প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা শ্রদ্ধা করে আন্দোলন থেকে বিরত থাক
[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৫, ১৯ আগস্ট ২০১৮
bangla news

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা শ্রদ্ধা করে আন্দোলন থেকে বিরত থাক

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-১৪ ৯:০৪:৫৬ পিএম
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ফাইল ফটো

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ফাইল ফটো

ঢাকা: কোটা সংস্কার নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে আন্দোলন থেকে বিরত থাকতে আন্দোলনকারীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।  

তিনি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণাকে শ্রদ্ধা করে, জনগণের কষ্ট লাঘবের কথা বিবেচনা করে আন্দোলন থেকে তাদের (শিক্ষার্থী) বিরত থাকার আহ্বান জানাচ্ছি। 

প্রধানমন্ত্রী সংসদে দাঁড়িয়ে ঘোষণা দেওয়ার পর প্রজ্ঞাপন ম্যাটার করে না বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।  

সোমবার (১৪ মে) বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের একথা বলেন। রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। 

আরও পড়ুন>>
** 
রাজপথ থেকে সরে গিয়ে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ডাক

আন্দোলনকারীদের উদ্দেশ্যে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সততার প্রমাণ দিয়ে সারা বিশ্ব জয় করেছেন। দেশের মানুষ তাকে বিশ্বাস করেন। যেখানে দেশের প্রধানমন্ত্রী পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে কোটা বাতিল করলেন, সেখানে প্রজ্ঞাপন কবে হবে– সেটা ম্যাটার করে না।

‘তাদের দাবির বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী যৌক্তিকভাবে সক্রিয় বিবেচনা করছেন। বিদ্যমান কোটাগুলোর মধ্যে ব্যালেন্স করা একটু কঠিন। কারণ এখানে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী, প্রতিবন্ধী, জেলা, নারী, মুক্তিযোদ্ধাসহ বিভিন্ন কোটা রয়েছে। সেজন্য একটা কমিটি করা হয়েছে। এটা চ্যালেঞ্জিং কাজ, তাই একটু সময় লাগছে।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, কাজটা চলছে। তাই বলে ধৈর্য্যসীমার বাইরে যাবে- এটা তো আমরা তরুণ সমাজের কাছে আশা করি না। একটু সময় তো তারা দেবে। যৌক্তিক আন্দোলনের বিষয়টি যৌক্তিক সমাধানের পথে রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে কোনো অপরাজনীতি ও অশুভ রাজনৈতিক খেলা যাতে না হয় সে বিষয়েও আন্দোলনকারীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানাই। 

‘কোটা আন্দোলন নিয়ে কেউ যেন রাজনীতির অশুভ খেলায় মেতে উঠতে না পারে সে ব্যাপারে সত্যিকারের আন্দোলনকারীদের বিষয়টি যৌক্তিকভাবে বিবেচনা করতে হবে।’

ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক কাদের বলেন, কমিটি এখন নেত্রীর কাছে আছে। যাচাই-বাছাই চলছে। আপনারাই বলেন অনুপ্রবেশকারী; আবার অনুপ্রবেশকারী আছে কী-না তা আমরা খতিয়ে দেখছি। যাতে আমরা যোগ্য ও নিষ্কলুষ কমিটি উপহার দিতে পারি। তাতে দুই/চারদিন দেরি হবে। ক্ষতি কী? অনেক প্রার্থী তো। এটা নিয়ে ভাবতে হবে না। নেত্রী যাচাই-বাছাই করে কমিটি উপহার দেবেন।  

সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, উপ দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

বাংলাদেশ সময়: ২০৫২ ঘণ্টা, মে ১৪, ২০১৮ 
এসকে/এমএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa