ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ কার্তিক ১৪২৪, ১৯ অক্টোবর ২০১৭

bangla news

ধর্মবিরোধিতা মুক্তচিন্তা নয়, নোংরামি: প্রধানমন্ত্রী

বিশেষ সংবাদদাতা | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-০৪-১৪ ১২:৫১:৫৫ পিএম

ধর্ম নিয়ে যারা বাড়াবাড়ি করে তাদের কঠোর সমালোচনার পাশাপাশি যারা ধর্মের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে নোংরামি করে তাদেরও তীব্র নিন্দা করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ঢাকা: ধর্ম নিয়ে যারা বাড়াবাড়ি করে তাদের কঠোর সমালোচনার পাশাপাশি যারা ধর্মের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে নোংরামি করে তাদেরও তীব্র নিন্দা করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে এক শুভেচ্ছা বক্তৃতায় এ প্রসঙ্গে বিস্তারিতভাবে নিজের মত তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। সকালে গণভবনে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানাতে এলে তাদের উদ্দেশে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখছিলেন শেখ হাসিনা।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, দলের উপদেষ্টা পর্ষদের সদস্য আমীর হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম ও সতীশচন্দ্র রায়সহ সিনিয়র নেতা-কর্মী থেকে শুরু করে তৃণমূল পর্যায়েরও নেতা-কর্মীর প্রতিনিধিরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমার ধর্ম সম্পর্কে কেউ যদি নোংরা কথা লেখে, সেটা কেনো আমরা বরদাশত করবো?’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘ফ্যাশন দাঁড়িয়ে গেছে ধর্মের বিরুদ্ধে কিছু লিখলেই তারা মুক্তচিন্তার ধারক! কিন্তু আমি এখানে কোনও মুক্ত চিন্তা দেখি না। আমি দেখি নোংরামি।’

“এত নোংরা নোংরা কথা কেন লিখবে? আমি আমার ধর্ম মানি, যাকে আমি নবি মানি তার সম্পর্কে নোংরা কথা কেউ যদি লেখে সেটা কখনোই আমাদের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। ঠিক তেমনি অন্য ধর্মের যারা তাদের সম্পর্কে কেউ কিছু লিখলে তাও কখনো গ্রহণযোগ্য হবে না। যারা এগুলো করে তা তাদের সম্পূর্ণ নোংরা মনের পরিচয়, বিকৃত মনের পরিচয়।” বলেন শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, এটা পুরোপুরিই তাদের চরিত্রের দোষ এবং তারা বিকৃত মানসিকতার।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘একজন মুসলমান হিসেবে আমি প্রতিনিয়ত আমার ধর্মকে অনুসরণ করে চলি। কাজেই সে ধর্মের বিরুদ্ধে কেউ লিখলে আমি কষ্ট পাই।’

এসব লেখার জন্য কোনও অঘটন ঘটলে তার দায় সরকার নেবে না, উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, সবাইকেই সংযমতা নিয়ে চলতে হবে, শালীনতা বজায় রেখে চলতে হবে। অসভ্যতা কেউ করতে পারবে না। আর তা করলে তার দায়িত্ব আমরা নেবো না।

তবে এটাও বলছি, মানুষকে খুন করার মধ্য দিয়ে কোনও সমস্যার সমাধান নেই। যারা এগুলোর জন্য খুন করছে তাও ইসলাম বিরোধী। বিচারের দায়িত্ব আল্লাহ তাদের দেয়নি। যাদের কথা পছন্দ হলো না, তাদের খুন করে ফেলার মতো ঘটনাও সরকার বরদাশত করবে না। 

সবাইকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের যে গতিধারা সৃষ্টি হয়েছে, সেটা যেনো অব্যাহত থাকে সেই প্রত্যাশা করি।

দেশবাসীর আনন্দ উদযাপন ভালো লাগছে

বাংলাদেশ সময় ১২৪৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৪, ২০১৬
এমএমকে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Loading...
Alexa