[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ৭ আষাঢ় ১৪২৫, ২০ জুন ২০১৮

bangla news

‘মুক্ত খালেদাকে নিয়েই নির্বাচনে যাবে বিএনপি’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৩-০৯ ১২:৩৩:৩৭ পিএম
সভায় বক্তব্য রাখছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ছবি: বাংলানিউজ

সভায় বক্তব্য রাখছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে মুক্ত করেই তাকে নিয়ে বিএনপি নির্বাচনে যাবে বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

খালেদা জিয়াকে ‘গণতন্ত্রের প্রতীক’ অভিহিত করে তিনি বলেছেন, তাকে কারাগারে রেখে বিএনপি নির্বাচনে যাবে বলে যারা ভাবছেন, তারা অলীক স্বর্গে বাস করছেন। ‘দেশনেত্রীকে’ অবশ্যই মুক্তি দিতে হবে এবং মুক্ত ‘দেশনেত্রীকে’ নিয়েই আমরা নির্বাচনে যাবো। 

শুক্রবার (৯ মার্চ) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় ফখরুল এ কথা বলেন। ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি ও অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে’ এ সভার আয়োজন করে জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর)। 

বিএনপি মহাসচিব বলেন, সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে ভয়াবহ দুঃশাসন চালাচ্ছে। এই সংকট শুধু বিএনপির নয়, ২০ দলীয় জোটের একার নয়, এই সংকট সমগ্র জাতির। দেশ আজ অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে, এই সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসনের কবলে পড়েছে। এখানে জনগণের স্বাধীনতা নেই, মানুষের ভোটাধিকার নেই। মানুষের ন্যূনতম অধিকার নেই। 

জিয়া অরফারেনজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা প্রসঙ্গে ফখরুল বলেন, এই মামলা পুরোপুরি জাল-জালিয়াতির ওপর প্রতিষ্ঠিত। এই মামলায় বিচারিক আইন-কানুন উপেক্ষা করে শুধু খালেদা জিয়াকে কারাগারে নিতে হবে, তাই সাজা দেওয়া হয়েছে। তাদের মূল উদ্দেশ্য যেন খালেদা জিয়া, বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটকে নির্বাচনের বাইরে রেখে তারা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আবারও ক্ষমতায় যেতে পারে। 

কারাবন্দি খালেদা জিয়া আইনি অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন দাবি করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, এ ধরনের মামলায় সাধারণ নাগরিক হিসেবে তার সাজা হওয়ার পরই জামিন পাওয়ার কথা। কিন্তু সেই আইনি অধিকার থেকে তিনি বঞ্চিত হচ্ছেন। 

ফখরুল বলেন, ১৯৭৫ সালে তারা ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করতে বাকশাল কায়েম করেছিল। একইভাবে ভিন্ন পোশাকে তারা একদলীয় শাসন প্রতিষ্ঠার পাঁয়তারা করছে। জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করে বেশি দিন ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারবে না। ক্ষমতায় যেতে চাইলে সকল রাজবন্দীকে মুক্তি দিতে হবে, খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে, জনগণের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। তাহলেই ক্ষমতায় যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। 

সরকার ‘ফ্যাসিবাদ’ ভয়াবহভাবে গোটা সমাজে ছড়িয়ে দিয়েছে অভিযোগ করে ফখরুল বলেন, এ ফ্যাসিবাদ থেকে মুক্ত হতে সব রাজনৈতিক দল ও সংগঠন, সুশীল সমাজ ও গণতন্ত্রকামী মানুষকে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলনে নামতে হবে।

জাতীয় পার্টির ( কাজী জাফর) ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ড. টিআইএম ফজলে রাব্বি চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন দলের মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) সভানেত্রী রেহানা প্রধান, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাড. মাওলানা রুহুল আমিন, খালেকুজ্জামান চৌধুরী প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১২১৯ ঘণ্টা, মার্চ ০৯, ২০১৮
এএম/এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa