[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৬ শ্রাবণ ১৪২৫, ২২ জুলাই ২০১৮

bangla news

নৃত্য কবিতা আর গানে ’বর্ষা মঙ্গল’

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৭-১৪ ১০:২৪:৪১ এএম
‘বর্ষা মঙ্গল’ অনুষ্ঠান

‘বর্ষা মঙ্গল’ অনুষ্ঠান

হবিগঞ্জ: বলা হয়ে থাকে-জীবনের অজস্র পৃষ্ঠা এবং জীবনের সব কথা বলা যায়, দুই লাইনের কবিতায়। আর রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরও “এসেছে বরষা, এসেছে নবীনা বরষা, গগন ভরিয়া এসেছে ভুবন-ভরসা” কবিতায় তুলে ধরেছেন ষড়ঋতুর অন্যতম সৌন্দর্য্যমণ্ডিত, প্রাণপ্রাচুর্যে ভরপুর বর্ষা ঋতুকে।

কবিতাটির এই দু’টি লাইনকে সামনে রেখে আবৃত্তি, গান আর নৃত্য পরিবেশনার মধ্য দিয়ে হবিগঞ্জে উদযাপন করা হয়েছে ‘বর্ষা মঙ্গল’ অনুষ্ঠান।

শুক্রবার (১৩ জুলাই) রাত ৯টা থেকে ১১টা পর্যন্ত হবিগঞ্জ শিল্পকলা একাডেমিতে হবিগঞ্জ চারুকণ্ঠ শিল্পাঙ্গনের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠান উদযাপন করা হয়। 

মনোমুগ্ধকর নৃত্য পরিবেশের মধ্য দিয়ে শুরু হয় বর্ষা মঙ্গল অনুষ্ঠানের। একে একে স্থানীয় শিল্পীবৃন্দ পরিবেশন করেন কবিতা আবৃত্তি ও গান।
ব্যতিক্রমধর্মী এ অনুষ্ঠান উপভোগ করেন হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবির মুরাদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ফজলুল জাহিদ পাভেল, সিলেট মৃত্তিকা মঙ্গল সংগঠনের প্রধান ইভান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের প্রধান মনীর হোসেনসহ স্থানীয়রা।

অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন চারুকণ্ঠের সভাপতি অজয় রায়, সাধারণ সম্পাদক গৌরী রায়, সদস্য জুয়েল রায় এবং কল্লোল বণিক। মঞ্চ সজ্জায় ছিলেন নারায়ণ রায়।

আবৃত্তি করেন- অজয় রায়, কল্লোল বণিক, জুয়েল রানা, গৌরী রায় ও কাকলী দত্ত টুম্পা। গান পরিবেশন করেন শ্রাবনী, বন্যা, ভাবনা, রবীন্দ্র, উৎপল, শুভ, রিক্তা গোপ, জুয়েলরানাসহ আরো অনেক। 

এছাড়াও গৌতম আচার্যের দল এবং সুজন চৌধুরী প্রদর্শন করেন মনোমুগ্ধকর নৃত্য।

বাংলাদেশ সময়: ১০১৪ ঘণ্টা, জুলাই ১৪, ২০১৮
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa