Alexa
ঢাকা, বুধবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, ২৪ মে ২০১৭
bangla news

সড়কমন্ত্রীর অ্যাকশন, ডিভাইডার ভেঙ্গে ফেঁসেছে জেনভায়ো! 

এম.আব্দুল্লাহ আল মামুন খান, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৩-২১ ১০:২৪:০২ এএম
সড়কমন্ত্রীর নির্দেশে সারানো হয়েছে জেনভায়োর ভাঙ্গা ডিভাইডার

সড়কমন্ত্রীর নির্দেশে সারানো হয়েছে জেনভায়োর ভাঙ্গা ডিভাইডার

ময়মনসিংহ: বাংলানিউজের একটি রিপোর্টের পর সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রীর অ্যাকশনে পুনঃস্থাপিত হয়েছে ময়মনসিংহ-ঢাকা মহাসড়কের ভেঙ্গে ফেলা ডিভাইডার। শুধু তাই নয়,  এর জন্য দায়ী ওষুধ কোম্পানি জেনভায়ো ফেঁসেছে মামলায়। 

‘ত্রিশালে সড়কের ডিভাইডার ভেঙেছে ‘জেনভায়ো’,  সেখানে বাঁশের বেড়া!’ শিরোনামে গত ১০ মার্চ বাংলানিউজে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। এ খবর প্রকাশের পর শুরু হয় তোলপাড়। সরেজমিন এ প্রতিবেদন নজরে আসে সড়কমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের। সংশ্লিষ্টরা জানান, দায়ীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে মন্ত্রী স্থানীয় সড়ক ও জনপথ বিভাগকে (সওজ) নির্দেশ দেন। এরপরেই হার্ডলাইনে যায় সওজ কর্তৃপক্ষ। 

সূত্র জানায়, ময়মনসিংহ নগরীর ধনাঢ্য ব্যবসায়ী আশরাফুল আলম প্রায় দুই বছর আগে ময়মনসিংহ-ঢাকা মহাসড়কের পাশেই ত্রিশালের বাগান এলাকায় জেনভায়ো নামের একটি ওষুধ কোম্পানির নির্মাণ কাজ শুরু করেন।

পরে এ ওষুধ কোম্পানির নির্মাণ সামগ্রী আনা-নেয়ার সুবিধার্থে সবার চোখের সামনেই ভেঙে ফেলা হয় ঝকঝকে এ মহাসড়কের ত্রিশালের বাগান পয়েন্টের ১৫ ফিট ডিভাইডার। 

আর এ কাজে সংশ্লিষ্ট কোম্পানিকে সহায়তা করেন স্থানীয় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম আহবায়ক আশরাফুল ইসলাম। 

উপরে- মহাসড়কের ভেঙে ফেলা ডিভাইডার, নিচে- মেরামত করে দেওয়া ডিভাইডার ছবি: বাংলানিউজ

এ ডিভাইডার ভাঙার মাস কয়েক পরেই এ খবর পৌঁছে মহাসড়কের চারলেন প্রকল্পের দায়িত্বশীলদের কানে। সরেজমিনে তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কারো নাম উল্লেখ না করে ত্রিশাল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করে দায় এড়ান। এরপর বিষয়টি ধামাচাপা পড়ে যায়।

কিন্তু চলতি বছরের ১২ ফেব্রুয়ারি মহাসড়কের ওই ভাঙা অংশ দিয়ে হুট করে প্রবেশ করার সময় মাটিভর্তি একটি ট্রাকের সঙ্গে সেনা সদস্যদের একটি জিপের সংঘর্ষ হয়। এতে চার সেনা সদস্য আহত হন। স্থানীয়রা কোম্পানিটির এমন কাণ্ডে প্রতিবাদ জানান। 

এতে করে আলোচনায় আসে ডিভাইডার ভাঙার ঘটনা। পরে ওই নেতাই কোম্পানির সহায়তায় ডিভাইডারের ভাঙা অংশে দেন বাঁশের বেড়া। 

যা নিয়ে সরেজমিন প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় বাংলানিউজে। সূত্র জানায়, সে সংবাদের সূত্র ধরেই স্থানীয় সওজ কর্তৃপক্ষকে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন সড়কমন্ত্রী।  মামলা হয় জেনভায়োর বিরুদ্ধে। 

স্থানীয় সড়ক ও জনপথ বিভাগের (সওজ) নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদ খান বাংলানিউজকে জানান, মহাসড়কের ডিভাইডার ভাঙার অপরাধে জেনভায়ো’র মালিক আশরাফুল আলমের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবুল কালাম একটি ক্ষতিপূরণ মামলা দায়ের করেছেন। 

মহাসড়কের প্রতিটি পয়েন্ট এখন মনিটরিংয়ের আওতায় আনা হয়েছে বলেও জানান তিনি। 

ত্রিশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির জানান, সপ্তাহখানেক আগে জেনভায়োর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। তবে কোম্পানিটির মালিক দেশের বাইরে অবস্থান করায় তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব হচ্ছে না। 

এদিকে ডিভাইডারের ভাঙা অংশটি দু’দিন আগে মেরামত করেছে স্থানীয় সওজ কর্তৃপক্ষ।

ত্রিশালে সড়কের ডিভাইডার ভেঙেছে ‘জেনভায়ো’, সেখানে বাঁশের বেড়া! 

বাংলাদেশ সময় ১০০২ ঘন্টা, মার্চ ২১, ২০১৭ 
এমএএএম/এমএমকে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

You May Like..