[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৫ মে ২০১৮

bangla news

খাদ্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধিতে ফখরুলের উদ্বেগ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-১৬ ২:০৯:৪২ পিএম
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলগমীর/ফাইল ফটো

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলগমীর/ফাইল ফটো

ঢাকা: রমজানে খাদ্যপণ্যের অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, রমজান মাসে নিয়ন্ত্রণহীন গতিতে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের আকাশচুম্বী দাম বাড়ায় জনগণের নাভিশ্বাস উঠেছে। ক্ষমতাসীনদের সিন্ডিকেটের কারণেই নিত্যপণ্যের দামের এই লাগামহীন অবস্থা।

বুধবার (১৬ মে) দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল বলেন, পেঁয়াজ, রসুন, চিনি, কাঁচা মরিচ, বেগুন, আলু, হলুদ, আদা, টমেটো, শসাসহ নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্যের দাম বৃদ্ধি এবং তা সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে যাওয়ায় আমি গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি।

‘বিভিন্ন ধরনের মসলাসহ খাদ্যপণ্যের দাম কেজিপ্রতি ১০/১৫ টাকা থেকে শুরু করে ৪০/৫০ টাকা পর্যন্ত বাড়ায় নিম্ন আয়ের মানুষের অবস্থা এখন বিপন্ন। পেঁয়াজের কেজিপ্রতি মূল্য ২০ টাকা থেকে আড়াই গুণ ও তিন গুণ বেড়েছে। ৭০/৮০ টাকা কেজির নিচে বাজারে কোনো কাঁচা শাক-সবজি পাওয়া যাচ্ছে না। বেগুন ও ধনে পাতার মূল্য হু হু করে বাড়ছে।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, পবিত্র মাস কেন্দ্র করে অসাধু ব্যবসায়ীরা মুনাফা লাভের জন্য কারসাজি করে দ্রব্যের মূল্য বাড়িয়ে মানুষকে ভোগান্তিতে ফেলেছেন। মানুষের কষ্ট লাঘব করা দূরে থাক, বরং সরকার চায় তাদের লোকজন সিন্ডিকেট করে জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধির মাধ্যমে আঙুল ফুলে কলা গাছ হয়ে উঠুক।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০৩ ঘণ্টা, মে ১৬, ২০১৮
এমএইচ/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa