[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৮ আষাঢ় ১৪২৫, ২২ জুন ২০১৮

bangla news

খালেদা জিয়ার মুক্তি ছাড়া কিছুই সম্ভব নয়

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৬-১৩ ৯:৪৫:৪৩ পিএম
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও অন্য অতিথিরা

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও অন্য অতিথিরা

ঢাকা: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ছাড়া এই দেশে কোনো কিছুই সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার (১৩ জুন) রাজধানীর বিজয়নগরে এক হোটেলে বাংলাদেশ লেবার পার্টি আয়োজিত ইফতার মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন। 

তিনি বলেন, ‘আজ এই ভয়ঙ্কর দানব সরকারকে সরাতে হবে। তার জন্য জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করে আমাদের গণতন্ত্র ও মানুষের অধিকার ফিরিয়ে আনতে হবে। আন্দোলনের মধ্য দিয়ে আমাদের বিজয়ী হতে হবে। দেশনেত্রীর মুক্তি ছাড়া এই দেশে কোনো কিছুই সম্ভব নয়। তাকে 6মুক্ত করতে হবে। সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করতে হবে, সোনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে, নিরপেক্ষ সরকার দিতে হবে’।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সব আইনগত বিষয়ে হাইকোর্ট থেকে জামিন পাওয়ার পরও তাকে (খালেদা) মুক্তি দেওয়া হয়নি। কি করে খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে দেওয়া যায়, সেই চেষ্টা করছে সরকার। দেশনেত্রী জনগণের নেত্রী। হাজারো চেষ্টা করেও তাকে জনগণ থেকে দূরে রাখা যাবে না। আন্দোলনের মধ্য দিয়ে তাকে মুক্ত করে আনা হবে’। 

ফখরুল আলো বলেন, ‘খুন, গুম, অত্যাচার, নির্যাতনের মধ্য দিয়ে একটি ভয়ঙ্কর রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করেছে সরকার। এই দানব সরকারকে সরাতে হবে। আমরা জনগণের শক্তিতে বিশ্বাস করি। আমরা জনগণের শক্তি নিয়েই নির্বাচনে জিতেছি। কারো দয়ায় আমরা নির্বাচনে জিততে চাই না, জিতিনি। আমরা স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্বে বিশ্বাস করি। আমরা জনগণের শক্তি নিয়েই বিজয় ছিনিয়ে আনতে চাই’। 

লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের সভাপতিত্বে ইফতার মাহফিলে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি এমাজউদ্দীন আহমেদ, বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, এনাম আহমেদ চৌধুরী, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, শামসুজ্জামান দুদু, বরকত উল্লাহ বুলু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার হায়দার আলী, সুকোমল বড়ুয়া,
নয়াদিগন্তের সম্পাদক আলমগীর মহিউদ্দীন প্রমুখ।

এছাড়াও ২০ দলীয় জোট নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জামায়াতের নির্বাহী পরিষদ সদস্য মাওলানা আব্দুল হালিম, জাতীয় পার্টি (জাফর) মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার, প্রেসিডিয়াম সদস্য আহসান হাবীব লিঙ্কন, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মোহাম্মাদ ইব্রাহিম বীরপ্রতীক, এনপিপির চেয়ারম্যান ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, মুসলিম লীগের মহাসচিব জুলফিকার বুলবুল, লেবার পার্টির মহাসচিব ফরিদ উদ্দীন আহমেদ প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৮ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০১৮
এমএইচ/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa