[x]
[x]
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ ফাল্গুন ১৪২৪, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

bangla news

মাশরাফি-সাকিবদের বলে জিম্বাবুয়ের স্বপ্ন ভঙ্গ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০১-২৩ ৮:০৯:৫৩ পিএম
জিম্বাবুয়েকে ৯১ রানে হারালো বাংলাদেশ/ছবি: শোয়েব মিথুন

জিম্বাবুয়েকে ৯১ রানে হারালো বাংলাদেশ/ছবি: শোয়েব মিথুন

ঢাকা: ত্রিদেশীয় সিরিজের শীর্ষ দল বাংলাদেশকে ২১৬ রানে থামিয়ে দিতে পেরে হয়তো জয়ের স্বপ্ন দেখছিল ক্রেমার বাহিনী। এমন স্বল্প টার্গেট পেয়ে জিম্বাবুইয়ান ব্যাটসম্যানদের জয়ের স্বপ্নে বিভোর হওয়ার কথা। কিন্তু ব্যাট করতে নামার প্রথম ১০ ওভারের মধ্যে সেই স্বপ্ন অন্ধকারের পথে হাঁটা শুরু করলো জিম্বাবুয়। মাশরাফি-সাকিবের জোড়া আঘাতে ৩৪ রানেই ৪ উইকেট হারায় সফরকারীরা।

শেষ পর্যন্ত ১২৫ রানেই গুটিয়ে গেল রোডেশিয়ানদের ইনিংস। ফলে টাইগার বাহিনী পেল ৯১ রানের জয়। এ সিরিজে এটি বাংলাদেশের টানা তৃত্বীয় হয়।

আর এই হারে টুর্নামেন্টের ফাইনালে ওঠার পথটি কঠিন করে তুললো কোচ হিথ স্ট্রিকের শিষ্যরা। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে টাইগারদের মুখোমুখি হতে তাদের এখন তাকিয়ে থাকতে হবে ২৫ জানুয়ারি বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যাচটির দিকে। যেখানে শ্রীলঙ্কা জিতলেই টুর্নামেন্ট থেকে তাদের বিদায় নিতে হবে। আর হেরে গেলে পড়তে হবে রান রেটের মারপ্যাচে।

এদিন টাইগারদের হয়ে দু্ই উদ্বোধনী বোলার মাশরাফি বিন মর্তুজা ও সাকিব আল হাসানের বিধ্বংসী বলে দলীয় ৩৪ রানেই জিম্বাবুয়ের টপ অর্ডার চুরমার হয়ে যায়। কম যাননি মোস্তাফিজও। প্রথম স্পেলে কোনো উইকেটের দেখা না পেলেও তিনটি মেডেন ওভার নিয়ে কোণঠাসা করে রাখেন জিম্বাবুয়েকে।

তবে খালি হাতে ফেরেননি এই টাইগার কাটার স্পেশালিস্ট। উইকেটে থিতু হওয়া সিকান্দার রাজাকে বোল্ড আউট করে ব্যক্তিগত ৩৯ রানে ফিরিয়েছেন। আর টেলএন্ডার কাইলে জার্ভিসকেও উইকেট ছাড়া করেছেন ১০ রানে।  

সাকিব আল হাসান ব্যক্তিগত ৭ রানে সুলেমান মির, ৮ রানে তেন্দাই চাতারা ও শূন্য রানে ফিরিয়েছেন ব্রেন্ডনস টেইলরকে। মাশরাফি বিন মর্তুজার শিকার হয়ে হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ৫ ও ক্রেইগ আরভিন নিজের ইনিংসে সমাপ্তি টেনেছেন ব্যক্তিগত ১১ রানে।

সানজামুলের দুই শিকারি পিটার মুর ও ম্যালকম ওয়ালার। মুরের ব্যক্তিগত সংগ্রহ ১৪ হলেও ওয়ালার রানের খাতাই খুলতে পারেননি। আর রুবেল হোসেন ব্যক্তিগত ২৩ রানে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেছেন অধিনায়ক গ্রায়েম ক্রেমারকে।  

মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি) সিরিজের ৫ম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ে ওপেনার এনামুল বিজয় ১ রানে কাইলে জার্ভিসের শিকার হয়ে ফেরার পর দ্বিতীয় উইকেটে তামিম ও সাকিব জুটিতে টাইগারদের বড় সংগ্রহের সম্ভাবনা উঁকি দেয়। কিন্তু ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৩৭তম ফিফটি তুলে নেয়ার পর ৫১ রানে সিকান্দার রাজার বলে সাকিব ব্রেন্ডন টেইলরের হাতে ক্যাচ তুলে দিলে স্বাগতিকদের সম্ভাবনা ধাক্কা খায়।

সাকিবের ফেরার পর ৬৬ রান করে ওয়ানডে ক্রিকেটে ৬ হাজার রান করা তামিম ইকবালও নিজের ইনিংসটি খুব বেশি দূর নিয়ে যেতে পারেননি। ৭৬ বলে ক্রেমারের বলে উইকেটের পেছনে টেইলরের হাতে ক্যাচ দিয়ে ড্রেসিং রুমে ফেরেন তামিম। 

এরপর ব্যক্তিগত ১৮ রানে মুশফিক, ২ রানে মাহমুদুল্লাহ, ৬ রানে সাব্বির, ২ রানে নাসির ও  শূন্য রানে মাশরাফি ফিরে গেলে দলীয় ২শ রানের নিচেই টাইগারদের অলআউটের শঙ্কা তৈরি হয়।

কিন্তু দুই টাইগার টেলএন্ডার মোস্তাফিজুর রহমান ও সানজামুলের দৃঢ ব্যাটিং সেই শঙ্কা দূরে ঠেলে বাংলাদেশকে ৯ উইকেটে ২১৬ রানের সংগ্রহ এনে দেয়। যা টপকাতে গিয়ে ৩৬.৩ ওভারে ১২৫ রানে অলআউট হয় জিম্বাবুয়ে। আর মাশরাফিরা পায় ৯১ রানের জয়।

জিম্বাবুয়ের হয়ে বল হাতে কাইলে জার্ভিস ৩টি, গ্রায়েম ক্রেমার ৪টি, তেন্দাই চাতারা ও সিকান্দার রাজা নিয়েছেন ১টি করে উইকেট।             
 
বাংলাদেশ সময়: ২০০৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০১৮
এইচএল/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa