মেঘনায় নিখোঁজ ২ শিক্ষার্থীর একজনের মরদেহ উদ্ধার
[x]
[x]
ঢাকা, সোমবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৩ আগস্ট ২০১৮
bangla news

মেঘনায় নিখোঁজ ২ শিক্ষার্থীর একজনের মরদেহ উদ্ধার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৭-১৫ ১২:০৮:০৩ পিএম
ডুবরি দল নিখোঁজদে উদ্ধারে চাষ্টা চালাচ্ছে

ডুবরি দল নিখোঁজদে উদ্ধারে চাষ্টা চালাচ্ছে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: শেলফি তুলতে গিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার মেঘনা নদীতে নটরডেম বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই শিক্ষার্থী নিখোঁজের ১৬ ঘণ্টা পর সানিজদা বিনতে তানভীরের (২১) মরদেহ উদ্ধার করেছে ডুবরি দল।

রোববার (১৫ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নৌবাহিনী ১২ সদস্যের ও ফায়ার সার্ভিসের সয় সদস্যের দুই ইউনিটের ডুবরি দলের যৌথ চেষ্টায় ভৈরবের রেল ব্রিজের নিচ থেকে মরদেহটি উদ্ধার কর হয়।

নিহত তানভীর ওই বিশাববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী বলে জানা যায়। 

আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মৌসুমী বাইন হিরা এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে বলেন, বাকি আরেক শিক্ষার্থীকে উদ্ধারের জন্য অভিযান অব্যহত রয়েছে। 

শনিবার (১৪ জুলাই) সকালে ঢাকা থেকে নটরডেম বিশ্ববিদ্যিলয়ের কম্পিউটার সায়েন্স ও বিবিএ বিভাগের তৃতীয় বর্ষের সাত শিক্ষার্থী মেঘনা নদীতে ঘুরতে আসেন। পরে তারা সারাদিন রেলসেতু ও আশপাশ এলাকায় ঘুরে বিকেলে আশুগঞ্জের চর সোনারামপুর এলাকায় যান। সেখানে নদীর পাড়ে সেলফি তুলেন তারা। 

সেলফি তুলার একপর্যায়ে তানভীর পা পিছলে নদীতে পড়ে যান। এসময় তিনি পানিতে ডুবে গেলে তাকে উদ্ধারের জন্য মেহরাবও পানিতে নেমে ডুবে যান। তাদের উদ্ধারের জন্য পর্যায়ক্রমে বাকি পাঁচজন পানিতে নামলে তারাও ডুবে যান। 

পরে স্থানীয়রা নদীতে নেমে পাঁচজনকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসাপাতালে ভর্তি করে। তবে তানভীর ও মেহরাব নদীতে তলিয়ে যায়। 

বাংলাদেশ সময়: ১২০৮ ঘণ্টা, জুলাই ১৫, ২০১৮
জিপি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa