আত্মবিশ্বাসী লঙ্কান শিবির
[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ৭ ভাদ্র ১৪২৫, ২২ আগস্ট ২০১৮
bangla news

আত্মবিশ্বাসী লঙ্কান শিবির

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০২-১৪ ৪:১৬:৪৮ পিএম
ছবি: শোয়েব মিথুন / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: শোয়েব মিথুন / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বাংলাদেশের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজ জয়ের পর টেস্ট সিরিজটিও নিজেদের করে নিয়েছে শ্রীলঙ্কা। তাতে করে যেটা হয়েছে, টানা দু’দুটি সিরিজ জয়ের টাটকা স্মৃতি প্রফুল্লতা বাড়িয়েছে লঙ্কান শিবিরে। দল হিসেবে চাঙা সফরকারীরা। সেই জয় থেকে পাওয়া আত্মবিশ্বাস সঙ্গী করেই ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজে জয়েও আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছে কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের শিষ্যরা।

স্বাগতিকদের বিপক্ষে সিরিজ জিততে সফরকারী দলটি কতটা আত্মবিশ্বাসী তা আরও বেশি আঁচ করা গেল বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে আসা দলের ব্যাটসম্যান উপুল থারাঙ্গাকে দেখে। সংবাদমাধ্যম কর্মীদের প্রশ্নের জবাব দিচ্ছিলেন মারমার কাটকাট। ইংরেজী ভেঙ্গে ভেঙ্গে বললেও দলের উদ্দেশ্য জানাতে তার কণ্ঠ একবারও কেঁপে ওঠেনি। বরং ছিলেন বেশ প্রত্যয়ী। চোখেও ছিল আত্মবিশ্বাসের ঝলক।

এসেই বললেন, ‘ওয়ানডে ও টেস্ট সিরিজে আমরা ভালো খেলেছি। মূলত সেখান থেকেই আমরা টি-টোয়েন্টি জয়ের আত্মবিশ্বাসটি পাচ্ছি। তা ছাড়া পুরো সিরিজের হাওয়া আমাদের অনুকূলে। আমরা তা বয়ে নিতে চেষ্টা করবো।’

এরপর এলো উইকেটের প্রসঙ্গ। সেখানেও নির্ভার চান্দিমাল শিবির। ওয়ানডে ফরমেটের ত্রিদেশীয় সিরিজে শের-ই-বাংলার উইকেট ছিল মন্থর। প্রথম দিকে উইকেট বুঝে উঠতে সময় লাগায় টুর্নামেন্টটি হার দিয়ে শুরু করলেও শেষটা হয়েছে জয় দিয়ে।

এরপর টেস্ট সিরিজের শুরুতে সাগরিকার রান প্রসবা উইকেটে সাথে ম্যাচ ড্র করে দ্বিতীয়টিতে শের-ই-বাংলার চিরায়ত স্পিন ট্র্যাকে সাদা পোশাকে টানা দুই বছরের অপরাজেয় টাইগারদের আড়াই দিনে প্যাক করে দিল হেরাথ, ধনাঞ্জয়াদের স্পিন ঘূর্ণি।

কাজেই টি-টোয়েন্টিতেও উইকেট নিয়ে ভাবনা বলতে তাদের কিছুই নেই। আছে শুধু জয়ের দুনির্বার আকাঙ্ক্ষা, ‘আশা করছি উইকেট ভালোই হবে। ওয়ানডেতে স্লো উইকেট ছিল। টেস্টে ঢাকায় স্পিন ট্র্যাক ছিল। আসলে উইকেট নিয়ে অতআ ভেবে লাভ নেই। ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে এটাই মুল ব্যাপার।’

উইকেট কিংবা ম্যাচ দুটোর কোনটি নিয়ে লঙ্কানদের কপালে চিন্তার ভাঁজ দেখা না গেলেও দিন শেষে অদৃশ্য একটি ভাবনা রেখা কিন্তু ঠিকই দেখা গেল। সেটি আর কিছু নয়, টাইগারদের শক্তিমত্তা নিয়ে। ঘরের মাঠে দুর্বার দলটি যেকোন সময়ই লঙ্কাকাণ্ড ঘটিয়ে দিতে সক্ষম সেটা ভালো করেই জানেন এই লঙ্কান ব্যাটসম্যান, ‘বাংলাদেশ দল যথেষ্ট সামর্থ্যবান একটি দল। ম্যাচটি একেপেশে হবে না।’

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৬ ঘণ্টা, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮
এইচএল/এমআরএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa