[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৮ আষাঢ় ১৪২৫, ২২ জুন ২০১৮

bangla news

ঢাকার নিম্ন আদালতের কার্যক্রমে অসন্তুষ্ট প্রধান বিচারপতি

420 |
আপডেট: ২০১৪-০৭-০৯ ৪:৫৭:০০ এএম
প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেন

প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেন

সারপ্রাইজ ভিজিটে এসে ঢাকা জেলা ও দায়রা জজের আওতাধীন বিভিন্ন আদালতের কার্যক্রমে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেন। মঙ্গলবার তিনি সারপ্রাইজ ভিজিটে ঢাকা জেলা ও দায়রা জজের বিভিন্ন আদালতের এজলাস পরিদর্শন করেন।

ঢাকা: সারপ্রাইজ ভিজিটে এসে ঢাকা জেলা ও দায়রা জজের আওতাধীন বিভিন্ন আদালতের কার্যক্রমে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেন।

মঙ্গলবার তিনি সারপ্রাইজ ভিজিটে ঢাকা জেলা ও দায়রা জজের বিভিন্ন আদালতের এজলাস পরিদর্শন করেন।

এসময় সুপ্রিমকোর্টের রেজিষ্ট্রার এ কে এম শামসুল ইসলাম তার সঙ্গে ছিলেন।

প্রধান বিচারপতি বিচারকদের পাশে বসে বিচার প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করে বিচারক ও আইনজীবীদের বিভিন্ন পরামর্শ দেন।

প্রধান বিচারপতি সারপ্রাইজ ভিজিটে আসার খবর ছড়িয়ে পড়লে ঢাকা জেলা জজশীপ ও মহানগর দায়রা জজশীপের বিচারকদের তৎপরতা বেড়ে যায়। তারা এজলাসে দীর্ঘক্ষণ বসে থাকেন। একটি স্বাক্ষী নিয়েই দীর্ঘ সময় কাটানোর চেষ্টা করেন। কেউ কেউ এজলাস থেকে নেমে পড়লেও বিচারপতি আসার খবরে ফের এজলাসে ওঠেন। হঠাৎ করেই পরিচিত নিয়ম কানুন বদলে যায়।

পরিদর্শনকালে তিনি কয়েকটি আদালতের বিচারকদের কাছে লম্বা তারিখ দেয়া, দৈনিক কার্য তালিকায় মামলার তারিখ কম থাকা ও স্বাক্ষী কম আসার কারণ জানতে চান। বিচারকগণ এর কোন উত্তর না দিতে না পারায় অসন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ফৌজদারি মামলায় আদালতে স্বাক্ষী উপস্থাপনের দায়িত্ব পুলিশের। সমন বা ওয়ারেন্ট পাওয়ার পর আদালতে স্বাক্ষী উপস্থাপনে ব্যর্থ পুলিশের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট বিচারককে তিনি নির্দেশ দেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৪৫৮ ঘণ্টা,  জুলাই ০৯, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa