[x]
[x]
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৯ জুলাই ২০১৮

bangla news

বৈশাখের চার ছড়া | আবু আফজাল মোহাঃ সালেহ

ছড়া/ইচ্ছেঘুড়ি | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৪-১৩ ৪:৩৯:৪১ পিএম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ঝড়ের বৈশাখ

এই যে ছিল সুনীল আলো
কী যে ভালো ভালো
হঠাৎ কেন অন্ধকারে
ঢেকে দিয়ে গেলো!

বিজলি চমে কালো মেঘে
দমকা বাতাস ফুলে
ওলোট পালোট করে দিয়ে
রুদ্র করে তোলে!
 
ঝোড়ো হাওয়া সামনে নিয়ে
শিশুর কান্না ঝরে
ধুলোবালি মুখে পড়ে
বোশেখ মাসের ঝড়ে!
 
দিক নিশানা হারিয়ে ফেলে
শান্ত হয়ে ঘরে
কান্না কান্না কণ্ঠে খোকা
মুখ লুকিয়ে সরে!
 
 
নববর্ষে মাতি হর্ষে

চৈত্র শেষে বৈশাখ মাসে
ভুলে দৈন্য
নতুন জীবন শুরু করে
দূরি শূন্য।
 
দুঃখ ব্যাথা ভুলে গিয়ে
পেয়ে পূর্ণ
সবার জীবন ভরে যেয়ে
পুরুক জীর্ণ।
 
পেছন ফেলে জরা ঠেলে
নববর্ষে    
আসুক ফিরে প্রতি প্রাণে
মেতে হর্ষে।
 
কালবোশেখী ঝড়

কালো মেঘে বিজলি মেখে
বাতাস বহে ঝোড়ো,
মাঠের ফসল বিনাশ করে
লুটায় যে ধান বোরো!
 
দমকা বাতাস ধুলোবালি
সাথে শিলা-বৃষ্টি,
টিনের বাড়ি মাটির দেয়াল
ভেঙে অনাসৃষ্টি!
 
উঁচু-নিচু মানে না সে
তেজে তেড়ে সমান,
ভেঙে ভেঙে জাহির করে
বেগে করে প্রমাণ!
 
চৈত্র কিংবা বোশেখ মাসে
হঠাৎ করেই আসে,
নামটি ঝড়ের কালবোশেখী
শহর-গেরাম ভাসে!


নববর্ষে 

পাড়ায় পাড়ায় 
চলে ধুম
খোকাখুকির
নেইতো ঘুম।

চৈত্র শেষে
বোশেখ
নতুন বছর
জ্বলুক দেশ।

পাড়া গাঁয়ে
রঙিন সাজ
বেজে উঠুক
বাদ্যি বাজ!

ichবাংলাদেশ সময়: ১৬৩৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৩, ২০১৮
এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

ইচ্ছেঘুড়ি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa