অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের দাবি এলডিপির
[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৫, ১২ আগস্ট ২০১৮
bangla news

অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের দাবি এলডিপির

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-০৮ ৯:৩৩:১৮ পিএম
এলডিপির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সম্মেলন

এলডিপির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সম্মেলন

ঢাকা: পুলিশ, র‌্যাব এবং গুম-খুনের ভয়ে সাধারণ মানুষ কোনো কথা বলছেনা বলে মন্তব্য করেছেন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি ড. কর্নেল অলি আহমেদ বীর বিক্রম।

সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেছেন, জনগণ যখন রাজপথে নেমে আসবে তখন অন্য কোনো পথ আপনাদের থাকবে না। সময় থাকতে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের ব্যবস্থা আপনাদেরই দিতে হবে।

মঙ্গলবার (৮ মে) বিকেলে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটের মুক্তিযোদ্ধা হলে এলডিপির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন অলি আহমেদ।

দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে কর্নেল অলি বলেন, জনগণের মনের কথা বুঝতে না পারলে আমরা নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবো। রাজনীতি করতে গেলে জনগণের হৃদয়ের কথা উপলব্ধি করতে হবে। দলের প্রতি দায়বদ্ধতা ও মায়া থাকতে হবে। আজ হোক কাল হোক নির্বাচন হবেই। আমরা কতটুকু প্রস্তুত রয়েছি?

তিনি বলেন, সরকার সম্পর্কে জনগণের ভাবনা স্পষ্ট। জনগণের মনের ভাষা সরকার বুঝতে পারছে না। প্রতিটি ক্ষেত্র দুর্নীতিগ্রস্ত। প্রশাসনিকভাবে দুর্নীতিগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। রাস্তা-ঘাট, ফুটপাত দখল করে জনগণের অধিকার হরণ করছে। সাধারণ মানুষ ভোট দেয়ার কোনো সুযোগ পাচ্ছে না। বিনা ভোটে ১৫৪ জন সংসদ সদস্য। এই ন্যক্কারজনক ঘটনা পৃথিবীর আর কোনো দেশে নেই।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে কর্নেল অলি বলেন, আপনারা যেটা ন্যায় ও সঠিক সেটা লিখতে পারছেন না। শিক্ষাক্ষেত্রে চরম দুর্নীতি চলছে। আমাদের রাষ্ট্রপতি যদি বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা না করিয়ে ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসা করাতেন তাহলে সাধারণ মানুষ আরো উন্নত চিকিৎসা পেত। এরশাদের বিরুদ্ধে সমগ্র জাতি যেভাবে নেমে এসেছিল তার চেয়েও ভয়াবহ এই সরকারের পরিণতি। সুষ্ঠু নির্বাচন হবে কি না তা সরকারকেই নিশ্চিত করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনি তো বঙ্গবন্ধুর কন্যা। জাতি আপনার কাছে অনেক কিছু প্রত্যাশা করে। উন্নয়নের নামে যেভাবে লুটপাট হয়েছে সেই উন্নয়ন লুটপাটের অথৈ সাগরে হারিয়ে গেছে।

অবিলম্বে খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করে ২০ দলীয় জোটের এই নেতা বলেন, ন্যায়বিচার পেলে খালেদা জিয়া কারাগারে এভাবে মানবেতর জীবনযাপন করতেন না।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক এএসএম মহিউদ্দিনের সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন এলডিপির মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুল করিম আব্বাসি, আবু ইউসুফ খলিলুর রহমান, আব্দুল গনি, ইঞ্জি. কামাল উদ্দিন মোস্তফা, ভাইস-চেয়ারম্যান হামিদুর রহমান খান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩০ ঘণ্টা, মে ০৮, ২০১৮
এমএইচ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa