[x]
[x]
ঢাকা, সোমবার, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১১ ডিসেম্বর ২০১৭

bangla news

সৌন্দর্যে রাহাবি, স্বাদে বারবারি ছাগল মাতিয়েছে ঢাকা

মফিজুল সাদিক, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৮-১৩ ৪:৩১:১৯ পিএম

সৌন্দর্যে বিশ্বখ্যাত রাহাবি, স্বাদে অতুলনীয় বারবারি ছাগল। ছবি: জিএম মুজিবুর

ঢাকা: স্পেনের রাহাবি ও আমেরিকার বারবারি ছাগল এখন পাওয়া যাচ্ছে ঢাকায়। বারবি ডলের মতো দেখতে রাহাবি ও হরিণের মতো দেখতে বারবারি- ছাগলের এ দুই প্রজাতিই সৌন্দর্যে বিশ্বখ্যাত। তবে বারবারি’র মাংসের স্বাদ তুলনাহীন। 

মোহাম্মদপুর বেড়িবাঁধের সাদিক অ্যাগ্রো ফার্মে দেড় বছর আগে তিন দফায় দুবাই থেকে আনা হয়েছে এসব ছাগল। মূলত বাংলাদেশে পরিচিতি পাওয়াতে জাত দু’টি আমদানি করা হলেও অনেকেই কিনে নিয়ে বাসা-বাড়িতে পালছেন।সৌন্দর্যে বিশ্বখ্যাত রাহাবি, স্বাদে অতুলনীয় বারবারি ছাগল। ছবি: জিএম মুজিবুরসাদিক অ্যাগ্রো ফার্মে বর্তমানে সাতটি রাহাবি ও ১৫টি বারবারি ছাগল আছে। খামারে আনার পর রাহাবি ছয়টি ও বারবারি ১০টি বাচ্চা দিয়েছে। এরা আমাদের দেশের সাধারণ বেঙ্গল ছাগলের মতোই ৯ থেকে ১০ বছর বাঁচে ও মাত্র এক বছর বয়সে বাচ্চা জন্ম দিতে পারে। ১৪ থেকে ১৫ মাস হলে বছরে দু’বারে দুই থেকে তিনটি  বাচ্চা একসঙ্গে দিতে শুরু করে।
 
হরিণের মতো দেখতে বলেই  ছাগলটির নাম বারবারি (Berbera)। ছবি: জি এম মুজিবুরফার্ম ঘুরে দেখা গেছে, বাঁকানো শিংয়ের রাহাবি ছাগল দেখতে অনেকটা বারবি ডলের মতো। পুরো শরীর বরফ সাদা লোমে ঢাকা, বড় বড় লোম মাথা বেয়ে ঢেকেছে চোখও। রুপবতী নারীর মতো চোখ জুড়ানো রাহাবি চঞ্চল স্বভাবের। অন্যদিকে হরিণের মতো দেখতে বলেই অন্য প্রজাতির ছাগলটির নাম বারবারি (Berbera)।

সাদিক অ্যাগ্রো’র মালিক ইমরান হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, ‘মূলত শখের বশেই এসব ছাগল পালা হয়। আমরা বিক্রির জন্য আনিনি, দেশে পরিচিতি পাওয়াতে ও বিস্তার ঘটাতে এনেছি।সৌন্দর্যে বিশ্বখ্যাত রাহাবি, স্বাদে অতুলনীয় বারবারি ছাগল। ছবি: জিএম মুজিবুর তারপরও অনেকেই আমাদের এখান থেকে রাহাবি-বারবারি ছাগল কিনে নিয়ে যাচ্ছেন, বাসা-বাড়িতে লালন-পালন করছেন। তাদের ঘরে বাচ্চাও দিয়েছে সেগুলো। দু’টি জাতের ছাগলই মানুষের সংস্পর্শে থাকতে পছন্দ করে। দেশের আবহাওয়া-পরিবেশের সঙ্গে এগুলো মানিয়েও নিয়েছে দারুণভাবে’।

‘আশা করছি, ছাগলের জাত দু’টি একদিন সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে যাবে’।

তিনি জানান, রাহাবি ছাগলের সৌন্দর্যের কাছে মাংসের স্বাদ ম্লান হয়ে গেছে। আদিজাত স্পেনের হলেও মধ্যপ্রাচ্যজুড়ে সুখ্যাতি রয়েছে। ৭০ থেকে ৭৫ কেজি পর্যন্ত ওজন হয় এক একটি ছাগলের, মূল্য দুই লাখ টাকা।

অন্যদিকে বারবারি ছাগলের আদি জন্মস্থান পূর্ব আফ্রিকার সোমালিয়ায়। তবে আমেরিকায়ই বেশি গবেষণা হচ্ছে এ ছাগল নিয়ে। প্রথমে আমেরিকা থেকে দুবাইয়ে নিয়ে ব্রিডিং হয়েছে। এরপরে বাংলাদেশে আনা হয়েছে।

মূলত মাংসের স্বাদের জন্যই এ ছাগল জগদ্বিখ্যাত উল্লেখ করে ইমরান হোসেন জানান, একবার খেলে আজীবন মনে থাকবে, মাংসের উৎপাদনও ভালো।

১ বছর বয়সে পুরুষ বারবারি ৩০ থেকে ৩৮ কেজি  ও ছাগি ১৮ থেকে ২২ কেজি ওজনের হয়ে থাকে। তবে পূর্ণবয়স্ক হলে ওজন হয় ৬০ থেকে ৬৫ কেজি।
 
স্পেনের রাহাবি ছাগল বাসা-বাড়িতেও পালছেন অনেকে। ছবি: জিএম মুজিবুর আমাদের দেশের ছাগলের মতোই কচি ঘাস, আগাছা, লতা-পাতা খেতে খুব পছন্দ করে রাহাবি-বারবারি। কাঁঠালপাতা, কুলপাতা, সজনে, নিমপাতা, বকফুল, নটে, কপি, মূলা, পালং, গাজরও খেয়ে থাকে ৷ তরকারির খোসা, চারদিকে পড়ে থাকা কম দামি খাবার  খাইয়েও এদের পালনে কোনো সমস্যা হয় না। আলাদাভাবে দানাদার খাবার হিসেবে কুঁড়া, ভুষি, চাল-ডাল বেশি পছন্দ রাহাবি’র আর বারবারি বেশি পছন্দ করে সিম, বরবটি ও অড়হর পাতা।
 
** ষাঁড় নয়, যেন ৩০ মণ এক পাহাড়!

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩০ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০১৭
এমআইএস/এএসআর

অন্তর্ভুক্ত বিষয়ঃ কোরবানি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

FROM AROUND THE WEB
Alexa