[x]
[x]
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৭ জুলাই ২০১৮

bangla news

এবার ত্রিভুবনে ল্যান্ডিং বিপাকে মন্ত্রীকে বহনকারী বিমান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৩-১৩ ৬:১১:২৫ পিএম
ত্রিভুবন বিমানবন্দরে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামাল ও অন্যরা

ত্রিভুবন বিমানবন্দরে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামাল ও অন্যরা

ঢাকা: নেপালের কাঠমান্ডুতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের প্লেন বিধ্বস্ত হওয়ার একদিন পর এবার ল্যান্ডিং বিপাকে পড়লো বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামালকে বহনকারী বিমান।
 

মঙ্গলবার (১৩ মার্চ) মন্ত্রীসহ একটি প্রতিনিধি দল দুর্ঘটনায় হতাহতদের খোঁজ-খবর নিতে ঢাকা ছাড়েন। এদিন বেলা ১১টা ২১ মিনিটে বিমান বাংলাদেশের ময়ূরপঙ্ক্ষী বিমানটি তাদের নিয়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে নেপালের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।
 
প্রতিনিধি দলকে বহনকারী বিমানের বিজি-০০৭১ ফ্লাইটটি নেপালের স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে অবতরণ করার কথা ছিলো। কিন্তু কাঠমান্ডু বিমানবন্দর থেকে ল্যান্ডিং টাইম (অবতরণের সময়) না পাওয়ায় অতিরিক্ত একঘণ্টা তাদেরকে আকাশে উড়তে হয়েছে বলে জানা গেছে।
 
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বিমানের ওই ফ্লাইটটিতে মন্ত্রী, সিভিল এভিয়েশনের উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তা, সাংবাদিকসহ প্রায় শতাধিক যাত্রী ছিলেন। এসব যাত্রীদের বেশিরভাগই ইউএস-বাংলার ফ্লাইটে আহত-নিহতদের খোঁজখবর নেওয়ার উদ্দেশ্যে নেপাল গিয়েছেন।
 
বিমানে অবস্থানরত বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের একাধিক কর্মী জানান, সোমবারের এতো বড় দুর্ঘটনার পর আজকে সবাই কিছুটা ভয়ে ছিলেন। এজন্য সিটের সামনের মনিটরে জিপিএস রুটম্যাপের মাধ্যমে সবাই দেখছিলেন বিমানের অবস্থান কোথায়। ম্যাপে যখন সবাই দেখছিলেন তাদের বহনকারী বিমান ত্রিভুবন বিমানবন্দরের আশপাশেই কিন্তু অবতরণ করছে না, তখন সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। কারো অপেক্ষার প্রহর যেন আর শেষ হচ্ছিলো না।

পরে একপর্যায়ে দুপুর ১২টা ১০ মিনিটের দিকে বিমানের ক্যাপ্টেন ঘোষণা দেন, ‘আমরা এরইমধ্যে কাঠমান্ডু বিমানবন্দরের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করেছি। তবে আমাদের এখনও ল্যান্ডিং টাইম (অবতরণের সময়) দেওয়া হয়নি। আশা করছি নির্ধারিত সময়ের ৩০ থেকে ৪০ মিনিট অতিরিক্ত ফ্লাই করে বিমানবন্দরে ল্যান্ড করতে পারবো। গতকাল ইউএস-বাংলার প্লেন দুর্ঘটনায় নিহত এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি আমরা সমবেদনা জানাচ্ছি’।
 
এ ঘোষণায় যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক বাড়তে থাকে। এর ১০ মিনিট পর ক্যাপ্টেন আবার নতুন ঘোষণা দেন, ‘আমরা এরইমধ্যে কাঠমান্ডু বিমানবন্দরের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করেছি এবং ল্যান্ডিং টাইম পেয়েছি। আমাদের স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটে অবতরণের কথা থাকলেও অবতরণে সময় দেওয়া হয়েছে দুপুর ১টা ৫০ মিনিট। আশা করছি ১টা ৫০ অথবা দুপুর ২টার মধ্যে আমরা নিরাপদে কাঠমান্ডুতে অবতরণ করবো’।
 
এরপর শুরু হয় নেপালের আকাশে উদ্দেশ্যহীন ঘোরাঘুরি। অবশেষে এক ঘণ্টা ঘোরাঘুরির পর বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টা ৩ মিনিটে (স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ৪৭ মিনিট) বিমানটি নিরাপদে ত্রিভুবনে অবতরণ করে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১০ ঘণ্টা, মার্চ ১৩, ২০১৮
ইইউডি/জেডএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বিএস২১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa