Alexa
ঢাকা, সোমবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৪, ২৬ জুন ২০১৭

bangla news

মেট্রোরেলের খোঁড়াখুঁড়িতে ব্যাহত ইউটিলিটি সেবা

মানসুরা চামেলী, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৪-২১ ৩:১৮:৩৯ পিএম
মেট্রোরেল নির্মাণে মিরপুরের সড়কে চলছে খোঁড়াখুঁড়ি

মেট্রোরেল নির্মাণে মিরপুরের সড়কে চলছে খোঁড়াখুঁড়ি

ঢাকা: মেট্রোরেলের নির্মাণ কাজ চলায় মিরপুর এলাকায় বিদ্যুৎ বিভাগ, ওয়াসা, বিটিআরসি ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনসহ বিভিন্ন সেবা সংস্থা তাদের সেবামূলক খাতের লাইন স্থান‍ান্তরের কাজ করছে। এ কারণে ব্যাপক খোঁড়াখুড়িতে বেহাল রূপ ধারণ করেছে রাজধানীর জনবহুল এলাকা মিরপুর। ফলে পানি, বিদ্যুৎ ও গ্যাসের সরবরাহ প্রায়ই বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে মিরপুর এলাকায়।

মিরপুর-১২, পল্লবী থেকে শুরু করে মিরপুর -১০, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়া হয়ে আগারগাঁও পর্যন্ত খোঁড়াখুঁড়িতে রাস্তা ও ফুটপাতে বিশাল বিশাল গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। ফলে যানজট, অল্প বৃষ্টিতে হাঁটু পানি জমাসহ নানা সমস্যায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন সড়কে চলাচলকারীরা। একটু বৃষ্টি হলেই পানি জমছে রাস্তায়। ফলে খানাখন্দ আর গর্তপূর্ণ সড়কে ঝুঁকি নিয়েই চলাচল করছে এলাকার বাসিন্দারা।

শুক্রবার (২১ এপ্রিল) সরেজমিনে দেখা যায়, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়ায় বিদ্যুৎ বিভাগের ট্রান্সমিটার বসানোর কাজ চলছে। এজন্য রাস্তা ও ফুটপাতে ৬/৭ ফুটের মতো গর্ত খুঁড়ে রাখা হয়েছে। সিটি করপোরেশনের সুয়ারেজ লাইন ঠিক করতে চলছে মূল সড়ক ও ভিতরের অলিগলিতেও খোঁড়াখুঁড়ি। রাস্তার পাশে ফেলে রাখা হয়েছে বড় বড় পাইপ। এতে অর্ধেক রাস্তা বন্ধ।

এছাড়াও চলছে তিতাসের গ্যাসের লাইন, ওয়াসার পানির লাইন ও মেট্রোরেলের বিস্তর খোঁড়াখুঁড়ি। ফলে মাইকে ঘোষণা দিয়ে এলাকাগুলোতে ৫/৬ ঘণ্টা করে পানি, বিদ্যুৎ ও গ্যাস বন্ধ করে রাখা হচ্ছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, মাইকে ঘোষণা দিয়ে বন্ধ করা ছাড়াও প্রায়শই গ্যাসের লাইন, পানির লাইন বা বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছে। কাজীপাড়া, শেওড়া পাড়া এলাকায় পানি সরবরাহে ব্যাপক ঘাটতি দেখা দিয়েছে। দিনে দুই-একবার পানি এলেও সেই পানিতে প্রকট দুর্গন্ধ।
 
কাজীপাড়া এলাকার বাসিন্দা আফসার বাংলানিউজকে বলেন, এমনিতেই সড়কে সারা বছর খোঁড়াখুঁড়ি চলে, বর্ষার আগে আগে মাত্রা বেড়ে যায়, এখন আবার তাতে যোগ হয়েছে মেট্রোরেলের কাজ। এসব সংস্থার এক সাথে কাজ করতে হবে কেন? এলাকাবাসী যে ভোগান্তিতে পড়ে এর কোনো চিন্তা নেই।

তিনি আরও বলেন, যেদিন বৃষ্টি হয় হাঁটু পানি জমে যায়, মিরপুর ১০ থেকে কাজী পাড়া হেঁটে আসতে আধা ঘণ্টা সময় লাগে। ফুটপাত থেকে রাস্তা সব জায়গায় গর্ত করে রাখা হয়েছে, যদি গর্তে পড়ে যাই এই ভয়ে হাঁটতে পারছিলাম না।
 
মিরপুর পল্লবী এলাকার আরেক বাসিন্দা খলিল বলেন, মিরপুরে কয়েকদিন পর মগবাজার-মালিবাগের রূপ ধারণ করবে। কালশী থেকে মিরপুর ১২ পার হতে এক ঘণ্টা সময় লাগছে খোঁড়াখুঁড়ির যন্ত্রণায়। আজ গ্যাস নেই, কাল পানি নেই, আবার সকাল আটটা থেকে চারটা পযর্ন্ত বিদ্যুৎ বন্ধ থাকবে এভাবে চলছে দিনকাল।

এদিকে বৃহস্পতিবার মাইকে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে শুক্রবার (২১ এপ্রিল) সকাল ৮টা থেকে থেকে গ্যাসের লাইন সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ রাখা হবে। কিন্তু বৃহস্পতিবার রাত ১০টা থেকেই গ্যাসের ল‍াইন বন্ধ রয়েছে।
 
বন্যা নামে এক গৃহিণী জানান, মেট্রোরেলের কাজ চলায় গ্যাসের লাইন সরানোর কারণে গতকাল মাইকে ঘোষণা দিলো, সকাল থেকে গ্যাস থাকবে না। দেখি, কাল রাত থেকেই নাই। এখন রান্ন‍াবান্না কেমন করে হবে?
 
ডিএনসিসি’র ৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. মোস্তফা জামাল বাংলানিউজ বলেন, বর্ষা মৌসুম আসছে, লাইনগুলো তো ঠিক করতেই হবে। এছাড়া এখন মেট্রোরেলের কাজ চলছে, এ কারণে সাময়িকভাবে বিভিন্ন সেবা পেতে সমস্যা হচ্ছে। কয়েকদিনের মধ্যে ঠিক হয়ে যাবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০১৭
এমসি/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

You May Like..
Alexa