রা তবু খুশী যে, এই সাত সকালে নিরুদ্দেশ হয়নি দস্যিছেলের দল।  


২০১৭-০১-৩১ ১২:৪৮:৪০ পিএম
গাজী পীরের চম্পাবতী!

গাজী পীরের চম্পাবতী!

সুন্দরবন ও সাতক্ষীরা ঘুরে: বিশাল গাছের ছায়ায় মায়ী চম্পার দরগায় সুনসান নীরবতা। পাশ ঘেঁষে যশোর-সাতক্ষীরা রোডে ছুটে চলা যানবাহনের আওয়াজ ছাড়া আর কোনো ব্যস্ততা নেই দরগার কোথাও। টিনের ছাউনির পাকা দরগাঘরে তালা। পাশেই বালু-ইটের স্তূপ। এক গম্বুজ বিশিষ্ট্য পুরনো ইমারতটা ঠিক কোথায় দাঁড়িয়ে ছিলো বুঝা মুশকিল। তবে ধুলায় গড়াগড়ি খাচ্ছে সেই ইমারতের গম্বুজগুলো।


২০১৭-০১-১৪ ২:৫০:৩৪ পিএম
এ বসন্তেও ফুল ফুটবে ৫৫০ বছরের মাধবীলতায়

এ বসন্তেও ফুল ফুটবে ৫৫০ বছরের মাধবীলতায়

যশোর: ইতিহাস ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ জেলা যশোর। এ জেলাকে আরও ঋদ্ধ করেছে বেনাপোল। আর বেনাপোলের ঐতিহ্যের অন্যতম তীর্থস্থান ‘নামাচার্য ব্রহ্ম হরিদাস ঠাকুর পাটবাড়ি আশ্রম’। আরও ভেঙে বললে, এই পাটবাড়ি আশ্রমের প্রধান আকর্ষণ হরিদাস ঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত ‘সিদ্ধবৃক্ষ মাধবীলতা ও তমালবৃক্ষ’।


২০১৭-০১-১২ ৪:৫০:২৬ পিএম
মানিক পীরের প্রাচীন দরগায়  

মানিক পীরের প্রাচীন দরগায়  

দেবহাটা (সাতক্ষীরা) ঘুরে: এককালে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, হুগলি, নদীয়া আর বাংলাদেশের যশোর-খুলনা অঞ্চলে সাধারণ মানুষের কাছে তিনি ছিলেন শক্তিশালী সাধক। প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ ড. সুকুমার সেন তাকে তুলনা করেছেন যীশুর সঙ্গে। এখনো ২৪ পরগনার যাদবপুরে মানিক পীরের যে মেলা বসে সেখানে জমে ওঠে সব ধর্মের মানুষের মিলন মেলা। 


২০১৭-০১-১১ ৭:৩৭:১২ পিএম
যমুনার মতো হারিয়ে গেছে গোপালপুর গোবিন্দ মন্দিরের জৌলুস

যমুনার মতো হারিয়ে গেছে গোপালপুর গোবিন্দ মন্দিরের জৌলুস

গোপালপুর, শ্যামনগর, সাতক্ষীরা: আঙুল উঁচিয়ে পীযুষ ক‍ান্তি মণ্ডল বলছিলেন “শুনেছি মন্দিরের কোল ঘেঁষে এক সময় কলকল করে বয়ে যেতো যমুনা। চর পড়লে দখল হয়ে যায় ধীরে ধীরে, গড়ে ওঠে জনবসতি”।


২০১৭-০১-১১ ৯:২৫:৪৭ এএম
তিন লক্ষবার হরিনাম জপ না করে খেতেন না হরিদাস

তিন লক্ষবার হরিনাম জপ না করে খেতেন না হরিদাস

এ ইতিহাসের শুরু আরও অনেক আগে। ঠিক এখানে, মানে- যশোরের বেনাপোলে‌ বা সাতক্ষীরার কলারোয়ায়ও নয়। সাতক্ষীরায় তার জন্ম হলেও এটি তার প্রথম জীবন নয়, জন্মান্তর মাত্র। কারণ তিনি ব্রহ্মা, তাই গল্পের শুরু সেই ব্রহ্মলোকেই। মর্ত্যে তার এটি দ্বিতীয় জন্ম। স্বেচ্ছায় নয়, বরং স্বয়ং শ্রীকৃষ্ণের ইচ্ছাতেই তার মর্ত্যলোকে আবির্ভাব। স্বর্গ থেকে কেন এই মর্ত্যে আগমন- সে গল্প আরও দীর্ঘ। সংক্ষেপে শুধু বলে রাখা-ভগবান শ্রীকৃষ্ণ শাস্তিরূপেই  তাকে এ মর্ত্যলোকে পাঠান।


২০১৭-০১-১১ ৮:৪৬:২২ এএম
বিশ্বাসের বটে বনবিবির বাস

বিশ্বাসের বটে বনবিবির বাস

সুন্দরবন ঘুরে: অতিকায় ছাতার আকৃতি নিয়েছে বিশাল বপুর বটগাছটা। লম্বা ডাল থেকে নামা ঝুল মাটিতে গেঁথে জন্ম দিয়েছে নতুন গাছের। সাড়ে ৩ একর জায়গা জুড়ে ছড়িয়ে থাকা মূল মহীরুহ ঘিরে তাই তৈরি হয়েছে জীবন্ত গাছের খুঁটি। সব মিলিয়ে ডাল-পাতায় ছাওয়া গোলঘরের রূপ নিয়েছে বটগাছটা।


২০১৭-০১-০৯ ৬:৩৬:১৬ পিএম
লাল টেরাকোটার মসজিদে মেলে বাসনার ধন

লাল টেরাকোটার মসজিদে মেলে বাসনার ধন

প্রবাজপুর, শ্যামনগর, সাতক্ষীরা ঘুরে: “দুরারোগ্য অসুখ নিরাময়ের সব চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে দূর-দূরান্ত থেকে সেখানে যায় মানুষ। মানত করে- পূর্ণও হয়! সব ধর্মের মানুষ গিয়ে মেলে সেখানে। নিঃসন্তান অনেক দম্পতিও যান, তাদের অনেকে ফের আসেন কোলে এক টুকরো চাঁদ নিয়ে”।


২০১৭-০১-০৯ ১:৪৬:০৩ এএম
মানুষ দেবী মানুষ দেবতা

মানুষ দেবী মানুষ দেবতা

সুন্দরবন ঘুরে: ওরা কেউ স্বর্গের দূত নন। এই মর্ত্যেরই মানুষ। তবু পূজিত হন দেব-দেবী হিসেবেই। মানুষ হয়েও বিশ্বের বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ সুন্দরবনের লোকজ বিশ্বাসে ওরাই মানুষের রক্ষক, ত্রাণকর্তা।  


২০১৭-০১-০৮ ৮:০৯:২৬ পিএম
সেকেন্দার ডাক্তারের বাড়িই একখণ্ড সুন্দরবন

সেকেন্দার ডাক্তারের বাড়িই একখণ্ড সুন্দরবন

বাঘ, ভাল্লুক, কুমির চরে বেড়ায় না তার বাড়িতে- তবে যা রয়েছে তাতেই দেখা হয়ে যাবে সুন্দরবনের অনেকটা। আর ভাগ্য ভালো না হলে বনের ভেতরে গিয়েও সেকেন্দার ডাক্তারের করা সংগ্রহের একাংশ চোখে পড়বে না।


২০১৭-০১-০৫ ৯:১৪:২৭ এএম
প্রতাপশালী নৌ দুর্গের চাই সংস্কার-সংরক্ষণ

প্রতাপশালী নৌ দুর্গের চাই সংস্কার-সংরক্ষণ

শ্যামনগর, সাতক্ষীরা ঘুরে: কে বলবে জীর্ণদশার এ ভবনটি একসময় যশোরের রাজা প্রতাপাদিত্যের নৌ দুর্গ ছিলো! স্থানীয়ভাবে এটি জাহাজঘাটা নামেই বেশি পরিচিত।


২০১৭-০১-০৪ ৭:০৬:২১ এএম
আহা, লাল-সাদা-গোলাপি-বেগুনি গ্লাডিওলাস!

আহা, লাল-সাদা-গোলাপি-বেগুনি গ্লাডিওলাস!

যশোর থেকে বেনাপোল। শহরের ধূসরতা ক্ষীণ হয়ে ক্রমেই দৃষ্টির পুরোটাই দখল করে নেয় সবুজ। মাঝে মাঝে দেখা দেয় হলুদ, লাল, নীল, গোলাপি, বেগুনি আরও কত রঙ। পথের পাশে অযত্নে বেড়ে ওঠা বুনো ফুলগুলো আজ আর তেমন দেখা যায় না। ফসলের পাশাপাশি যা আছে, তার প্রায় পুরোটাই কৃষকের বাণিজ্যিক প্রয়াসে বেড়ে ওঠা গোলাপ অথবা অন্যকোনো ফুল। ফুলের সৌন্দর্য শাশ্বত, হোক সে বাণিজ্যিক বা অবাণিজ্যিক। যদিও শহরে ফুলের বাণিজ্য বিতানে সব ফুলের গন্ধই অভিন্ন।


২০১৭-০১-০৩ ৭:০৬:২৭ পিএম
হাওয়া হয়ে গেছে যিশু আর চণ্ড

হাওয়া হয়ে গেছে যিশু আর চণ্ড

ঈশ্বরীপুর (শ্যামনগর, সাতক্ষীরা) ঘুরে: সেন আমলে নির্মিত চণ্ড ভৈরবের মন্দিরটি স্রেফ হাওয়ায় মিলিয়ে গেছে। সেই সঙ্গে হাওয়া হয়ে গেছে প্রতাপ আমলে গড়া দেশের প্রথম গির্জা। সেই দুঃখেই বুঝি স্রোত হারিয়ে পথ ভুলেছে কদমতলী নদী। সুন্দরবনের সীমানা নির্ধারক মালঞ্চ নদীর উজান ধারা হলেও কদমতলী তো এখন মরাই। এখনো বর্ষায় কিছুটা ঢল নমে বটে, কিন্তু এই শুকনো মৌসুমে সরু খালটাকে নদী বলাই তো মুশকিল।


২০১৭-০১-০২ ৫:৪০:৪৮ পিএম
ডিসেম্বর অন যশোর রোড

ডিসেম্বর অন যশোর রোড

দীর্ঘ একযুগেরও বেশি সময় পর বেনাপোল গেলাম। পুরনো হাতে-লেখা পার্সপোর্ট হাতে নিয়ে ফিরে যাই তের বছর আগের সেই বেনাপোল। দুইপাশে সবুজ-শ্যামল প্রাচীন বৃক্ষরাজি। তারই ছায়া মাড়িয়ে বেনাপোল, পেট্রাপোল হয়ে গাড়ি চলছিল কলকাতার পথে। কিন্তু সেই সবুজ-শ্যামল গাছগুলো আজ প্রায় বিলীন।   


২০১৭-০১-০২ ৪:৩১:৪২ পিএম