[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৬ ফাল্গুন ১৪২৪, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

bangla news

নতুন পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি করছে পাকিস্তান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০২-১৪ ১:২৫:৫০ পিএম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

স্বল্প পাল্লার কৌশলগত অস্ত্রসহ নতুন ধরনের পারমাণবিক মারণাস্ত্র তৈরি করছে পাকিস্তান। এমনই দাবি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা পরিচালক ড্যান কোটস।

সংবাদ সংস্থাগুলো জানায়, সোমবার সিনেট সিলেক্ট কমিটি অন ইন্টিলিজেন্স আয়োজিত বিশ্বব্যাপী হুমকি সংক্রান্ত এক কংগ্রেসীয় শুনানীতে ড্যান কোটস এই তথ্য প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, ভারত-শাসিত জম্মুতে শনিবার সানজুয়ান সামরিক ঘাঁটিতে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদের জঙ্গিরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে ৬ সৈন্যসহ ৭ জনকে হত্যা করে। এর কয়েকদিনের মাথায় তিনি পাকিস্তানের বিপজ্জনক মারণাস্ত্র নির্মাণ কার্যক্রমের কথা জানালেন।

ড্যান কোটস সতর্ক করে দিয়ে বলেন, পাকিস্তান শুরু থেকেই পারমাণবিক অস্ত্র তৈরির কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। পাশাপাশি নতুন ধরনের পারমাণবিক মারণাস্ত্র তৈরি করছে। এসব মারণাস্ত্রের মধ্যে আছে স্বল্প পাল্লার কৌশলগত (ট্যাকটিক্যাল) পরমাণু অস্ত্র, সমুদ্রভিত্তিক ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র, দূরপাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র। এসব অতি বিপজ্জনক অস্ত্রের কারণে যুক্তরাষ্ট্র ও এর মিত্রদের জন্য বিশ্বব্যাপী হুমকি হয়ে আছে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের পাশাপাশি তিনি উত্তর কোরিয়ার নাম উল্লেখ করেন। কেননা পারমাণবিক অস্ত্র কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়া উত্তর কোরিয়া যুক্তরাষ্ট্রের জন্য এক বৈরী রাষ্ট্র।

ড্যান কোটসের মতে, আগামী কয়েক বছরের মধ্যে উত্তর কোরিয়া হয়ে উঠবে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য বড় এক হুমকি। ২০১৭ সালে টানা দ্বিতীয় বছর অনেকগুলি দূর পাল্লার ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালায় পিয়ংইয়ং। এসবের মধ্যে ছিল দেশটির প্রথম আন্ত:মহাদেশীয় ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষাও। 

যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তার জন্য সরাসরি হুমকি হয়ে উঠবে এমন দূর পাল্লার পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করার বিষয়ে পিয়ংইয়ং আপোসহীন। এরই মধ্যে পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্রের এ নিয়ে সপ্তম ও সবচেয়ে শক্তিশালী পরীক্ষাটি চালিয়েছে দেশটি। 

উত্তর কোরিয়া অন্য কারণেও বিপজ্জনক। দেশটি বিপজ্জনক অস্ত্র ও অস্ত্র-প্রযুক্তি অন্যসব দেশের কাছে রফতানি করেছে।

কংগ্রেসের শুনানীতে ড্যান কোটস আরো বলেন, আমাদের মূল্যায়ন হচ্ছে পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচির বাইরে দেশটির জীবাণু অস্ত্র কর্মসূচিও চালু আছে। এজন্য তাদের আছে শক্তিশালী বায়োটেকনোলজি অবকাঠামো।  

কোটস-এর মতে, ব্যাপক বিধ্বংসী মারণাস্ত্রের আধুনিকায়ন, উন্নয়ন এবং হস্তগত করা, এগুলোকে ছোড়ার প্রযুক্তি আযত্ত করার অব্যাহত চেষ্টা ও তা অর্জন করার মধ্য দিয়ে দেশটি ওই অঞ্চলে মোতায়েন মার্কিন সেনাদল, যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ড এ যুক্তরাষ্ট্রের মিত্রদের জন্য বড় হুমকি হয়ে আবির্ভূত হচ্ছে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৩১০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৮

জেএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa