[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২০ মে ২০১৮

bangla news

এটা ম্যাডামের গাড়ি, ম্যাডাম জেলে!

মফিজুল সাদিক, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০২-০৮ ৮:১৭:০২ পিএম
খালেদাকে বহনকারী গাড়ি

খালেদাকে বহনকারী গাড়ি

ঢাকা: বেলা ৩টা ৪ মিনিট। সারিবদ্ধভাবে চারটি গাড়ি বকশীবাজারে বদরুন্নেসা মহিলা কলেজের সামনে রাখা। ড্রাইভার ছাড়া গাড়িতে কোনো যাত্রী নেই। তবে গাড়িগুলো ঘিরে উৎসুক মানুষের ভিড়।

কার গাড়ি? জানতে চাইলে মুকুল নামে এক চালক বাংলানিউজকে বলেন, এটা ম্যাডামের বিকল্প গাড়ি। ম্যাডামের গাড়ি যখন নষ্ট হয় তখন এই সাদা গাড়িতে ম্যাডাম চড়েন। এখন ম্যাডামকে ছাড়াই খালি গাড়ি নিয়ে যাচ্ছি। ম্যাডামকে পুলিশ জেলে নিয়ে গেছে!

সারি সারি চারটি গাড়ি দাঁড়িয়ে ছিলো। একটু পরে আরও চারটি গাড়ি যোগ হলো। আটটি গাড়িই খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরের। এর মধ্যে দুটি খালেদা জিয়ার এবং অন্য ছয়টি চেয়ারপারসন সিকিউরিটি ফোর্সের (সিএসএফ)। আদালত প্রাঙ্গণ থেকে খালেদা জিয়াকে ছাড়াই চলে আসতে হয়েছে গাড়িগুলোকে। চোখের পানি মুছতে মুছতে পায়ে হেঁটে গাড়িগুলোর কাছে এসে পৌঁছান সিএসএফ’র অনেক সদস্য।

সিএসএফ সদস্য জয়নাল আবেদীন বলেন, আজকে সাতটা বছর ম্যাডামের সিকিউরিটি দিচ্ছি। আজকে ম্যাডামকে ছাড়াই ফিরতে হচ্ছে!

বৃহস্পতিবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পুরান ঢাকার বকশীবাজারে কারা অধিদফতরের প্যারেড গ্রাউন্ড মাঠে স্থাপিত বিশেষ আদালতে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ঘোষণা করা হয়। 

মামলার প্রধান আসামি খালেদা জিয়াকে ৫ বছর কারাদণ্ড এবং তারেক রহমানসহ অন্য চার আসামিকে ১০ বছর করে কারাদণ্ডের আদেশ দেন বিশেষ জজ ৫-এর বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

রায়কে ঘিরে সারাদিন পুলিশি নিরাপত্তায় ঢাকা পড়েছিলো রাজধানীর প্রতিটি সড়ক। বাসভবন থেকে খালেদা জিয়ার কারাগারে যাওয়ার পথে দু’একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়া তেমন তেমন কোনো নাশকতার সৃষ্টি হয়নি। রায়ে ৫ বছরের সাজা হওয়ার পর রাজধানীর নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয় খালেদা জিয়াকে।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০১৮
এমআইএস/এমজেএফ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   খালেদার রায়

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa