বরগুনায় অপহরণ চেষ্টা-ডাকাতির দায়ে এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন
[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৫, ১৯ আগস্ট ২০১৮
bangla news

বরগুনায় অপহরণ চেষ্টা-ডাকাতির দায়ে এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০২-০৪ ৪:৫১:২৩ পিএম
প্রতীকী

প্রতীকী

বরগুনা: তরুণী অপহরণ চেষ্টা ও ডাকাতি মামলায় একজনকে সশ্রম যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। 

এছাড়া একই মামলার দুই আসামিকে ১৪ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড ও ৩০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ছয় মাস করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। 

রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে এ রায় ঘোষণা করেন বরগুনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জুলফিকার আলী খান। 

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো-বরগুনা জেলার বামনা উপজেলার মৃত আলাউদ্দিনের ছেলে সাইফ উদ্দিন রিমন, তার ভাই সালাহ উদ্দিন ও একই উপজেলার দক্ষিণ ভাইজোড়া গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে মনির জোমাদ্দার। এদের মধ্যে রিমনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রায় ঘোষণার সময় রিমন ও মনির উপস্থিত ছিলেন।

মামলায় বেকসুর খালাস পেয়েছেন মোশাররফ হোসেন। 

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে সাড়ে ১১টার দিকে পাঁচটি মোটরসাইকেলে করে বামনা উপজেলার হোগলপাতি গ্রামের এক বাড়িতে ডাকাতি করতে যান আসামিরা। তারা দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে দুই লাখ ১০ হাজার টাকার সোনার গহনা লুট করেন এবং ওই বাড়ির এক তরুণীকে অপহরণের চেষ্টা করেন। এসময় বাড়ির লোকজনের চিৎকারে স্থানীয়ারা ছুটে এলে ডাকাতদল গৃহকর্তা ও তার মেয়েকে পিটিয়ে আহত করে পালিয়ে যান। এ ঘটনায় ৯ ফেব্রুয়ারি ওই তরুণী বাদি হয়ে বরগুনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে ওই চারজনকে আসামি করে একটি মামলা করেন। ছয়জনের সাক্ষ্য ও তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে এ রায় দেন বিচারক। 

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৪, ২০১৮
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa