[x]
[x]
ঢাকা, শনিবার, ৯ আষাঢ় ১৪২৫, ২৩ জুন ২০১৮

bangla news

বাড়ি নেই বলে ২ দশকের মুখ্যমন্ত্রী উঠেছেন দলের অফিসে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৩-০৯ ৮:১৭:২৫ পিএম
ত্রিপুরার বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার

ত্রিপুরার বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার

টানা ২০ বছর একটি রাজ্যের সরকার চালিয়েছেন তিনি। থেকেছেন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তার জন্য নির্ধারিত সরকারি বাসভবনে। ক্ষমতার পালাবদলে সরকারি বাসভবন ছাড়তে হয়েছে তাকে। উঠেছেন কোথায়? নিজের কোনো বাড়িতে নয়, দলের কার্যালয়ে। সত্যিই, দলের কার্যালয়ের অতিথি ভবনে উঠেছেন স্ত্রী-সংসার নিয়ে।

দীর্ঘ দুই দশক সরকারের সর্বোচ্চ পদে থাকলেও কোনো বাড়ি করতে না পারায় কমিউনিস্ট পার্টি অব ইন্ডিয়া-মার্ক্সিস্টের (সিপিআইএম বা সিপিএম) ত্রিপুরা রাজ্যের নেতা বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের জায়গা হয়েছে দলীয় কার্যালয়ে। কার্যালয়ের অতিথি ভবনের একটি কক্ষে স্ত্রীকে নিয়ে থাকবেন সাদামাটা জীবনযাপনের জন্য প্রসিদ্ধি লাভ করা মানিক। রাজ্য সরকার কোনো বাড়ি বরাদ্দ না দেওয়া পর্যন্ত সাবেক এ সরকারপ্রধানকে সেখানেই থাকতে হবে।

নতুন মুখ্যমন্ত্রী বিজেপির বিপ্লব কুমার দেব শপথ নেওয়ার আগের দিনই বৃহস্পতিবার (৮ মার্চ) রাজধানী আগরতলার মার্ক্স-অ্যাঙ্গেলস সরণিতে সরকারি বাড়ি ছেড়ে ৫০০ মিটার দূরে সিপিএম কার্যালয়ে ওঠেন মানিক।

দলের সাধারণ সম্পাদক বিজন ধর এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেছেন, স্ত্রী পাঞ্চালি ভট্টাচার্যকে নিয়ে পার্টি অফিসের অতিথি ভবনের একটি কক্ষে থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী। আর দলের কার্যালয়ে যা রান্না-বান্না হয়, তা-ই তিনি খাবেন বলে জানিয়েছেন।

সিপিএমের দফতর সম্পাদক হরিপদ দাস জানান, বর্ষিয়ান এ রাজনীতিক তার সরকারি বাসভবন থেকে কিছু বই, কিছু পোশাক-আশাক ও সিডি তার নতুন ‘ঠিকানায়’ স্থানান্তর করেছেন। যদি নতুন সরকার তাকে কোনো কোয়ার্টার দেয় (বিরোধী দলীয় নেতা হিসেবে), তবে সেখানে স্থানান্তর হতে পারবেন তিনি।

মানিকের স্ত্রী পাঞ্চালী এর আগে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, সরকারি বাসভবন ছাড়ার আগে কিছু মার্ক্সবাদী বই তিনি দলের কার্যালয়সহ বিভিন্ন গ্রন্থাগারে দান করে দেবেন।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ত্রিপুরা বিধানসভার নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে সিপিএমের টানা ২৫ বছরের শাসনের অবসান ঘটায় বিজেপি। অবসান হয় মানিক সরকারের ২০ বছরের ‘মুখ্যমন্ত্রিত্বের’। ব্যক্তিজীবনে মানিক ও পাঞ্চালী দম্পতি নিঃসন্তান।

বাংলাদেশ সময়: ২০১০ ঘণ্টা, মার্চ ০৯, ২০১৮
এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa