[x]
[x]

বিআরটিএ অফিসে দুদকের সাঁড়াশি অভিযান, অনিয়মের সন্ধান 

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৭-১১ ৬:৪১:১২ পিএম
বিআরটিএ অফিসে দুদকের অভিযান। ছবি: বাংলানিউজ

বিআরটিএ অফিসে দুদকের অভিযান। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: হট লাইনে (১০৬) পাওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) অফিসে সাঁড়াশি অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ সময় রাষ্ট্রায়ত্ত এ সংস্থাটিতে নানা অনিয়মের সন্ধান পেয়েছে দুদক।

বুধবার (১১ জুলাই) বিআরটিএ-এর ইকুরিয়া কার্যালয়ে আকস্মিক এ অভিযান চালানো হয়। দুদকের উপ-পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য এ তথ্য জানান।

বাংলানিউজকে তিনি বলেন, দুর্নীতি দমন কমিশনের হট লাইনে যানবাহনের রেজিস্ট্রেশন ও ফিটনেস দিতে গিয়ে ঘুষ-লেনদেনের শিকার হওয়ার অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। তবে এ সময় ওই অফিসে অবস্থানরত দালালেরা পালিয়ে গেছে। 

তবে সেখানে নানা অনিয়মের চিত্র পেয়েছেন দুদকের উপ-পরিচালক খায়রুল হুদার নেতৃত্বে পরিচালিত টিমের সদস্যরা। 

দুদক জানায়, ২০০২ সালের আগের পুরাতন ও অচল হওয়া অসংখ্য তিন চাকার ছোট যানবাহন ‘মিশুক’কে বেআইনিভাবে সিএনজিকরণ প্রক্রিয়া চলছে। বিআরটিএ-এর ওই অফিসে আনা বেশকিছু মিশুকে ফেব্রিকেটেড চেসিস নম্বর লাগানো হয়েছে, যা রেজিস্ট্রেশন করার জন্য আনা হয়। দুদক টিম তাৎক্ষণিক এ বেআইনি কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়। 

অভিযানের সমন্বয়কারী ও দুদক মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মদ মুনীর চৌধুরী বাংলানিউজকে জানান, বিআরটিএ-কে অবশ্যই দুর্নীতির কবল থেকে মুক্ত করে নির্বিঘ্ন সেবা দেওয়া নিশ্চিত করতে হবে। বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ নিজেদের অফিস দালালমুক্ত না করলে কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে দুদক কঠোর পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৩ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০১৮
আরএম/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   দুদক

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa