শিমুলিয়ায় গাড়ির অপেক্ষায় ফেরি, চাপ সি-বোট ও লঞ্চে
[x]
[x]
ঢাকা, শনিবার, ২ ভাদ্র ১৪২৫, ১৮ আগস্ট ২০১৮
bangla news

শিমুলিয়ায় গাড়ির অপেক্ষায় ফেরি, চাপ সি-বোট ও লঞ্চে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৬-১৪ ১২:২৩:২০ পিএম
গাড়ির অপেক্ষায় ফেরি, যাত্রীদের চাপ লঞ্চে। ছবি: বাংলানিউজ

গাড়ির অপেক্ষায় ফেরি, যাত্রীদের চাপ লঞ্চে। ছবি: বাংলানিউজ

মুন্সিগঞ্জ: শেষ মুহূর্তে দেশের অন্যান্য ফেরি ঘাট, বাস টার্মিনাল ও লঞ্চঘাটে উপচে পড়া ভিড় থাকলেও ব্যতিক্রম দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার অন্যতম প্রবেশদ্বার শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে।

মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ঘাটে গাড়ির অপেক্ষায় বেকার বসে আসে ফেরিগুলো। তবে লঞ্চ ও সি-বোটে যাত্রীদের চাপ লক্ষ্য করা গেছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ জুন) ভোর থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত শিমুলিয়া ঘাটের এমন চিত্র দেখা গেছে। 

বিআইডব্লিউটিসি’র শিমুলিয়া ঘাট উপ-মহাব্যবস্থাপক শাহ মো. খালেদ নেওয়াজ বাংলানিউজকে জানান, ঘাটে যেসব গাড়ি আসছে সেগুলো সরাসরি ফেরিতে উঠে যাচ্ছে। কোনো গাড়িকে অপেক্ষা করতে হচ্ছেনা এখন। চারটি ঘাটেই অলস সময় পার করছে ফেরিগুলো। বর্তমানে ঘাট ও হাইওয়ে এলাকায় নেই পণ্যবাহী ট্রাক। বুধবার ভোর থেকে বৃহস্পতিবার ভোর পর্যন্ত ফেরি দিয়ে ২৫০ বাস, ৪৫০ ট্রাক, দুই হাজার ৪শ’ ছোট গাড়ি পার হয়েছে। ঈদে ঘরমুখো মানুষের চাপ ফেরিতে নেই বললেই চলে। 
সময় কম লাগায় যাত্রীদের আগ্রহ বেশি সি-বোটে।ছবি: বাংলানিউজ
বিগত ঈদ মৌসুমে এ ঘাটের চিত্রের তুলনায় এবারের চিত্র ভিন্ন। বর্তমানে নৌরুটে ১৯টি ফেরি চলাচল করছে, আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে ঈদযাত্রায় যাত্রীরা নির্বিঘ্নে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই পদ্মা পাড়ি দিতে পারবে বলেও জানান তিনি। 

বিআইডব্লিউটিএ’র শিমুলিয়া ঘাটের নৌ ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মো. সোলেমান বাংলানিউজকে জানান, বর্তমানে ৮৭টি লঞ্চ এ নৌরুটে চলাচল করছে। ভোর থেকেই যাত্রীদের চাপ পড়েছে লঞ্চঘাটে। তবে বিগত ঈদের তুলনায় এবার চাপ কম। 

সিবোট ঘাট সূত্রে জানা যায়, শিমুলিয়া ঘাট থেকে সি-বোটে মাত্র ২০ থেকে ২৫ মিনিট সময়ে কাঁঠালবাড়ি পৌঁছে যাওয়া যায়। এর ফলে যাত্রীদের আগ্রহ বেশি রয়েছে এ নৌযানে। 

বাংলাদেশ সময়: ১২২১ ঘণ্টা, জুন ১৪, ২০১৮
এসআরএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ঈদে বাড়ি ফেরা

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa