[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৫ শ্রাবণ ১৪২৫, ২০ জুলাই ২০১৮

bangla news

খালেদা জিয়া রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার: আমান

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৭-১২ ২:০১:৫৫ পিএম
মানববন্ধনে আমান উল্লাহ আমানসহ অন্যরা

মানববন্ধনে আমান উল্লাহ আমানসহ অন্যরা

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি খালেদা জিয়াকে ছাড়া নির্বাচনের স্বপ্ন দেখেন সেই নির্বাচন বাংলাদেশে আর হবে না, হতে দেওয়া হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও ডাকসুর সাবেক ভিপি আমান উল্লাহ আমান।

তিনি বলেছেন, বাংলাদেশে নির্বাচন হতে হলে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে। সংসদ ভেঙে দিতে হবে। সেই নির্বাচনে বাংলাদেশের জনগণ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে। ভোটাধিকার প্রয়োগের মধ্য দিয়ে দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে এবং খালেদা জিয়া আবারও সরকারপ্রধান হবেন।

বৃহস্পতিবার (১২ জুলাই) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে তারেক জিয়া সাইবার ফোর্স-এর উদ্যোগে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা, অবৈধ সাজা বাতিল এবং তারেক রহমানের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধনে তিনি একথা বলেন।

খালেদা জিয়া রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার দাবি করে আমান উল্লাহ আমান বলেন, খালেদা জিয়াকে অবৈধভাবে মিথ্যা মামলায় সাজা দেওয়া হয়েছে। অবিলম্বে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হোক আর যদি খালেদা জিয়াকে মুক্তি না দেওয়া হয় তাহলে গণআন্দোলনের মাধ্যমে মুক্ত করা হবে।  
 
আমান বলেন, খালেদা জিয়া আন্দোলন করে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। আজ তাকে যা ইচ্ছা তাই বলা হচ্ছে। খালেদা জিয়ার আপোষহীন নেতৃত্বের কারণেই স্বৈরতন্ত্রের পতন হয়ে গণতন্ত্র মুক্ত হয়েছিল। 

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ফাতেমা খানমের সভাপতিত্বে এবং দেশ বাঁচাও, মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপনের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন-বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিম উদ্দীন আলম, রফিক শিকদার, জাগপার সাধারণ সম্পাদক খোন্দকার লুৎফর রহমান, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক পলাশ মণ্ডল, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদরুল আলম রানা প্রমুখ।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৪০০ ঘণ্টা, জুলাই ১২, ২০১৮
এমএইচ/আরআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa