[x]
[x]
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৬ নভেম্বর ২০১৭

bangla news

প্রধানমন্ত্রী রাজশাহী যাচ্ছেন বৃহস্পতিবার

শরীফ সুমন, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৯-১৪ ২:০৫:৩৪ এএম
শেখ হাসিনার সফর ঘিরে বানানো হয়েছে নৌকার গেট

শেখ হাসিনার সফর ঘিরে বানানো হয়েছে নৌকার গেট

রাজশাহী: একদিনের সরকারি সফরে বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) রাজশাহী যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিন সকালে তিনি হেলিকপ্টারযোগে রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার সরদহে অবস্থিত বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে পৌঁছাবেন।

জানতে চাইলে রাজশাহী জেলা প্রশাসক (ডিসি) হেলাল মাহমুদ শরীফ বাংলানিউজকে বলেন, বৃহস্পতিবার রাজশাহী সফরকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৩টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। এর মধ্যে ছয়টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও বাকি ১৭টির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। পরে প্রধানমন্ত্রী রাজশাহীর পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণ দেবেন। 

সফর সূচি অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথমে রাজশাহীর সরদহে অবস্থিত বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে শিক্ষানবিশ সহকারী পুলিশ সুপারদের শিক্ষা সমপানী কুচকাওয়াজে অংশ নেবেন এবং অভিবাদন গ্রহণ করবেন। পরে প্রশিক্ষণের সময় বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ পারদর্শিতা দেখানোর জন্য শিক্ষানবিশ সহকারী পুলিশ সুপারদের পুরস্কৃত করবেন।

দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্থানীয় আওয়ামী লীগের দলীয় কর্মসূচিতে অংশ নেবেন। বেলা ২টায় পবার হরিয়ানে রাজশাহী চিনিকল মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় ভাষণ দেবেন বলে জানান জেলা প্রশাসক।
রাজশাহী জেলা প্রশাসক আরও জানান, প্রধানমন্ত্রী ২৩টি প্রকল্পের মধ্যে যে ৬টি প্রকল্প উদ্বোধন করবেন তার মধ্যে রয়েছে- সদর দফতর ও জেলা কার্যালয় স্থাপনের মাধ্যমে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতর শক্তিশালী শীর্ষক প্রকল্প (শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতর অফিস নির্মাণ), উপজেলা কমপ্লেক্স সম্প্রসারণ প্রকল্পের আওতায় বাগমারা উপজেলা কমপ্লেক্স সম্প্রসারিত প্রশাসনিক ভবন ও হল রুম নির্মাণ কাজ, রাজশাহীর পবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ কাজ, মহানগরীর টিকাপাড়ায় আরবান প্রাইমারি হেলথ কেয়ার সার্ভিসেস ডেলিভারি প্রকল্পের আওতায় রাজশাহী সিটি করপোরেশনের নামক স্থানের ৬তলা বিশিষ্ট সিআরএইচসিসি (কম্প্রিহেনসিভ রিপ্রোডাক্টিভ হেলথ কেয়ার সেন্টার) নির্মাণ কাজ, তানোর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ কাজ ও নগরীর বনলতা বাণিজ্যিক এলাকা সম্পসারণ এবং আবাসিক এলাকা উন্নয়নের ছয়টি প্রকল্প উদ্বোধন করবেন।

এছাড়া একই সময় প্রধানমন্ত্রী আরও ১৭টি প্রকেল্পর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। প্রকল্পগুলো হচ্ছে- রাজশাহীর পদ্মা নদীর ভাঙন এলাকা থেকে মহানগরীর অন্তর্ভুক্ত সোনাইকান্দি থেকে বুলনপুর পর্যন্ত এলাকা রক্ষা প্রকল্প, চারঘাট টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ স্থাপনের জন্য পয়ঃনিষ্কাশন, পানি সরবরাহ ও বৈদ্যুতিক কাজসহ একাডেমিক কাম (৫ তলা) প্রশাসনিক ভবন (৪তলা) নির্মাণসহ ওয়ার্কসপ ও সার্ভিস এরিয়া (১ তলা) একইসঙ্গে পানি সংরক্ষণ ভূমি উন্নয়ন, অভ্যন্তরীণ রাস্তা, সীমানা প্রাচীর, গেট ও গভীরনলকূপ স্থাপন কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। 

এছাড়া ২০১১ সালের ২৪ নভেম্বর রাজশাহীতে এক জনসভায় হাইটেক পার্ক নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত বছরের ২৩ ডিসেম্বর একনেক সভায় প্রকল্পটি অনুমোদন পায়। পদ্মাপাড়ে ৩১ দশমিক ৬৩ একর জমির ওপর তোলা হবে ২শ’ ৮১ কোটি ১৯ লাখ টাকা ব্যয়ে এ হাইটেক পার্ক। যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্ক’। এই হাইটেক পার্ক নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী। 

রাজশাহী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইকেট পার্কের মূল ভবন ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহানগরীর রাজপাড়া থানা এলাকার সোনাইকান্দি থেকে বুলনপুর পর্যন্ত ২শ’ ৬৮ কোটি টাকা ব্যয়ে পদ্মা নদীর পাড় রক্ষা প্রকল্প, রাজশাহী মহানগরীর তালাইমারী মোড়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্কয়ার নির্মাণ, ‘তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় শিক্ষার মানোন্নয়নের লক্ষ্যে নির্বাচিত বেসরকারি কলেজগুলোর (আইসিটি) উন্নয়ন’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় বাগমারার মাড়িয়া কলেজ, মোহনপুরের পাকুড়িয়া কলেজ, গোদাগাড়ীর গুরগোফুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ, তানোরের ডা. আবুবকর হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজের চারতলা একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজ, মহানগরীর কোর্ট থেকে রাজশাহী বাইপাস রোড পর্যন্ত রাস্তা প্রশস্তকরণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। 

অন্য প্রকল্পগুলোর মধ্যে রুয়েট থেকে রাজশাহী সিটি বাইপাসের খড়খড়ি পর্যস্ত সড়ক নির্মাণ প্রকল্প, মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ, বারনই আবাসিক এলাকা উন্নয়ন প্রকল্প, প্রান্তিক আবাসিক এলাকা উন্নয়ন প্রকল্প, পরিবার পরিকল্পনা রাজশাহী জেলা ও বিভাগীয় উপ-পরিচালকের অফিস ভবন নির্মাণ প্রকল্প, রাজশাহী শিশু হাসপাতাল নির্মাণ প্রকল্প, চারঘাট টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ স্থাপনের জন্য পয়ঃনিষ্কাশন, পানি সরবরাহ ও বৈদ্যুতিক কাজসহ পাঁচতলা একাডেমিক, চারতলা প্রশাসনিক, একতলা ওয়ার্কশপ ও সার্ভিস ভবন, পানি সংরক্ষণ ভূমি উন্নয়ন, অভ্যন্তরীণ রাস্তা, সীমানা প্রাচীর, গেট ও গভীরনলকূপ স্থাপন, গোদাগাড়ী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ, পবায় বেসরকারি বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ক্যাম্পাস নির্মাণ এবং রাজশাহী মেট্রোপলিটন ডেভেলপমেন্ট প্লান দুর্যোগ ঝুঁকি সংবেদনশীলকরণ প্রকল্প মিলে মোট ১৭টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।

এদিকে, প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে ঘিরে আবারও উদ্দীপ্ত হয়ে উঠেছে রাজশাহীর রাজনৈতিক অঙ্গন। চাঙ্গা হয়ে উঠেছেন আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সংঠনের নেতাকর্মীরা। তিন বছর পর প্রধানমন্ত্রী আসছেন। তাই ভেদাভেদ ভুলে ওইদিনের জনসভা সফল করতে রাতদিন এক করে কাজ করছেন সবাই। 

বাংলাদেশ সময়: ০২১৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৭
এসএস/জেডএস

অন্তর্ভুক্ত বিষয়ঃ প্রধানমন্ত্রী

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Loading...
Alexa