Alexa
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ শ্রাবণ ১৪২৪, ২৫ জুলাই ২০১৭

bangla news

নির্বাচনে অংশ নেবে কিনা তা বিএনপির বিষয়

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৪-২১ ১২:২০:২৩ পিএম
আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ

ঢাকা: আগামী  জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে কি নেবে না সেটা বিএনপি’র বিষয়, বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ।

শুক্রবার (২১ এপ্রিল) বেলা ১১টায় আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডি রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

হানিফ বলেন, আমরা চাই আগামী সংসদ নির্বাচনে বিএনপিসহ সব দল অংশগ্রহণ করুক। নির্বাচনে অংশ নেওয়া বিএনপির গণতান্ত্রিক অধিকার। না নেওয়াও তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার।  

তিনি বলেন, বিএনপি বিভিন্ন সময় সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার ও  অসংলগ্ন কথা বলে জনগণের কাছে বিএনপি মানসিক ও রাজনৈতিক প্রতিবন্ধী রাজনৈতিক দল হিসেবে প্রমাণ করেছে।

আগামী নির্বাচন নিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এক বক্তব্যের প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে হানিফ বলেন, আগামী নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী। বিএনপি যদি মনে করে তাদের প্রতি জনগণের কতটুকু সমর্থন আছে তা পরীক্ষা করতে নির্বাচনে অংশ নিতে পারে। বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেবে কি না, তাদের নিবদ্ধন থাকবে কি না সেটা ওই দলের ব্যাপার। বিএনপির নির্বাচনে অংশ নেওয়া এবং না নেওয়ার গণতান্ত্রিক অধিকার রয়েছে। সে সিদ্ধান্ত নেওয়া বিএনপির বিষয়। তবে আমরা আশা করি সব রাজনৈতিক দল এ নির্বাচনে অংশ নেবে।

মহাবুব উল আলম হানিফ বলেন, বিএনপি সব সময় বলে থাকে তারা ইসলাম ধর্মের ধারক বাহক। কওমী মাদরাসার শিক্ষার্থীদের স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য সরকার উদ্যোগ নিয়েছে এটা বিএনপির গাত্রদাহ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তারা যদি ধর্মের ধারক বাহক হয়ে থাকে তাহলে গাত্রদাহ কেন? আসলে তারা ধর্মকে রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার করে।

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী ভুটান সফর করেছেন অটিজম নিয়ে সেখানে একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে। অটিজম শিশুদের অনেকই মেধাবী, তাদের জন্য উদ্যোগ নেওয়া হলে তারা সমাজের জন্য অবদান রাখতে পারবে। এ জন্য প্রধানমন্ত্রীর মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুল যে দায়িত্ব নিয়েছেন, তা আন্তর্জাতিক মহলে প্রশংসিত হয়েছে। এটা নিয়েও বিএনপির গাত্রদহ। হাওর এলাকার মানুষের দুঃখ-দুর্দশায় তারা পাশে দাঁড়াবে কি তা নিয়ে মিথ্যাচার করে রাজনীতি করছে। আসলে বিএনপি মানসিকভাবেই প্রতিবন্ধী হয়ে গেছে, মানসিকভাবে বিকারগ্রস্থ হয়ে গেছে। তারা ক্ষমতায় থাকতে দেশের উন্নয়নে অদক্ষতা এবং ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছিলেন। সেই অথর্ব বিএনপির অথর্ব মহাসচিব প্রতিনিয়ত আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন নিয়ে মিথ্যাচার করছে বলেও মন্তব্য করেন হানিফ।

হাওর এলাকায় ফসরের ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে বিএনপি মহাসচিবের বক্তব্যের সমালোচনা করে হানিফ বলেন, সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে ঈর্ষান্বিত হয়ে বিএনপি অব্যাহতভাবে মিথ্যাচার করে যাচ্ছে। হাওরে কৃষকের ফসলের ক্ষতি হওয়ার পর থেকে সরকার, স্থানীয় আওয়ামী লীগ তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। ত্রাণমন্ত্রী এখনও সেখানে অবস্থান করছেন। স্বয়ং দেশের রাষ্ট্রপতি সেখানে ঘুরে এসেছেন। এটা রাষ্ট্রপতির নিজের এলাকা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দিয়েছেন যতো দিন ক্ষতিগ্রস্থদের পুনর্বাসন না হবে ততো দিন পর্যন্ত সরকার তাদের সহযোগিতা করে যাবে। সরকারের এই পদক্ষেপের পরও বিএনপি মিথ্যাচার করছে। পানিবন্দি হাওর এলাকায় তারা সহায়তার বদলে দূর্গত মানুষদের নিয়ে রাজনীতি করছে।

 এ ধরণের রাজনীতি থেকে বিএনপিকে বেরিয়ে আসার আহ্বান জানান হানিফ।  

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহর লাইলী, ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, বিজ্ঞান বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সবুর, কার্যনির্বাহী সদস্য এসএম কামাল হোসেন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১২২০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০১৭ (আপডেট সময়: ১৪৩০ ঘণ্টা)
এসকে/জিপি/বিএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

রাজনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

You May Like..
Alexa