Alexa
ঢাকা, সোমবার, ১২ চৈত্র ১৪২৩, ২৭ মার্চ ২০১৭
bangla news
symphony mobile

সম্পর্ক উন্নয়নে আল আজহার যাচ্ছেন পোপ ফ্রান্সিস

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৩-২০ ৬:৪৭:৩২ পিএম
২০১৬ সালের বৈঠকে শীর্ষ দুই ধর্মীয় নেতা উপহার বিনিময় করছেন, ছবি: সংগৃহীত

২০১৬ সালের বৈঠকে শীর্ষ দুই ধর্মীয় নেতা উপহার বিনিময় করছেন, ছবি: সংগৃহীত

মুসলমানদের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের লক্ষে মিসরের প্রেসিডেন্ট ও আল আজহার মসজিদের গ্র্যান্ড ইমামের আমন্ত্রণে পোপ ফ্রান্সিস কায়রো সফরে যাচ্ছেন।

ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের ধর্মীয় নেতা ২৮ ও ২৯ এপ্রিল মিসর সফর করবেন। রোববার (১৯ মার্চ) ভ্যাটিকানের বরাত দিয়ে এই সংবাদ প্রকাশ করেছে গালফ নিউজ ও আরব নিউজ।

ভ্যাটিকানের সেন্ট পিটার ভ্যাসিলিকার পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে পোপের সফরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

২০১৬ সালের মে মাসে পোপ ভ্যাটিকানে মিসরের গ্র্যান্ড ইমাম ও ইসলামি শীর্ষ নেতাদের নিয়ে একটি সম্মেলন করেছিলেন। এবার খ্রিস্টানদের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নত করতে কায়রো অনুরূপ সম্মেলনের আয়োজন করছে। 

পোপ ষোড়শ বেনেডিক্টের পর থেকে ক্যাথিলিকদের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হয় মিসরের। বর্তমান পোপ অভ্যন্তরীণ বিশ্বাসে সব ধর্মকে সমান মর্যাদা দিয়ে থাকেন। এরই অংশ হিসেবে তিনি সব ধর্মের মানুষের কথা শুনেন। কি মুসলিম, কি অর্থোডক্স, কি প্রোডেস্টান- সব ধর্মকেই সমান মূল্যায়ণ করেন পোপ ফ্রান্সিস।

আর্জেন্টাইন এ পোপকে অনেক আগেই মিসরে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট সিসি। ২০১৪ সালে তিনি ভ্যাটিকানে পোপের সঙ্গে সাক্ষাতের সময়ই মিসরে পোপকে আমন্ত্রণ জানান তিনি। এখন নতুন করে পোপকে আমন্ত্রণ জানান আল আজহারের গ্র্যান্ড ইমাম আহমেদ আল তায়েব।

পোপ মিসরের প্রেসিডেন্ট ও দেশটির গ্র্যান্ড ইমাম আহমেদ আল তায়েবের সঙ্গে দেখা করবেন বলে ভ্যাটিকানের বিবৃতিতে বলা হয়েছে। 

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, গুরুত্বপূর্ণ এ সফরে শান্তি, মানবতা, সহিষ্ণুতার চেতনা একই সঙ্গে সন্ত্রাস ও উগ্রবাদ সমাজ থেকে কিভাবে কমানো যায় সে সব বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে।

রোমান ক্যাথলিক ফ্রান্সিস দ্বিতীয় হিসেবে মিসর সফর করছেন। এর আগে ২০০০ সালের ফেব্রুয়ারিতে পোপ দ্বিতীয় জন পল মিসর সফর করেছিলেন।

২০১১ সালে মিসরের আকেজান্দ্রিয়ার ক্যাপটিক চার্চে হামলার জন্য ইসলামকে সন্ত্রাসীদের ধর্ম বলে নিন্দা জানান তৎকালিন পোপ বেনেডিক্ট। পোপ বেনেডিক্টের ইসলাম বিদ্বেষী মন্ত্যবের পরে আল আজহার মসজিদ পোপ বেনেডিক্টের মন্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়। সেই থেকে ক্যাথলিকদের সঙ্গে মিসরের সম্পর্কের কিছুটা ছেদ পরে। 

সেই ব্যবধান কমাতেই পোপ ফ্রান্সিসের মিসর সফর। তিনি মিসরের হাজার বছরের আগের ঐতিহ্যবাহী মসজিদ আল আজহারের গ্র্যান্ড ইমামের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

গতবারের বৈঠকে আল আজহারের গ্র্যান্ড ইমাম আহমেদ আল তায়েব এবং পোপ ফ্রান্সিসের মধ্যকার বৈঠকটি ছিল ‘খুব আন্তরিক।’ ওই বৈঠকে দুই শীর্ষ ধর্মীয় নেতা উপহার বিনিময় করেন, পরস্পরকে আলিঙ্গন করেন এবং মধ্যপ্রাচ্যে খ্রিস্টান ও মুসলিমদের মধ্যে সংঘাত-উত্তেজনা নিয়ে আলোচনা করেন। 

-আরব নিউজ অবলম্বনে

ইসলাম বিভাগে লেখা পাঠাতে মেইল করুন: bn24.islam@gmail.com

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৮ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০১৭
এমএইউ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।