[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

bangla news

দূরপাল্লার পরিবহন সীমিত, মোড়ে মোড়ে তল্লাশি

শরিফুল ইসলাম জুয়েল, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০২-০৮ ৬:৪৬:০৮ এএম
তল্লাশি করছে পুলিশ, সড়ক যানের সংখ্যা সীমিত

তল্লাশি করছে পুলিশ, সড়ক যানের সংখ্যা সীমিত

ঢাকা: আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা পরেই বহুল আলোচিত জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ঘোষণা করবেন আদালত। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে এ মামলার রায়কে কেন্দ্র করে সম্ভাব্য বিশৃংখলা এড়াতে সতর্ক রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

এর আগে গত ২৫ জানুয়ারি আদালত রায়ের দিন ধার্য করার পর থেকেই মুখোমুখি অবস্থানে দেশের প্রধান দুই রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। বিএনপি যেমন রাজধানীতে গণ জমায়েতের প্রস্তুতি নিচ্ছে আওয়ামী লীগও তেমন রাস্তায় থাকার ঘোষণা দিয়েছে।
 
প্রধান দু’দলের এমন পাল্টাপাল্টি অবস্থানের কারণে সৃষ্ট উত্তেজনার মধ্যে বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দিনগত রাতে সারাদেশ থেকে ঢাকামুখী বাস চলাচল একেবারেই সিমিত হয়ে যায়। ফলে অসুবিধায় পড়তে হয় বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা থেকে ঢাকা অভিমুখী মানুষদের। একইভাবে এদিন ঢাকা থেকে বিভিন্ন জেলা উপজেলা অভিমুখে দূরপাল্লার বাসের সংকটও দেখা গেছে।
 
বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দিনগত রাত দেড়টার দিকে সরেজমিনে গাবতলী, কল্যাণপুর বাস টার্মিনালের অধিকাংশ কাউন্টার বন্ধ পাওয়া গেছে। এছাড়া অনেকটা অচেনা নিরাবতা দেখা গেছে রাজধানীর ব্যস্ততম ও অন্যতম প্রধান এই বাস টার্মিনালে।
 
কল্যাণপুর টর্মিনালের সেন্টমার্টিন পরিবহন কাউন্টারের সামনের চা বিক্রেতা আব্দুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, প্রতিদিন রাত ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত নাইট কোচের ভিড়ে এখানে পা ফেলা কষ্ট হয়। কিন্তু আজকে এখন পর্যন্ত (রাত দেড়টা) শ্যামলী পরিবহনের একটা বাস আসতে দেখেছি।
 
নিরাপত্তায় নিয়োজিত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীএদিকে রায়কে ঘিরে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের মানুষের মধ্যে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। রায়ে খালেদার সাজা হলে নাশকতার আশঙ্কা করছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সাধারণ মানুষ। ফলে সম্ভাব্য যে কোনো ধরনের নাশকতা এড়াতে সারাদেশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সর্বোচ্চ সতর্কতাবস্থায় রয়েছে। মোড়ে মোড়ে চলছে পুলিশি তল্লাশি।
 
বুধবার দিনগত রাতে রাজধানীর প্রবেশ পথগুলোতে সরেজমিনে পরিদর্শন করে দেখা গেছে ব্যাপক তল্লাশি করছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। রাজধানীর আমিন বাজার ব্রিজ, যাত্রাবাড়ী, সায়দাবাদ, উত্তরা, তিনশ’ ফুট সড়ক প্রতিটি প্রবেশ দ্বারে দেখা গেছে দূরপাল্লার বাস থামিয়ে তল্লাশি করছে পুলিশ।
 
পাবনার ঈশ্বরদী থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশে ছেড়ে আসা শ্যামলী পরিবহনের চালক আলম বাংলানিউজকে বলেন, সারা পথেই পুলিশ রয়েছে। মোড়ে মোড়ে তল্লাশি করা হচ্ছে। আমাদের নিরাপত্তার জন্যই এ তল্লাশি করা হচ্ছে।
 
মহাসড়কে যানজট বা দূরপল্লার পরিবহনের সংখ্যা কেমন রয়েছে জানতে চাইলে আলম বলেন, পরিবহনের সংখ্যা অনেক কম। রাস্তায় আজকে তেমন যানজট নেই। তবে পরিবহনের সংখ্যা কেন কম এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি তিনি।
 
একইসঙ্গে মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে এবং রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে গাড়ি থামিয়ে পুলিশ সদস্যদের তল্লাশি করতে দেখা গেছে। রাজধানীর কল্যাণপুর এলাকায় দায়িত্বরত পুলিশ পরিদর্শক দেবদাস বাংলানিউজকে বলেন, আমরা এখানে ১৪ সদস্যের একটি দল আছি। মানুষের স্বাভাবিক ও সুন্দর যাত্রা নিশ্চিত করতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। কেউ যেন বিশৃঙ্খলার উদ্দেশে রাজধানীতে প্রবেশ করতে না পারে এজন্য তল্লাশি করা হচ্ছে। তবে এখন (রাত ২টা) পর্যন্ত সন্দেহজনক কাউকে পাওয়া যায়নি।
 
একইসঙ্গে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে একটু বেশিই সতর্ক অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। সেখানে সড়কের দক্ষিণ পাশের লেনে যান চলাচল সিমিত করে পুলিশকে অবস্থান নিতে দেখা গেছে। একইভাবে উত্তর পাশের লেনে যান চলাচল করলেও সেখানেও টহল দিতে দেখা গেছে তাদের।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৬৩০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০১৮
এসআইজে/আরএ

অন্তর্ভুক্ত বিষয়ঃ খালেদার রায়

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa