[x]
[x]
ঢাকা, শনিবার, ৩০ আষাঢ় ১৪২৫, ১৪ জুলাই ২০১৮

bangla news

পা মাটিতেই রাখছেন মাশরাফি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০১-১৪ ৩:২৪:৪৫ পিএম
পা মাটিতেই রাখছেন মাশরাফি-ছবি:শোয়েব মিথুন-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

পা মাটিতেই রাখছেন মাশরাফি-ছবি:শোয়েব মিথুন-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের অংশগ্রহনে সোমবার (১৫ জানুয়ারি) থেকে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গড়াচ্ছে তিন জাতির ওয়ানডে টুর্নামেন্ট। প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ জিম্বাবুয়ে।

আইসিসির ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ে টাইগাররা যেখানে ৭ নাম্বারে জিম্বাবুয়ে সেখানে ১০ নাম্বারে। সাম্প্রতিক ফর্ম, অভিজ্ঞতা সব কিছুতেই এগিয়ে স্বাগতিকরা। পাশাপাশি গেল তিন বছর দেশের মাটিতে ক্রিকেটের যে কোনো ফরম্যাটেই টাইগাররা অপ্রতিরোধ্য।

পা মাটিতেই রাখছেন মাশরাফি-ছবি:শোয়েব মিথুন-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমশুধু দেশেই কেন? দেশের বাইরেও জয়ের অভ্যাস মাশরাফি, সাকিবরা ইতোমধ্যেই করে ফেলেছেন। এই বিবেচনায় গ্রায়েম ক্রেমারের নেতৃত্বে জিম্বাবুয়ে বেশ পিছিয়ে।

তবে সেই খুশিতে আকাশে উড়ছেন না লাল-সবুজের দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। বরং পা মাটিতেই রাখছেন। আর এই ক্ষেত্রে তাকে আরও সতর্ক করে দিচ্ছে গত বছরের জুন-জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়ে তাদের মাটিতেই জিম্বাবুয়ের ৩-২ এ ওয়ানডে সিরিজ জয়ের বিষয়টি।

স্বাগতিক হয়ে ঘরের মাঠের উইকেট শতভাগ কাজে লাগিয়ে তারাই জিতবে আর বাকি দলগুলো তাকিয়ে থাকবে সে ব্যাপারেও মাশরাফি মোটেও একমত নন, ‘প্রতিপক্ষ যেই হোক সেটা সহজ হবে না। বিশেষ করে যদি জিম্বাবুয়ের দিকে তাকান তাহলে তারাও ভালো দল। সম্প্রতি তারা শ্রীলঙ্কাকে তাদের মাটিতে হারিয়ে এসেছে। উইকেট সো ফার ভালো মনে হচ্ছে। আর প্রত্যাশা অবশ্যই সবার যা আমাদেরও তা। আমরা অবশ্যই জিততে চাই এবং ভালোভাবে জিততে চাই। তারপর ধারাবাহিকভাবে টুর্নামেন্টে টিকে থাকা  শ্রীলঙ্কাও ভালো দল।

রোববার (১৪ জানুয়ারি) মিরপুরে শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

মাশরাফি এ সময় কথা বলেন টস নিয়েও। বাংলাদেশের অব্যাহত কুয়াশাচ্ছন্ন আবহাওয়ায় দিবা রাত্রির এই টুর্নামেন্টে টস প্রভাব বিস্তার করতে পারে। কিন্তু তিনি সেটা সেভাবে ভাবছেন না। বরং তার কাছে বড় হয়ে উঠেছে দলের গেম প্ল্যান ও তার সঠিক বাস্তবায়ন।

তিনি আরও বলেন, ‘আসলে আমরাও সন্দেহে আছি। ব্যাটিং করলে ভালো হবে নাকি বোলিং করলে ভালো হবে। এটা কুয়াশার ওপর নির্ভর করছে। ভারী কুয়াশা পড়লে বা শিশির বেশি না পড়লে বোলিংটা ভালো হয়। সো ডিপেন্ড করছে যে পার্টিকুলার ডেতে ওয়েদার কেমন থাকছে। আমার মনে হয় এটা নিয়ে না ভেবে আমরা শুরুতে ব্যাটিং কিংবা বোলিং যেটাই পাই এক্সিকিউশনটা গুরুত্বপূর্ণ।’

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৮ ঘণ্টা, ১৪ জানুয়ারি, ২০১৮
এইচএল/এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa