[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৭ নভেম্বর ২০১৭

bangla news

তামিমের ফেরার ম্যাচেও জিতলো কুমিল্লা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-১১-১৪ ৯:২৫:০৬ পিএম
ছবি: শোয়েব মিথুন / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: শোয়েব মিথুন / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চলমান বিপিএলের ১৪তম ম্যাচে মাঠের লড়াইয়ে নামে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এবং চিটাগং ভাইকিংস। টানা তৃতীয় ম্যাচ জিততে চিটাগংকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে কুমিল্লা। মুখোমুখি আগের দেখায় ৮ উইকেটে জিতেছিল কুমিল্লা।

মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ছয়টায় মাঠে নামে দুই দল। টস জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন কুমিল্লার দলপতি মোহাম্মদ নবী। আগে ব্যাট করে ভাইকিংস নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে তোলে ১৩৯ রান। জবাবে, ৪ উইকেট হারানো কুমিল্লা ১৮.১ ওভার ব্যাট করে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায়।ছবি: শোয়েব মিথুন / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমইনজুরি কাটিয়ে এই ম্যাচের মধ্যদিয়ে বিপিএলের পঞ্চম আসরে প্রথমবারের মতো মাঠে নামেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। গত আসরে চিটাগং ভাইকিংসের দলপতির দায়িত্ব পালন করা তামিম এবার তাদেরই প্রতিপক্ষ হয়ে নামেন। আর তামিমের ফেরার ম্যাচে জয় পাওয়ায় টানা তৃতীয় জয় তুলে নেয় কুমিল্লা। ৪ ম্যাচ খেলে কুমিল্লার তিন জয়ের বিপরীতে একটি পরাজয়। অপরদিকে, সমান ম্যাচ খেলে চিটাগং একটি ম্যাচ জিতলেও বাকি তিনটি ম্যাচেই পরাজয়ের স্বাদ নিলো।

ব্যাটিংয়ে নেমে ভাইকিংসের ওপেনার লুক রঞ্চি ১৯ বলে ৫টি চার আর একটি ছক্কায় করেন ৩১ রান। আরেক ওপেনার সৌম্য সরকার দুটি চার আর একটি ছক্কায় ৩০ রান করে বিদায় নেন। তিন নম্বরে নামা দিলশান মুনাবেরা ২৫ বলে ১৯ রান করে সাজঘরে ফেরেন। সিকান্দার রাজার ব্যাট থেকে আসে ২০ রান। তার ২৪ বলের ইনিংসে ছিল একটি বাউন্ডারির মার। ভাইকিংস দলপতি মিসবাহ ১১ বলে ১৬ এবং ক্রিস জর্ডান ৯ বলে ১৬ রান করে অপরাজিত থাকেন।

ছবি: শোয়েব মিথুন / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমকুমিল্লার লেগ স্পিনার রশিদ খান ৪ ওভারে ১৭ রান খরচায় তুলে নেন একটি উইকেট। মোহাম্মদ নবী ৩ ওভারে ১৯ রান দিয়ে নেন ১টি, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ৪ ওভারে ৩০ রান দিয়ে নেন ১টি, ডোয়াইন ব্রাভো ৪ ওভারে ৩২ রান দিয়ে নেন ১টি উইকেট। আল আমিন আর আরাফাত সানি কোনো উইকেট পাননি।

১৪০ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে কুমিল্লার ওপেনার তামিম ব্যক্তিগত ৪ রানে বিদায় নেন। আরেক ওপেনার লিটন দাস করেন ২০ বলে ২১ রান। তিন নম্বরে নামা ইমরুল কায়েস ৩৬ বলে দুটি চার আর তিনটি ছক্কায় করেন ৪৫ রান। জস বাটলার ৩১ বলে ৩টি চার আর ২টি ছক্কায় করেন ৪৪ রান। মারলন স্যামুয়েলস ৮ বলে একটি চার আর দুটি ছক্কায় ১৭ রান করে অপরাজিত থাকেন।ছবি: শোয়েব মিথুন / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমচিটাগংয়ের দিলশান মুনাবেরা এবং সানজামুল ইসলাম দুটি করে উইকেট নেন। কোনো উইকেট পাননি সিকান্দার রাজা, তাসকিন, শুভাশিষ, ক্রিস জর্ডান, তানবীর হায়দাররা।

দিনের প্রথম ম্যাচে এক বল বাকি থাকতে ৪ উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে সাকিব-আফ্রিদি-পোলার্ড-নারাইনদের ঢাকা ডায়নামাইটস। টুর্নামেন্টের ১৩তম ম্যাচে দ্বিতীয়বার মুখোমুখি হয় সাকিবের ঢাকা ডায়নামাইটস ও মাহমুদউল্লাহর খুলনা টাইটান্স। দুই দলের দুই ক্যারিবীয়ান কার্লোস ব্রাথওয়েইট এবং কাইরন পোলার্ড ব্যাট হাতে মিরপুরে ঝড় তুলেছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৩ ঘণ্টা, ১৪ নভেম্বর ২০১৭
এমআরপি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Loading...
Alexa