Alexa
ঢাকা, রবিবার, ১০ বৈশাখ ১৪২৪, ২৩ এপ্রিল ২০১৭
bangla news
symphony mobile

‘কল্পিত খবর’ নিয়ে বিএনপি নেতাদের মাতামাতি!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৪-২১ ৫:৪৫:৪২ পিএম
বক্তব্য রাখছেন শামসুজ্জামান দুদু, তার ডান পাশে খায়রুল কবির খোকন এবং বাম পাশে (দ্বিতীয় জন) সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। ছবি: কাশেম হারুন

বক্তব্য রাখছেন শামসুজ্জামান দুদু, তার ডান পাশে খায়রুল কবির খোকন এবং বাম পাশে (দ্বিতীয় জন) সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। ছবি: কাশেম হারুন

ঢাকা: একটি অসমর্থিত সূত্রের বরাত দিয়ে টাইমস অব ইন্ডিয়া গত ১৯ এপ্রিল সন্ধ্যায় খবর দেয়, সামনের সপ্তাহে ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত ফের ঢাকা সফরে আসছেন। ব্যস, শুরু হয়ে গেল বিএনপি নেতাদের মাতামাতি। কিন্তু সেই খবর প্রত্যাহার হয়ে গেল, তবু মাতামাতি থামলো না দেশের অন্যতম শীর্ষ দলটির গুরুত্বপূর্ণ পর্যায়ের নেতৃত্বের।

শুক্রবার (২১ এপ্রিল) দলটির উদ্যোগে বা তাদের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কোনো অনুষ্ঠানে নেতৃস্থানীয় কেউ বক্তৃতা করলে বেশিরভাগই বলেছেন জেনারেল বিপিনের কল্পিত ‘সফর’ বিষয়ে।

ভারতীয় সেনাপ্রধানের ঢাকা সফরের খবরটি সত্য নয় বলে টাইমস অব ইন্ডিয়া তা উঠিয়ে নিলেও সেটাকে কানে না তুলে তারা বলেই চলেছেন, ‘জেনারেল রাওয়াতের বারবার ঢাকা সফর উদ্বেগজনক!’ তারা বরাবরের মতোই ‘শঙ্কাও’ প্রকাশ করে চলেছেন।

যেমন শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এক মানববন্ধনে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বক্তৃতাকালে বেশিরভাগ সময় গলা ফাটিয়েছেন বিপিন রাওয়াতের ‘কল্পিত সফরের’ কথা বলতে বলতেই। তিনি তার ‘শঙ্কা’র কথাও প্রকাশ করতে থাকেন।

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশাররফ হোসেনসহ শীর্ষ নেতারা।

এই মানববন্ধনেই প্রশ্ন ওঠে, বিএনপির নেতারা যে কল্পিত সফর নিয়ে বক্তৃতা করছেন, সে খবরটি যে প্রত্যাহার করা হয়েছে তার কি খোঁজ তারা রাখেননি! এ নিয়ে উপস্থিত দু’একজন হাসাহাসিও করেন।

কূটনৈতিক সূত্র বলছে, টাইমস অব ইন্ডিয়া ‘অসমর্থিত’ সূত্রের বরাত দিয়েই খবরটি প্রকাশ করেছিল। এর কোনো কূটনৈতিক সূত্র তারাও দেয়নি। স্বভাবতই ঢাকাও এই কল্পিত সফরের ব্যাপারে অবগত নয়।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার সেদিন প্রকাশিত খবরটি দেখে দিল্লি ও ঢাকার অনেক সংবাদমাধ্যমও এটি প্রকাশ করে। তবে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমটি সে খবর প্রত্যাহার করলেও এটিই এখন দেখা যাচ্ছে না কোনো সংবাদমাধ্যমে। 

যদিও টাইমস অব ইন্ডিয়ার ডেস্কটপ ভার্সনে মাঝেমধ্যেই প্রথম খবরটি দেখা যাচ্ছে। তবে মোবাইল ভার্সন থেকে এটিকে সরিয়ে নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪১ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০১৭
এইচএ/

আরও পড়ুন
** ‘বিএনপি পা পা করে ক্ষমতার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে’

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

You May Like..