[x]
[x]
ঢাকা, শনিবার, ২ পৌষ ১৪২৪, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭

bangla news

প্রবাসীদের সমাগমে মুখরিত বাহরাইনের বৈশাখী মেলা

মোসাদ্দেক হোসেন সাইফুল, বাহরাইন করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৪-১৫ ৪:৩৪:১৩ পিএম
বাহরাইনে বৈশাখী মেলায় সাংস্কৃতিক আয়োজন

বাহরাইনে বৈশাখী মেলায় সাংস্কৃতিক আয়োজন

বাহরাইন: বাহরাইনের বৈশাখী মেলায় উৎসবপ্রিয় মানুষের ঢল নেমেছে। বিকাল ৪টার পর থেকে তাপদাহ উপেক্ষা করে তরুণ-তরুণীদের ভিড়ে মুখরিত হয়ে ওঠে আ’আলীর বাংলাদেশ স্কুল গ্রাউন্ড। আনন্দ ভাগাভাগিতে বাদ যায়নি শিশু-বৃদ্ধরাও। সব শ্রেণির মানুষের পদচারণায় মুখরিত এ মেলা দেখলে মনে হবে যেন প্রবাসের বুকে একখণ্ড বাংলাদেশ। বৈশাখী সাজে পুরো এলাকা সেজেছে এক নতুনের আমেজে।

বাংলাদেশ দূতাবাস ও বাংলাদেশ কমিউনিটির সহযোগিতায় এবং বাংলাদেশ  স্কুলের আয়োজনে বাহরাইনের আলীতে বাংলাদেশ স্কুলের নিজস্ব ভূমিতে বৃহস্পতি, শুক্র ও শনিবার  (১৩,১৪ ও ১৫ এপ্রিল) এ বৈশাখী মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

মেলার ২য় দিন শুক্রবার বিকালে মেলা উদ্বোধন করেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্হান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্হায়ী কমিটি সদস্য মো. ইসরাফিল আলম এমপি। এ সময় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্হান মন্ত্রণালয় সচিব বেগম শামসুন নাহার, বাংলাদেশ  দূতাবাস বাহরাইনের সিডিএ মেহেদী হাসান, বিএমইটি পরিচালক মো. তাজুল ইসলাম, ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের পরিচালক  শফিকুল ইসলাম, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ডিজি মোঃ তরিকুল ইসলাম ও বাহরাইন দূতাবাসের  প্রথম সচিব(শ্রম) শেখ মোঃ তৌহিদুল ইসলাম, বাংলাদেশ স্কুলের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী গিয়াস উদ্দীন, স্কুলের প্রিন্সিপাল আমান উল্লাহ মো. সালেহ, বাংলাদেশ সোসাইটি সভাপতি ফুয়াদ শান্তনু, বাংলাদেশ সমাজের সভাপতি ফজলুর করিম বাবলু, ইউনিভার্সিটি অব বাহরাইনের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ওমর ফারুক, বিশিষ্ট ব্যাংকার ও সমাজসেবক মুইজ চৌধুরী, গোলাম রাব্বানী, বাংলাদেশ স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আইনূল হক, হামেদ কাজী হাসান, জয়নাল আবেদীন, আব্দুল করিম, মওলানা বাছেদ  ও প্রবাসী কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।   
উদ্বোধনের পর তারা মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন।

এবারের মেলায় টাইটেল স্পন্সর বাহরাইন ফাইনান্স কোম্পানি(বিএফসি)। ব্রোঞ্জ স্পন্সর বাংলাদেশ হিন্দু মহাজোট, নিউ ইরা ট্রাভেলস এন্ড ট্যুরিজম, প্রাণ গ্রুপ, হামামা  কনস্ট্রাকশন কোম্পানি, টাংগাইল এসোসিয়েশন অব বাহরাইন, ইব্রাহীম মুসা কনসট্রাকটিং  সার্ভিস, কাইট বিল্ডিং মেটেরিয়াল, ইউএই এক্সচেঞ্জ, অরিশা বিল্ডিং কনস্ট্রাকটিং এন্ড সার্ভিসেস, লিন্নাস মেডিকেল, মাজেদ মির্জা।

ডোনার হিসেবে রয়েছেন ইলিবেশন আর্কিটেকস, আইনুল হক, চিটাগং সোসাইটি, সফি উদ্দীন(সিআইপি), উম নাদের কনস্ট্রাকশান, কিউই রেস্টুরেন্ট, মোঃ মনির, রয়েল গ্লাস, সেন্ট্রাল সিলেট সোসাইটি, বাবুল কালাম, মহিউদ্দীন আহমেদ প্রমুখ।

স্টল নিয়ে মেলায় অংশগ্রহণ করেছে বাংলাদেশ সোসাইটি, বাংলাদেশ সমাজ, জেন্জ এক্সচেঞ্জ, লিন্নাস গ্রুপ, বুড়িচং ব্রাক্ষণপাড়া সমাজকল্যাণ ঐক্য পরিষদ, বাংলাদেশ কার্গো, এমবি আলদোসারী গ্যারেজ, স্কাইল্যান্ড ক্লিয়ারিং সার্ভিস, বি-বাড়ীয়া তিতাস ইউনিয়ন, মেঘনা প্রবাসী সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি, রাকু  জিপসন পেইন্টিং কন্ট্রাকটিং, শরীয়তপুর প্রবাসী জনকল্যাণ পরিষদ, মাদারীপুর অ্যাসোসিয়েশন, জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন, মো. বদরুল, বৈশাখী স্টোর, মো. মানিক, বি-বাড়ীয়া তিতাস সেন্টার, হ্যাপি স্টোর, হাইফা ক্যাফটেরিয়া, মো. তারেক, বকুল কনস্টাকশন, আয়েশা রেস্টুরেন্ট, লিন্নাস ফার্নিচার, ফাদেল টেইলারিং, হামতারো রেস্টুরেন্ট, মা রেস্টুরেন্ট, শ্রীলংকান ক্লাব, তালিমূল কোরআন, মিজান ক্রন সেন্টার, আল খুলুদ নার্সারি, মোশেদ, হামতারো কনস্ট্রাকশান, ঢাকা এসোসিয়েশন, দুবাই রেস্টুরেন্ট, মোঃ শাহীর, সালমা ক্রিয়েশন, আল মাহারী আল আরবী ও চাঁদপুর ফ্রেন্ডস ফোরাম, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ (আলাউদ্দীন নূর),বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ (মোঃ শাহজালাল ), বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ (জহিরউদ্দীন মোঃ বাবর), আওয়ামী যুবলীগ, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটি, জাতীয়তাবাদী যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রীয় কমিটি, যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটি, মানামা মহানগর বিএনপি, রিফা শাখা বিএনপি, মুহাররাক শাখা বিএনপি, জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম দল, বঙ্গবন্ধু পরিষদ,বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সহ প্রায় ৮০টি প্রতিষ্ঠান।

মেলায় হস্তশিল্পজাত দ্রব্য ,গার্মেন্টস, খাবারের দোকান, শিশুদের খেলার সামগ্রী ও লোকজ সামগ্রী প্রদর্শনীর আয়োজন দৃষ্টি কেড়েছে। এছাড়াও বাংলাদেশি বিরিয়ানি, গ্রাম বাংলার বিভিন্ন পিঠা,পায়েস, ফালুদা, লাচ্ছি, মিষ্টান্ন, ঝাল মুড়ি দিয়ে দর্শনার্থীদের আপ্যায়ন করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৫, ২০১৭
জেডএম/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Alexa