[x]
[x]
ঢাকা, সোমবার, ১ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৬ জুলাই ২০১৮

bangla news

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠক বৃহস্পতিবার

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-১৬ ৮:৪৪:৪২ পিএম
সীমান্তে রোহিঙ্গাদের ঢল। বাংলানিউজ ফাইল ছবি

সীমান্তে রোহিঙ্গাদের ঢল। বাংলানিউজ ফাইল ছবি

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ-মিয়ানমার যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপের দ্বিতীয় বৈঠক শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার। বৈঠকে রোহিঙ্গাদের দ্রুত প্রত্যাবাসনে জোর দেবে ঢাকা। রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের জন্য নতুন একটি তালিকা মিয়ানমারকে হস্তান্তর করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৭ মে) সকালে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন মেঘনায় বৈঠকে মিয়ানমার প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন মিয়ানমারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী সচিব ইউ মিন্ট থো। বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে থাকবেন পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক।

রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের জন্য গত বছর ১৯ ডিসেম্বর ঢাকায় যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন করা হয়। চলতি বছর ১৫ জানুয়ারি মিয়ানমারে ওয়ার্কিং গ্রুপের প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এবার ঢাকায় দ্বিতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের লক্ষ্যে ইতোমধ্যেই মিয়ানমারকে ৮ হাজার ৩২ জনের একটি তালিকা হস্তান্তর করা হয়েছে। এই তালিকা থেকে মিয়ানমার যাচাই-বাছাই করে ১ হাজার নাগরিকের পরিচয় নিশ্চিত করেছে। বৃহস্পতিবারের বৈঠকে নতুন একটি তালিকা হস্তান্তর করা হবে।

যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠক সামনে রেখে মিয়ানমারে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মঞ্জুরুল করিম খান চৌধুরী ইতোমধ্যেই ঢাকায় এসেছেন। বুধবার (১৬ মে) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পররাষ্ট্রসচিব এম শহীদুল হকের সঙ্গে রাষ্ট্রদূত মঞ্জুরুল করিমের এক বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে মিয়ানমারের পরিস্থিতি তুলে ধরেন রাষ্ট্রদূত।

যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপে দুই দেশের ৩০ জন প্রতিনিধি রয়েছেন। এই ওয়ার্কিং গ্রুপ রোহিঙ্গাদের ভেরিফিকেশন (যাচাই-বাছাই), সময় নির্ধারণ, পরিবহন সুবিধা নিশ্চিত, প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া দ্রুত এগিয়ে নেওয়া, যোগাযোগ ইত্যাদি বিষয়ে কাযর্ক্রম চালিয়ে আসছে। 

তবে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন অত্যন্ত ধীর গতিতে চলছে। যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠনের পর ৫ মাস হতে চললেও এখনো পর্যন্ত রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু করা সম্ভব হয়নি।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৭ ঘণ্টা, মে ১৬, ২০১৮
টিআর/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa