Alexa
ঢাকা, শনিবার, ৯ বৈশাখ ১৪২৪, ২২ এপ্রিল ২০১৭
bangla news
symphony mobile

আন্তর্জাতিক টেনিস ফেডারেশনের সমালোচনায় শারাপোভা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৪-১৪ ৫:৪৭:০৮ পিএম
আন্তর্জাতিক টেনিস ফেডারেশনের সমালোচনায় মারিয়া শারাপোভা/ছবি: সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক টেনিস ফেডারেশনের সমালোচনায় মারিয়া শারাপোভা/ছবি: সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক টেনিস ফেডারেশনের (আইটিএফ) সমালোচনায় মেতেছেন ড্রাগ নিষেধাজ্ঞার কারণে কোর্টের বাইরে থাকা মারিয়া শারাপোভা। গত বছর নিষিদ্ধ তালিকায় ‘মেলডোনিয়াম’ ড্রাগের অন্তর্ভুক্তি বিষয়ে তাকে পর্যাপ্ত সতর্ক না করায় আইটিএফকে রীতিমতো ধুয়ে দিয়েছেন সাবেক ওয়ার্ল্ড নাম্বার ওয়ান।

নিষিদ্ধ ড্রাগের বিষয়ে আইটিএফ সাবধান করেনি বলেই দাবি ২৯ বছর বয়সী শারাপোভার। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘কেন কেউ আমার কাছে এগিয়ে আসেনি এবং ব্যক্তিগতভাবেও কথোপকথন করেনি। একজন অ্যাথলেটের জন্য এটি অফিসিয়াল, যা নিয়ে গোপনীয়তার সমস্যার কথা তারা পরে বলেছে। শেষ পর্যন্ত দোষটা আমারই ছিল। ড্রাগ টেস্টে ব্যর্থ হওয়ার জন্য দায়ী করা হয়েছে’

‘আমি সবকিছুর উপর ক্লিয়ারেন্স পেয়েছিলাম যেটি (মেলডোনিয়াম) সাত বছর ধরে ব্যবহার করেছিলাম এবং আমি এ নিয়ে প্রসন্ন ছিলাম।’-যোগ করেন শারাপোভা।

প্রথমে শারাপোভাকে দুই বছর নিষিদ্ধ করেছিল টেনিসের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রত সংস্থা। এর বিরুদ্ধে করা আপিলের রায়ে গত বছরের অক্টোবরে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ কমিয়ে ১৫ মাস নির্ধারণ করেন ক্রীড়া আদালত কোর্ট অব আরবিট্রেশন ফর স্পোর্ট (সিএএস)।

চলতি মাসেই শারাপোভার নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে। আগামী ২৯ এপ্রিল স্টুটগার্ট গ্র্যান্ড প্রিক্স টুর্নামেন্টে প্রত্যাবর্তন হবে রাশিয়ান টেনিস সুন্দরীর। গত বছরের জানুয়ারিতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন চলাকালীন ড্রাগ টেস্টে নিষিদ্ধ ড্রাগ মেলডোনিয়াম পজিটিভ প্রমাণিত হওয়ায় নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়েন পাঁচবারের গ্র্যান্ড স্লাম জয়ী।

যদিও শারাপোভা দাবি করেছিলেন, চিকিৎসকের পরামর্শেই তিনি লাৎভিয়ায় তৈরি ড্রাগটি দীর্ঘ সময় ধরে ব্যবহার করে আসেন। মেলডোনিয়াম ড্রাগটি যে ২০১৬ সালের ১ জানুয়ারি ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির নিষিদ্ধ তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে সে সম্পর্কে নাকি তিনি অবগত ছিলেন না।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৮ ঘণ্টা, ১৪ এপ্রিল, ২০১৭
এমআরএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

You May Like..