Alexa
ঢাকা, রবিবার, ১১ আষাঢ় ১৪২৪, ২৫ জুন ২০১৭

bangla news

‘আমি গর্বিত, আমি মোসাদ্দেকের মা’

এম.আব্দুল্লাহ আল মামুন খান, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৩-১৯ ৯:০১:২৪ পিএম
ছেলে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের সাফল্যে মা হোসনে আরা’র যেন আনন্দের সীমা নেই। ছবি: অনিক খান

ছেলে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের সাফল্যে মা হোসনে আরা’র যেন আনন্দের সীমা নেই। ছবি: অনিক খান

ময়মনসিংহ: দেশের শততম টেস্টের প্রথম ইনিংসে অর্ধশতক হাঁকিয়ে বিস্ময়কর রেকর্ড গড়েছেন অভিষিক্ত মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। লঙ্কা বধের পেছনে ময়মনসিংহের এ ছেলের নজরকাড়া পারফরম্যান্স ঐতিহাসিক এ টেস্টে জয়ে রেখেছে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। সেজন্য টাইগার বাহিনীর সঙ্গে প্রশংসার জোয়ারে ভাসছেন মোসাদ্দেকও।

এজন্যই কিনা উচ্ছ্বাস-আনন্দের ফল্গুধারা বইছে ক্রিকেট-সংস্কৃতির সূতিকাগার ময়মনসিংহে। টাইগারদের ভয়ঙ্কর গর্জনে তার নিজ জেলা ময়মনসিংহের লাখো ক্রীড়ামোদী মানুষের গলায় আজ যেন গানের সুর উঠেছে ‘আহা কী আনন্দ আকাশে-বাতাসে...।’ 

রোববার (১৯ মার্চ) বিকেলে বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত হওয়ার পর মোসাদ্দেকের ময়মনসিংহ শহরের কাঁচিঝুলি গোলাপজান রোডের বাসায় গিয়ে দেখা গেলো অভূতপূর্ব এক দৃশ্য। মোসাদ্দেক তথা বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাফল্যে সেখানে বাঁধভাঙা আনন্দের জোয়ার। 

শহরের বিভিন্ন এলাকা তো বটেই, ত্রিশালসহ বিভিন্ন উপজেলায়ও হয়েছে আনন্দ মিছিল। 

বাংলাদেশ দলের ৮৬তম ক্রিকেটার হিসেবে টেস্ট ক্যাপ মাথায় উঠেছিল মোসাদ্দেকের। নতুন টেস্ট ক্যাপ মাথায় নিয়ে খেলতে নেমেই ৭৫ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেন এ তরুণ তুর্কি, তার এ রান ভূমিকা রাখে বাংলাদেশের জয়ের ভিত স্থাপনে। এই ইনিংসের কারণে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শততম টেস্টের ঐতিহাসিক বিজয়ে উচ্ছ্বসিত মোসাদ্দেকের পরিবারের সদস্যরাও।

বাংলানিউজের সঙ্গে নিজ বাসায় আলাপকালে মোসাদ্দেকের মা হোসনে আরা বেগম বলেন, ‘দলের জয়ে মোসাদ্দেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। এ আনন্দের অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করা কঠিন।’

ছেলের অসাধারণ সাফল্যে হোসনে আরা’র যেন আনন্দের সীমা নেই। জানালেন, ‘পরশু রাতে মোসাদ্দেকের সঙ্গে কথা হয়েছে। মোসাদ্দেককে বলেছি, বাবা তুমি ভাল ব্যাটিং করেছো। মোসাদ্দেক বলেছে মা দোয়া করো, আমরা যেন জিততে পারি।’রোববার (১৯ মার্চ) সকাল থেকেই বাসায় টিভি সেটের সামনে বসে পরিবারের সবাইকে একসঙ্গে নিয়ে খেলা দেখেছেন মা হোসনে আরা। 

বাংলানিউজকে এমন তথ্য জানিয়ে বললেন, ‘অভিষেক টেস্টেই আমার ছেলের ব্যাট হেসেছে। দলও জিতেছে। আমি গর্বিত, আমি মোসাদ্দেকের মা’। 

ময়মনসিংহের লাখো ক্রীড়ামোদী ও জেলার ক্রীড়া সংগঠক মোসাদ্দেককে মোবারকবাদ জানিয়েছেন।

মা বললেন, ‘মোসাদ্দেক বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করেছে। এমন ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকুক। মোসাদ্দেক আরো ভাল করুক।’ 

মোসাদ্দেকের ছোট ভাই মোসাব্বির হোসেন মুনও ক্রিকেটার। ময়মনসিংহ প্রিমিয়ার লিগে খেলছেন এসট্রো ফার্মার হয়ে। উচ্ছ্বসিত মুন বলছিলেন, ‘মোবাইলফোনে ক্ষুদে বার্তা বা কল করে অনেকেই শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন আমাদের। এ মহাকাব্যিক জয়ে গোটা দেশের সঙ্গে আনন্দে ভাসছে দেশের ক্রিকেটে অনেক দাপুটে খেলোয়াড়ের জন্ম দেওয়া ময়মনসিংহ।’

ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র ও ঐতিহ্যবাহী পন্ডিতপাড়া ক্লাবের সভাপতি মো. ইকরামুল হক টিটু বলেন, ময়মনসিংহ অনেক কৃতি ক্রিকেটারের জন্ম দিয়েছে। মোসাদ্দেক নিজের অভিষেক টেস্টেই অসাধারণ পারফরম্যান্স করেছে। তাকে অভিনন্দন, বিশ্বকে আরেকবার টাইগারদের গর্জন শুনিয়ে দেওয়ার জন্য।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫০ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০১৭
এমএএএম/এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

You May Like..
Alexa