ঢাকা, বুধবার, ৮ ভাদ্র ১৪২৪, ২৩ আগস্ট ২০১৭

bangla news

ইউনোস্কোর বক্তব্য থেকে সরকার অসত্য তথ্য প্রচার করছে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৮-১৩ ৩:৫৫:২০ পিএম
সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটির সংবাদ সম্মেলন

সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটির সংবাদ সম্মেলন

ঢাকা: ইউনোস্কোর বক্তব্য থেকে সরকার অসত্য তথ্য প্রচার করছ বলে মন্তব্য করেছেন সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল।

রোববার (১৩ আগস্ট) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটি আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন তিনি।

সুলতানা কামাল বলেন, সুন্দরবনের কাছে রামপালে বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের কোনো যৌক্তিকতা নেই। সরকার উন্নয়নের নামে ধ্বংসের খেলা শুরু করেছে। সরকারের এসব বেআইনি কর্মকাণ্ডের কারণে সুন্দরবন এখন ধ্বংসের সর্বোচ্চ হুমকির সম্মুখীন। তাছাড়া রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে ইউনোস্কোর বক্তব্য থেকে সরকার অসত্য তথ্য প্রচারে করছে।

তিনি বলেন, আমরা গণমাধ্যম সূত্রে অবগত হয়েছি যে, জাতীয় পরিবেশ কমিটি সুন্দরবন ঘেঁষে ৩২০টি শিল্পকারখানা স্থাপনের অনুমোদন দিয়েছে। এই কারখানার অনেকগুলোই পরিবেশ এবং সুন্দরবনের জন্য মারাত্মক দূষণকারী স্থাপনা। এসব কারখানা নির্মাণ বন্ধ করতে সরকারের প্রতি আমরা আবেদন জানাচ্ছি।

লেখক ও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, আমরা চাই দেশ ও মানুষের উন্নতি হোক তবে তা পরিবেশের ক্ষতি করে নয়। সুন্দরবনের কাছে এসব প্রকল্পের কারণে বনের কী ধরনের ক্ষতি হতে পারে তা আমরা জানি। সরকার যদি একজন হতো তাহলে আমরা পায়ে ধরে বলতাম এসব ধ্বংসাত্মক প্রকল্প বন্ধ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের পক্ষ থেকে বেশ কয়েকটি দাবি উথাপন করে সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটি। দাবিগুলো হল-  সুন্দরবনের পার্শ্ববর্তী এলাকায় ৩২০টি সরকারি-বেসরকারি নির্মাণাধীন প্রকল্প অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে, সুন্দর বিষয়ে পোল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ইউনোস্কো কমিটির গৃহীত ১১টি প্রস্তাব হুবহু ও সময় মাফিক বাস্তবায়ন করতে হবে,  রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্পের বিষয়ে সরকারি পরিবেশগত সমীক্ষা বাতিল করে নিরপেক্ষ ও বিজ্ঞান ভিত্তিক সমীক্ষা চালাতে হবে এবং সুন্দরবনের ওপর আরোপিত সকল অনিয়ম অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিতি ছিলেন মনবাধিকার কর্মী খুশি কবির।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫২ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০১৭
এমএসি/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

You May Like..
Alexa