ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ কার্তিক ১৪২৪, ১৭ অক্টোবর ২০১৭

bangla news

ওয়াদা বরখেলাপ করা আ’লীগের বৈশিষ্ট্য

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-১০-১৩ ১:২২:৩৯ পিএম
ওয়াদা বরখেলাপ করা আ’লীগের বৈশিষ্ট্য

ওয়াদা বরখেলাপ করা আ’লীগের বৈশিষ্ট্য

ঢাকা: ওয়াদা বরখেলাপ করা, জগেণের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করা আওয়ামী লীগের বৈশিষ্ট্য, এটা শেখ হাসিনার বৈশিষ্ট্য, খালেদা জিয়ার নয় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

শুক্রবার (১৩ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে প্রধান বক্তা হিসেবে এসব কথা বলেন তিনি।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে বিভিন্ন মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে এ মানববন্ধনের আয়োজন করেন জাতীয়তাবাদী মহিলা দল।

মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের সভাপতিত্বে এ মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান।

মানববন্ধনে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে রিজভী আহমেদ বলেন, আপনি বলেছিলেন এরশাদের অধীনে যারা নির্বাচন করবেন তারা জাতীয় বেঈমান। খালেদা জিয়া এরশাদের অধীনে নির্বাচন করেননি। কিন্তু আপনি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ওয়াদা ভঙ্গ করেছিলেন। খালেদা জিয়া ৯ বছর অটুট সহসী মনোবল নিয়ে, এরশাদের বিরুদ্ধে আনন্দোলন করে, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন করে, জনগণের রায় নিয়ে প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন।

বিএনপির এই মুখপাত্র আরো বলেন, এই দেশটাকে তো আওয়ামী লীগ আর ও তার প্রধান পৈত্রিকসম্পত্তি মনে করেন, এখানে আর কারো কথা বলার অধিকার নাই। রাজনীতি করা অধিকার নাই। এখানে আওয়ামী লীগের তাণ্ডব চলবে। তারা আজকে দেশের সর্বোচ্চ আদালতকে টার্গেট করে, ধ্বংস করে, এখন দেশের বৃহত্তম রাজনৈতিক দলের নেত্রী খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করছেন। তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন।

২০০৭ সালের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের মামলার কথা উল্লেখ করে রিজভি আহমেদ বলেন, ১/১১’র সরকার মামলা দিয়ে, মানসিক নির্যাতন করে, তার দুই সন্তানকে গ্রেফতার করার পরেও দেশের মাটি মানুষের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা না করে এই মাটি কামড়ে ধরে থেকে গেছে। তাকে মঈনুদ্দিন-ফখরুদ্দীন সরাতে সক্ষম হয়নি।

আওয়ামী লীগ সরকার একই ধারাবাহিকতায় চলছে দাবি করে রিজভী বলেন, একই মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া এবং বর্তমান ভোটার বিহীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম ছিলো। কিন্তু শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হয়ে নিজের নামের মামলাগুলো প্রত্যাহার করিয়েছেন। জিয়ার মামলাগুলো রেখে দিয়েছেন।

মামলা দিয়ে খালেদা জিয়াকে দমানো যবে না উল্লেখ করে রিজভী আহমেদ বলেন, বাংলাদেশের তিনবারের প্রধানমন্ত্রী, দেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দলের নেত্রী খালেদা জিয়া লন্ডনে অবস্থান করছেন কেনো সেটা সবাই জানেন। তার ডান চোখের অপারেশন করা হয়েছে। তিনি চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে ফিরে আসার সময় তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। খালেদা যেন ভয় পায়, তিনি যেন দেশে ফিরে না আসে। মামলা দিয়ে তাকে দমিয়ে রাখা যাবে না।

মানববন্ধনে মহিলা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদের পরিচালনায় মহিলাদলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৩, ২০১৭
এসআইজে/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Loading...
Alexa