Alexa
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ আষাঢ় ১৪২৪, ২২ জুন ২০১৭

bangla news

৮ কেন্দ্রের উদ্বোধন, আরও ১০ উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৩-০১ ৫:৪০:০৭ পিএম
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ঢাকা: নতুন আটটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র, দু’টি উপকেন্দ্র, বান্দরবানের থানচিতে বিদ্যুতায়নসহ আরও দশ উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন সুবিধার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
 
 

বুধবার (০১ মার্চ) দুপুরে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এসব উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন তিনি।
 
এক হাজার ৩৭৫ মেগাওয়াট ক্ষমতার আটটি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মধ্যে ৩টি রাষ্ট্রায়ত্ব, ৫টি বেসরকারি।
 
বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলোর মধ্যে রয়েছে আশুগঞ্জ ৪৫০ ও শাহজীবাজারে ৩৩০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল পাওয়ার প্ল্যান্ট, খুলনা ১৫০ মেগাওয়াট গ্যাস টারবাইন বিদ্যুৎ কেন্দ্রকে ২২৫ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেলে উন্নীতকরণ।
 
বেসরকারি খাতে বরিশালে ১১০ মেগাওয়াট, জামালপুরে ৯৫ মেগাওয়াট, মানিকগঞ্জে ৫৫ মেগাওয়াট, নবাবগঞ্জে ৫৫ মেগাওয়াট, নারায়ণগঞ্জে ৫৫ মেগাওয়াটের ৫টি বিদ্যুৎ কেন্দ্র উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।
 
এছাড়া বিবিয়ানা-কালিয়াকৈর ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইন ও ফেঞ্চুগঞ্জ-বিবিয়ানা ২৩০ কেভি সঞ্চালন লাইনের দু’টি উপকেন্দ্র এবং বান্দরবানের থানচিতে বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন করেন তিনি।
 
ঢাকার সাভার ও কেরানিগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ি, গোপালগঞ্জের কোটালিপাড়া, টাঙ্গাইলের ভূয়াপুর, চট্টগ্রামের কর্ণফুলি, ফেনীর দাগনভুঁঞা, কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর, মেহেরপুরে মুজিবনগর ও নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন সুবিধার উদ্বোধন করেন।
 
সবাইকে বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুৎ আপনাদের সম্পদ, জাতীয় সম্পদ। ঘর থেকে বের হওয়ার সময় সুইচটা বন্ধ রাখা। যেটুক দরকার ততটুকু ব্যবহার করা।
 
বিদ্যুৎ উৎপাদনে সরকারের পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালে ২৪ হাজার মেগাওয়াট, ৩১ সালে ৪০ হাজার মেগাওয়াট এবং ৪১ সালে ৬০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের পরিকল্পনা রয়েছে।
 
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করলে দেশের উন্নয়ন করা যায়। এটা আমরা প্রমাণ করতে পেরেছি।
 
দেশের মানুষের বিদ্যুৎ চাহিদা মেটাতে সৌর বিদ্যুৎ, গ্যাস, কয়লাভিত্তিক ও নিউক্লিয়ার প্ল্যান্টসহ বিদ্যুৎ উৎপাদনে সরকারের নেওয়া বহুমুখী পদক্ষেপের কথা ‍তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।  
 
বিএনপি আমলে তারা হাওয়া ভবন করে লুটপাট, দুর্নীতিতে ব্যস্ত ছিলো মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেন, দেশের প্রতি তাদের কোনো দায়িত্ববোধ নেই। অর্থসম্পদ বানানো এটাই তাদের ক্ষমতায় থাকার লাভ।
 
তিনি বলেন, বিএনপি আমলে মানুষ বিদ্যুৎ দেখেনি, পেয়েছে বা দেখেছে রাস্তার পাশে খাম্বা পড়ে থাকতে।
 
ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন উপজেলায় কর্মকর্তা, উপকারভোগী ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলেন।
 
এ সময় গণভবনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, তৌফিক-ই-ইলাহী, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ফারুক খান প্রমুখ।
 
সঞ্চালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৩ ঘণ্টা, মার্চ ০১, ২০১৭
এমইউএম/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

You May Like..
Alexa