[x]
[x]
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ মাঘ ১৪২৪, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮

bangla news

তাবলিগের বিক্ষোভে ভোগান্তি, ক্ষুব্ধ যাত্রীরা

স্টাফ করেসপন্ডেণ্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০১-১০ ৪:০০:১১ পিএম
বিক্ষোভের কারণে জনদুর্ভোগ। ছবি: জিএম মুজিবুর

বিক্ষোভের কারণে জনদুর্ভোগ। ছবি: জিএম মুজিবুর

ঢাকা: গাজীপুরের টঙ্গীতে তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দিতে দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজের জিম্মাদার মাওলানা মোহাম্মদ সাদ কান্ধলভির আগমনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছেন আলেম-উলামারা।

ফলে গাজীপুরসহ আশপাশ থেকে বিক্ষোভকারীদের ঢল নামে বিমানবন্দর অভিমুখে। শাহজালাল বিমানবন্দর এলাকায় তাবলিগ জামাতের চলমান বিক্ষোভে বিপাকে পড়েছেন যাত্রীরা। বিক্ষোভে কারণে স্থবির হয়ে পড়েছে বিমানবন্দর সড়কের যান চলাচল। ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে সৃষ্টি হয়েছে তীব্র যানজট। যাতায়াতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে বিভিন্ন যাত্রীদের।   বিক্ষোভ করছেন আলেমরা। ছবি: জিএম মুজিবুরবিক্ষোভ থেকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন আলমেরা বলেছেন, 'তারা শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচি ও বিক্ষোভ করছেন। তবে তাদের এ দাবি মানতে নারাজ বিমানবন্দর এলাকায় আগত যাত্রীরা। তারা অভিযোগ করে বলছেন, চারদিকে রাস্তাঘাট বন্ধ। মানুষ কোথাও যেতে পারছেন। অনেক যাত্রী ঘণ্টার পর ঘণ্টা হেঁটেও বিমানবন্দর ও বন্দর রেলওয়ে স্টেশনে যেতে পারছেন। এটা কিভাবে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ হল?

বুধবার (১০ জানুয়ারি) হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও আলমেদের বিক্ষোভস্থলের আটকে পড়ার যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা যায়।বিক্ষোভের কারণে জনদুর্ভোগ। ছবি: কাশেম হারুনদুবাই থেকে আগত যাত্রী মো. লিটন বাংলানিউজকে বলেন, দীর্ঘক্ষণ বিমান ভ্রমণ করে এসেছি। কিন্তু এখন গাড়ি পাচ্ছি না বাসায় যাওয়ার। সঙ্গে অনেক মালপত্র রয়েছে। যেগুলো নিয়ে হাঁটা সম্ভব না। এখন তাদের এ বিক্ষোভের জন্য কতক্ষণ বসে থাকতে হবে কে জানে।বিক্ষোভের কারণে জনদুর্ভোগ। ছবি: জিএম মুজিবুরসরেজমিনে দেখা যায়, আলেমদের এ বিক্ষোভের কারণে টঙ্গী কলেজ গেইট থেকে কুড়িল বিশ্বারোড পর্যন্ত যানজটের সৃষ্টি হয়। রাস্তার দু'পাশে যান চলাচল বন্ধ। ফলে সীমাহীন ভোগান্তিতে পরেছেন সাধারণ মানুষরা। পূর্ব নির্দেশনা না থাকায় এ বিক্ষোভ নিয়ে কেউই প্রস্তুত ছিলেন না।

মো. রবিউল রিয়াদ থেকে একটি ফ্লাইটে ঢাকায় এসেছেন। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, আদাবর যাবো, কিন্তু কোনো গাড়ি বা সিএনজি পাচ্ছি না। ব্যাগ লাগেজ নিয়ে হাঁটাও সম্ভব না। এর মধ্যে আলেমরা বলছেন তারা নাকি শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ করছেন। হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় ভোগান্তিতে পরেছেন, তাহলে এটা শান্তিপূর্ণ হলে কিভাবে?

আলেমদের এ বিক্ষোভে সব থেকে বিপাকে পরেছেন বিমানের যাত্রীরাই। তাদের অনেকে যেমন বিমানবন্দরে যেতে পারছেন না তেমনি আসতেও পারছে না।বিক্ষোভের কারণে জনদুর্ভোগ। ছবি: জিএম মুজিবুরঅন্যদিকে বেলা বাড়ার সঙ্গে আলেমদের উপস্থিতি ধীরে ধীরে বাড়চ্ছে। তাদের স্লোগানে স্লোগানে প্রকম্পিত হচ্ছে বিমানবন্দর এলাকা। তবে আগতদের অনেকেই জানেন না কেন এসেছেন। তারা বলছেন ওস্তাদ বলেছে তাই আসলাম।

এছাড়া বিমানবন্দর এলাকায় বিক্ষোভের কারণে অ্যাম্বুলেন্স ও স্কুল বাস আটকে আছে। তারা এই বিক্ষোভের কারণে সামনে বা পেছনে কোনো দিকেই এগোতে পারছেন না।

বিমানবন্দরের মতো একটি স্পর্শকাতর জায়গায় বিক্ষোভ করতে দেওয়া অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০১৮
এমএসি/এএটি

তাবলিগের বিক্ষোভ, ভোগান্তিতে শাহজালালের যাত্রীরা

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa