[x]
[x]
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ মাঘ ১৪২৪, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮

bangla news

জাজিরায় বিমানবন্দর হওয়া সমীচীন হবে না

বাংলানিউজ টিম | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০১-১০ ৮:৩৩:৪৫ পিএম
সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা/ফাইল ফটো

সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা/ফাইল ফটো

সংসদ ভবন থেকে: পদ্মাসেতুর ওপারে জাজিরা পয়েন্টে বিমানবন্দর না হওয়াই ভালো বলে মন্তব্য করেছেন সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, বাংলাদেশের এতো ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা সরিয়ে বিমানবন্দর করা সমীচীন বলে মনে করছি না।

বুধবার (১০ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একথা বলেন।
 
প্রধানমন্ত্রী বলেন, পদ্মাসেতু যেখানে হচ্ছে, ওপারে চর জাজিরাসহ ওই এলাকায় বিমানবন্দর করার সমীক্ষা চালাচ্ছি। তবে সেখানে আমাদের অসুবিধা হলো এটা চর। জাজিরায় এটা যেহেতু চর, কাজেই ওই চরে বিমানবন্দরটা চাপ নিতে পারবে কিনা? মাটির সেই শক্তি আছে কিনা এটার সমীক্ষা হচ্ছে। দ্বিতীয়ত, এটা ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা। আর ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় নতুন একটা কিছু করতে গেলে সমস্যা হয়ে যায়।
 
তিনি আরও বলেন, বসতি সরিয়ে বিমানবন্দর করা সমীচীন বলে আমি মনে করি না। কাজেই আরও সমীক্ষা চালাচ্ছি। ফাঁকা জায়গা এবং যেখানে মজবুত মাটি সেখানে বিমানবন্দর হতে পারে। যেখানে প্লেন ওঠা-নামা করলে সমস্যা হবে না। সমীক্ষা সফল হলে সেখানে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর করবো।
 
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশে একসময় একটাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছিল, সেটা ঢাকায়। আমরা ক্ষমতায় আসার পর ১৯৯৬ সালে দু’টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর করি। একটি সিলেটে অপরটি চট্টগ্রামে।
 
পদ্মাসেতু নিয়ে খালেদার বক্তব্য ‘পাগলের প্রলাপ’
ব্যাংক ঋণ আত্মসাৎকারীদের বিরুদ্ধে মামলা চলছে
আমি ক্ষুদ্র ঋণের বিপক্ষে নই, পক্ষেই আছি

বাংলাদেশ সময়: ২০৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০১৮
এসএম/এসকে/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa