খেলনা বাঘেই জব্দ পুলিশ!
[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৫, ১৯ আগস্ট ২০১৮
bangla news

খেলনা বাঘেই জব্দ পুলিশ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০২-০৭ ৫:১৮:১৭ পিএম
এই সেই খেলনা বাঘ। ছবি-সংগৃহীত

এই সেই খেলনা বাঘ। ছবি-সংগৃহীত

কথায় বলে, বাঘের চেয়ে বাঘের ভয়টাই নাকি বড়। একথাই অক্ষরে অক্ষরে সত্য প্রমাণ হলো এবার।

একটি খেলনা বাঘকে আসল বাঘ মনে করে স্কটল্যান্ডের পুলিশ টানা ৪৫ মিনিট গলদঘর্ম হলো।শেষমেষ লোকের চোখে বোকার হদ্দ প্রমাণ করলো নিজেদের।

একটি মার্কিন ইংরেজি দৈনিক  স্কটিশ পুলিশের দেয়া একটি ফেসবুক পোস্টের বরাত দিয়ে বুধবার (০৭ জানুয়ারি) এখবর দিয়েছে।

গত শনিবার রাতে ঘটে যাওয়া ঘটনাটা এরকম। সপ্তাহান্তে ব্রুস গ্রাব (২৮) নামে স্কটল্যাণ্ডের পিটারহেড অঞ্চলের এক তরুণ কৃষক দেখতে পেল তার জমিতে ওঁত পেতে আছে এক ইয়াবড় ডোরাকাটা বাঘ। ভয়ে দিশেহারা ব্রুস পড়িমরি ছুটে এসে পুলিশকে ফোন করলো। বন্দুক হাতে অকুস্থলে ছুটে এলো একদল পুলিশ। এসে তারাও দেখলো ঘটনা সত্য: দিব্যি থাবা ছড়িয়ে বসে আছে দশাসই এক ডোরাকাটা বাঘ।

সাক্ষাৎ ‘বাঘ’ দেখে ভড়কে গিয়ে বন্দুক হাতে পুলিশ গাড়িতেই বসে রইল  টানা ৪৫ মিনিট।

কিন্তু বাঘের তো কোনো নড়াচড়া নেই! অগত্যা টগবগে তরুণ কৃষক ব্রুস গ্রাব নিজের ট্রাক নিয়ে একটু একটু করে বাঘের কাছাকাছি হলো। পরে সে বুঝলো, এটা আসল বাঘ নয়, খেলনা বাঘ (ভেতরে খড় পোরা বাঘ)!

এভাবেই ‘বাঘ নাটকের’ অবসান ঘটাল সে নিজেই। আর মাঝপথে পুলিশ বনলো হদ্দ বোকা। তাদের মাথায় একবারও এলো না যে, ডোরাকাটা বড় বাঘ বলে কোনো প্রাণী ইংল্যান্ড–স্কটল্যান্ড কোথাও নেই। এটা আছে কেবল এশিয়ায়, রাশিয়ায়।

তবে কোন বিটকেলে লোক ব্রুস গ্রাবের জমিতে খেলনা বাঘ রেখে গেল আর পুলিশশুদ্ধ সবাইকে নাকানিচোবানি খাওয়াল সে রহস্যের কুলকিনারা হয়নি। 

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০১৮
জেএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa